August 1, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, May 11th, 2021, 1:19 am

গঙ্গায় ভেসে এলো একে একে ৪৫ পচাগলা লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল ভারত। এর মধ্যেই গঙ্গায় ভেসে আসছে একের পর এক পচাগলা লাশ। বাতাসে ভাসছে দুর্গন্ধ। পানিতে নেমে গেছে কুকুর। এ এক বীভৎস দৃশ্য।

সোমবার সকালে এ দৃশ্য দেখে শিউরে উঠেছেন ভারতের বিহারের বক্সার জেলার চৌসা গ্রামের বাসিন্দারা। এক বা দুটি নয়, একে একে ৪০-৪৫টি লাশ। সংখ্যা ছাড়াতে পারে ১০০। কোথা থেকে এলো এত লাশ! কোনোভাবেই নিজেদের বিশ্বাস করাতে পারছিলেন না এখানকার মানুষ। এরই মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে গঙ্গার পার্শ্ববর্তী এলাকায়।

স্থানীয় সরকারের ধারণা, লাশগুলো উত্তরপ্রদেশ থেকে ভেসে এসেছে। স্থানীয়রা প্রশাসনের কাছে এসব লাশ দাহ করার দাবি জানিয়েছে। কীভাবে এত লাশ ভেসে এলো তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে।

এ খবর জানিয়ে এনডিটিভি বলেছে, করোনাভাইরাস ভারতে কী ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে, তারই যেন প্রকাশ ঘটল নদীতে লাশের এ সারি। এসব মানুষ করোনায় মারা গিয়েছেন বলে ধারণা করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এসব মানুষের আত্মীয়রা হয়তো লাশ দাহ করার বা দাফনের কোনো ফাঁকা স্থান পাননি বলে মনে করছে স্থানীয় প্রশাসন। তাই তারা এসব লাশ গঙ্গার পানিতে ভাসিয়ে দিয়েছেন। সেই লাশ উজানের উত্তর প্রদেশ থেকে ভেসে এসেছে।

এতে আরো বলা হয়েছে, সোমবার সকালে বিহারের চৌসা গ্রামের পাশে গঙ্গা নদীতে এসব লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা। হরর মুভি বা ভৌতিক সিনেমার মতো এ ঘটনায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে পুরো এলাকায়।

গঙ্গার তীরে দাঁড়িয়ে জেলা কর্মকর্তা অশোক কুমার বলেন, আমরা ৪০-৪৫টি লাশ ভেসে আসতে দেখেছি। এসব দেহ পানিতে ভাসিয়ে দেয়া হয়েছে বলে আমি মনে করি।

আবার কেউ কেউ বলেন, এমন লাশের সংখ্যা ১০০ পর্যন্ত হতে পারে। আরেকজন কর্মকর্তা কে কে উপাধ্যায় বলেছেন, লাশগুলো ফুলে উঠেছিল। সম্ভবত এগুলো কমপক্ষে পাঁচ-সাতদিন আগে পানিতে ভাসিয়ে দেয়া হয়েছে। আমরা এখন এসব লাশের সৎকারের ব্যবস্থা করছি। কোথা থেকে এ লাশগুলো এসেছে আমাদের তা তদন্ত করে বের করতে হবে। উত্তর প্রদেশের বাহরাইচ অথবা বারানসি না এলাহাবাদ থেকে এসব লাশ এসেছে। তবে এ লাশগুলো এখানকার নয়।

এদিকে, এসব লাশ থেকে এলাকায় করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আতঙ্কে রয়েছেন চৌসা গ্রাম ও আশপাশের মানুষজন। গঙ্গার পানিতেও এ দূষণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে মনে করছেন তারা। এসব লাশের পাশে পানিতেই কুকুর বিচরণ করতে দেখা গেছে। সব মিলিয়ে আতঙ্ক বেড়েছে।