June 27, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, May 19th, 2022, 8:49 pm

অভিবাসীদের মানবাধিকারের ঘাটতি পূরণে বিশ্বব্যাপী সংহতির আহ্বান বাংলাদেশের

অভিবাসীদের মানবাধিকার ও সুরক্ষায় ঘাটতি মেটাতে বিশ্বব্যাপী সংহতির আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ।

বুধবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এ আহ্বান জানান।

জাতিসংঘে ইন্টারন্যাশনাল মাইগ্রেশন রিভিউ ফোরামের (আইএমআরএফ) গোলটেবিল-৪-এ প্যানেলিস্ট হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন।

গোলটেবিল গ্লোবাল কমপ্যাক্ট অন মাইগ্রেশন (জিসিএম) এর পাঁচটি বিষয় যথাক্রমে- উপাত্ত, তথ্যের বিধান, নাজুকতা হ্রাস, বৈষম্য দূরীকরণ এবং আন্তর্জাতিক সহযোগিতার ওপর দৃষ্টিপাত করা হয় বৈঠকটিতে।

বক্তব্যে শাহরিয়ার জোর দিয়ে বলেন, সংকটময় পরিস্থিতিতে আটকেপড়া অভিবাসীসহ অভিবাসীদের অভিবাসন যাত্রার ঝুঁকি ও নাজুকতা হ্রাস করার লক্ষ্যে সরকার, মানবাধিকার সংস্থা, কনস্যুলেট ও জাতিসংঘের সংস্থাগুলোর মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধি করা এখন সময়ের দাবি।

স্বাগতিক দেশ ও মাতৃভূমির আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অভিবাসীদের ভূমিকার কথা তুলে ধরেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বৈশ্বিক অভিবাসন কম্প্যাক্ট ও এজেন্ডা ২০৩০ এর সমন্বয়মূলক বাস্তবায়ন নিশ্চিত করার ওপর জোর দেন। তিনি এক্ষেত্রে অভিবাসনের সঙ্গে যুক্ত সব অংশীজন ও জাতিসংঘের অভিবাসন নেটওয়ার্ক এর প্রচেষ্টা আরও জোরদার করার আহ্বান জানান।

অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান বর্ণবাদ, জাতিগত বিদ্বেষ, ভুল তথ্য উপস্থাপন, কলঙ্কলেপন, ও অসহিষ্ণুতা ইত্যাদি বিষয়গুলোতে আরও গভীরভাবে দৃষ্টি দেয়ার ওপর জোর দেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

এর আগে মঙ্গলবার আইওএম মহাপরিচালকের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন প্রতিমন্ত্রী।

তারা আন্তর্জাতিক অভিবাসনের বিভিন্ন দিক এবং বৈশ্বিক ও জাতীয় পর্যায়ে সম্ভাব্য সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করেন।

শাহরিয়ার ফোরামে বাংলাদেশের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি ২০২৩-২৫ ​​সালের জন্য মানবাধিকার কাউন্সিল নির্বাচনে বাংলাদেশের প্রার্থীতাসহ পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করতে অন্যান্য অনেক সদস্য রাষ্ট্রের প্রতিনিধি দলের প্রধানদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করছেন।

চার দিনের আন্তর্জাতিক অভিবাসন পর্যালোচনা ফোরাম ২০ মে একটি ‘অগ্রগতি ঘোষণা’ গ্রহণের মাধ্যমে শেষ হবে।

এ ঘোষণা দেয়ার জন্য জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা এবং লুক্সেমবার্গের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত অলিভার মেইজকে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি মনোয়ন প্রদান করেন।

এবারের আইএমআরএফ-এ বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন-রানা মোহাম্মদ সোহেল এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব আহমেদ মুনিরুস সালেহীন।

—ইউএনবি