October 4, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, December 24th, 2021, 7:22 pm

অভিষেকেই ৩০ প্রেক্ষাগৃহে ‘মৃধা বনাম মৃধা’

অনলাইন ডেস্ক :

১৫ বছরের ক্যারিয়ার পেরিয়ে গতকাল শুক্রবার সিনেমায় অভিষিক্ত হলেন মডেল-অভিনেত্রী-সঞ্চালক নোভা। যাকে রাজকীয় অভিষেকও বলা যেতে পারে। কারণ, প্রথম সপ্তাহেই এটি মুক্তি পেয়েছে দেশের বেশিরভাগ (৩০টি) প্রেক্ষাগৃহে। এতে নোভা ছাড়াও অন্যতম দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান ও সিয়াম আহমেদ। গল্পের শুরু থেকেই নোভার সাবলীল অভিনয় মুগ্ধতা এনে দেবে যে কোনও দর্শককে। সিয়ামের সঙ্গে ছোট ছোট রোমান্টিক ও ঘরোয়া দৃশ্যেও স্ত্রী হিসেবে নোভার অভিনয় ছিল একেবারে পরিপূর্ণ। সেই সঙ্গে শ্বশুর তারিক আনাম খানকে ম্যানেজ করার টেকনিকও দেখিয়েছেন নোভা! যা নজর কাড়ার মতো। নোভা বললেন, ‘শুটিং শুরুর আগে থেকেই তারিক আনাম ভাই বলতেন, পারিবারিক গল্প বলার নতুন ট্রেন্ড হতে পারে এই সিনেমাটি।’ এই অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘নায়িকা কিনা জানি না, আমি একজন আর্টিস্ট। প্যাশনের জায়গা থেকে অভিনয় করতে ভালোবাসি। সবসময় অভিনয় দিয়ে তৃষ্ণা মেটাতে চেয়েছি। ‘মৃধা বনাম মৃধা’ সেই তৃষ্ণা মেটানোর সুযোগ দিয়েছে আমায়। আমি শুধু আমার জায়গা থেকে সেরা কাজের চেষ্টা করেছি। অপেক্ষায় আছি, দর্শক কীভাবে নেন।’ এদিকে ছবিটি প্রসঙ্গে নায়ক সিয়াম বলেন, ‘সিনেমাটির গল্প অনেক আবেগঘন। শুটিং করার আগে আমরা প্রথমে বাবা-ছেলে (তারিক আনাম ও সিয়াম) হয়েছি। তারপর ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছি। বিশেষ প্রদর্শনীতে (২০ ডিসেম্বর) আমার নিজের বাবাও উপস্থিত ছিলেন। যখন সিনেমাটা শেষ হলো, তখন আমার বাবার চোখেও পানি দেখেছি। ওনাকে আমি নিজেই সান্ত¡না দিয়েছি। কিন্তু তারিক স্যারকে দেখে আর নিজেকে ধরে রাখতে পারিনি। কারণ, আমরা জানি এই জার্নিটা আমরা কীভাবে পার করেছি।’ ২০ ডিসেম্বর ছবিটির প্রিমিয়ার থেকেই বেশ আলোচনায় এর গল্প। ধারণা করা হচ্ছে, দেশীয় সিনেমার দর্শক খরা কাটবে ‘মৃধা বনাম মৃধা’র জোরে। নোভার মতো এটি নির্মাতা রনি ভৌমিকের প্রথম সিনেমা। রায়হান খানের সংলাপ ও চিত্রনাট্যে এই ছবিতে বাবা-ছেলের সম্পর্ক, পরিবারের স্পর্শকাতর কিছু দিক উঠে এসেছে। এতে আরও অভিনয় করেছেন সানজিদা প্রীতি, নিমা রহমান, মিলন ভট্টাচার্য, তৌফিকুল ইসলাম ইমন, মাসুদুল আমিন রিন্টু প্রমুখ।
প্রথম সপ্তাহে (২৪-৩০ ডিসেম্বর) যেসব প্রেক্ষাগৃহে দেখা যাচ্ছে ‘মৃধা বনাম মৃধা’:
ঢাকায় স্টার সিনেপ্লেক্স (বসুন্ধরা শপিং মল, সীমান্ত সম্ভার, সনি স্কয়ার), ব্লকবাস্টার সিনেমাস (যমুনা ফিউচার পার্ক), মধুমিতা, চিত্রামহল, আনন্দ, শ্যামলী, গীত, বিজিবি, ও সেনা অডিটোরিয়াম।
ঢাকার বাইরে নিউ গুলশান (জিঞ্জিরা), বর্ষা (জয়দেবপুর), মণিহার (যোশর), নন্দিতা (সিলেট), অভিরুচি (বরিশাল), রূপকথা (পাবনা), সেনা অডিটোরিয়াম (সাভার), চন্দ্রিমা (শ্রীপুর), নিউ মেট্রো (নারায়ণগঞ্জ), মালঞ্চ (টাঙ্গাইল), রূপকথা (শ্রীপুর), চাঁদমহল (কাঁচপুর), মধুবন (বগুড়া), লিবার্টি (খুলনা), শঙ্খ (খুলনা), রুটস সিনে ক্লাব (সিরাজগঞ্জ), সিনেস্কোপ (নারায়ণগঞ্জ), সুগন্ধা (চট্টগ্রাম) ও বনলতা (ফরিদপুর)।