June 19, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, April 2nd, 2024, 7:56 pm

অবশেষে ব্রাদার্সের ক্যাম্পে যোগ দিলেন এলিট একাডেমির সেই ছয় ফুটবলার

অনলাইন ডেস্ক :

নিলামে দল পেয়েও তাঁদের দিন কাটছিল উদ্বেগ ও শঙ্কায়। কিছুদিন কমলাপুর স্টেডিয়ামে বাফুফের একাডেমিতে শুধুই অনুশীলনে দিন পার করলেও এক মাসেরও বেশি সময় তাঁদের থাকতে হয়েছে ফুটবল থেকে দূরে। অবশেষে এলিট একাডেমির সেই ছয় ফুটবলারের মাঠে ফেরার পথ তৈরি হলো। গত বছরের আগস্টে জমকালো নিলামে এই ফুটবলারদের কিনেছিল ব্রাদার্স ইউনিয়ন। কিন্তু বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে আর্থিক দেনদরবারের বিরোধে তাঁদের দলে নিচ্ছিল না ঐতিহ্যবাহী দলটি। অবশেষে উভয় পক্ষ সমঝোতায় পৌঁছায় মৌসুমের শেষ ভাগে এসে মিরাজুল-ইমরানদের ঠাঁই হয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়নের ক্যাম্পে।

গত সোমবার সকালেই ক্যাম্পে উঠেছেন ছয় ফুটবলারের মধ্যে পাঁচজন। মিরাজুল ইসলাম, আজিজুল হক, ইমরান খান, সিরাজুল ইসলাম ও সুমন সরেন অনুশীলনও করেছেন দলের সঙ্গে। এর মধ্যে খেলার সুযোগ না পেয়ে রুবেল শেখ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকরি নিয়ে নতুন পথ বেছে নিয়েছেন। আবারও ফুটবলে ফিরতে পেরে যেন স্বস্তি উপচে পড়ল ডিফেন্ডার ইমরান খানের কণ্ঠে, ‘কী যে ভালো লাগছে, বলে বোঝাতে পারব না। খুব খুশি আমরা। আসলে খেলার বাইরে থাকা আমাদের জন্য কষ্টের। সুযোগ পেলে ভালো কিছু করার চেষ্টা করব।’ লিগে পার্টিসিপেশন মানি এবং গত মৌসুমে বিসিএল চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বেশ কিছু টাকা ব্রাদার্সের পাওনা আছে বাফুফের কাছে। সেই টাকা সমন্বয় করতে চেয়েছিল বলেই এত দিন এই ফুটবলারদের দলে নিচ্ছিল না ব্রাদার্স।

শেষ পর্যন্ত সমন্বয়ের পথেই হেঁটেছে বাফুফে। তবে খেলোয়াড়রা টাকা পাবেন মৌসুমের বাকি থাকা আট ম্যাচের হিসাবে। বাফুফের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন তুষার জানিয়েছেন, ‘হ্যাঁ, ব্রাদার্স যে অর্থ পেত সেখান থেকেই সমন্বয় করা হয়েছে। যে কয় ম্যাচ বাকি আছে সেই হিসাবে টাকা পাবে তারা।’ মাঠের বাইরে ব্রাদার্স আলোচনায় থাকলেও মাঠে দলটির বেহাল। চলতি মৌসুমে এখনো কোনো ম্যাচ জিততে পারেনি। ১০ দলের লিগে ৩ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে থাকা ব্রাদার্সের সামনে ঝুলছে অবনমনের খড়্গ।