July 24, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, January 26th, 2024, 8:37 pm

অসাধু ব্যবসায়ীদের প্রতি কঠোর হতে এনবিআরের প্রতি অর্থমন্ত্রীর আহ্বান

রাজস্ব আদায় বাড়াতে অসাধুদের বিরুদ্ধে কঠোর হতে এবং সৎ ব্যবসায়ীদের কর দেওয়ার জন্য উৎসাহিত করতে কাস্টমস কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

শুক্রবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে এনবিআর ভবনে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস-২০২৪ উপলক্ষে আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এনবিআরকে দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতির মূল চালিকাশক্তি হিসেবে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি এখন বিশ্ববাসীর কাছে স্বীকৃত।

তিনি বলেন, ‘অর্থনীতির সব সূচকে বাংলাদেশ উন্নতি করলেও এখনো আমাদের কর জিডিপি অনুপাত সন্তোষজনক নয়। আশা করি, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) করের জিডিপি অনুপাত বাড়ানোর চেষ্টা করবে।’

আলী বলেন, ‘কাস্টমসের অন্যতম প্রধান কাজ বাণিজ্য সহজীকরণ। আমাদের বাণিজ্যের পরিমাণ বাড়ছে, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে কাস্টমসকে সত্যিকারের স্মার্ট, আধুনিক ও স্বয়ংক্রিয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার দিকে এগিয়ে যেতে হবে।’

মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ কাস্টমসের অন্যতম দায়িত্ব উল্লেখ করে তিনি বলেন, এক্ষেত্রে কাস্টমসের সক্ষমতা বাড়ানো খুবই জরুরি।

এ বিষয়ে কাস্টমস কর্মকর্তারা বিশেষ নজর দেবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা রহমাতুল মুনিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ সচিব মো. খায়রুজ্জামান মজুমদার ও কৃষি সচিব ওয়াহিদা আক্তার।

এ ছাড়া এনবিআর সদস্য জাকিয়া সুলতানা, মো. মাসুদ সাদিক, হোসাইন আহমেদ ও ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল মুক্তাদির বক্তব্য রাখেন।

দেশের বাণিজ্যের পরিমাণ বৃদ্ধির বিষয়ে এনবিআর সদস্য সাদিক বলেন, প্রতিদিন বিল অব এন্ট্রির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার, যা ২০১০ সালে ছিল প্রায় সাড়ে তিন হাজার।

তিনি বলেন, কাস্টমস অটোমেশন ও আধুনিকায়নের কাজ চলছে। বিএসটিআই, ক্রীড়া কর্তৃপক্ষ, ট্রেড বডি, ব্যাংক ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর মতো অন্যান্য সার্টিফিকেশন কর্তৃপক্ষ স্বয়ংক্রিয় সনদ নিশ্চিত করলে ব্যবসায়ীরা উপকৃত হবেন।

জাকিয়া সুলতানা বলেন, ৫৬টি দেশের সঙ্গে বাংলাদেশ কাস্টমসের আনুষ্ঠানিক সুসম্পর্ক রয়েছে এবং এ খাত থেকে সিংহভাগ রাজস্ব আয় হয়।

তিনি বলেন, কাস্টমসকে নিরাপত্তা, মানি লন্ডারিং ও পরিবেশগত বিষয়ে কাজ করতে হবে, যেখানে বিভিন্ন খাতের বিশেষজ্ঞদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, সব কর্তৃপক্ষের অটোমেশন ছাড়া প্রতিদিন ১৭ হাজার চালান মোকাবিলা করা সত্যিই একটি কঠিন বিষয়।

অনুষ্ঠানে ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশন (ডব্লিউসিও) এনবিআর ও এর অধিভুক্ত দপ্তর এবং তিনটি প্রতিষ্ঠানের ১৭ জন কর্মকর্তাকে ‘সার্টিফিকেট অব মেরিট’ প্রদান করা হয়।

—–ইউএনবি