May 20, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, February 18th, 2022, 7:38 pm

আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে তানভীর তারেকের ‘স্মৃতিদহন’

রক আইকন আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে প্রথম কোনো গ্রন্থ প্রকাশ পেলো। অনিন্দ্য প্রকাশ এর ব্যানারে তানভীর তারেক এর লেখা ‘স্মৃতিদহন’ বইটি পাওয়া যাবে এবারের বইমেলায় । লেখক তানভীর তারেক এই বইটিকে বলছেন ‘অবলোকন গদ্য’।

তানভীর তারেক বলেন,‘বাচ্চু ভাইয়ের সঙ্গে আমার ২২ বছরের যে পরিচয়-সম্পর্ক তা গীতিকার-শিল্পী বা সাংবাদিক-শিল্পীর বাইরেও অনেক কিছু। সেই সম্পর্কের দীর্ঘ জার্নিতে তার প্রতি মোহগ্রস্ত সময়, মান-অভিমান, মায়ায় জড়ানো কাল বা কৃতজ্ঞতা বাঁধা মনের অবলোকনকেই আমি বইয়ে প্রকাশ করার চেষ্টা করেছি। ‘স্মৃতিদহন’ বইটিতে আমার নেয়া বাচ্চু ভাইয়ের প্রায় অর্ধশত ইন্টারভিউয়ের কোনোটিই গ্রন্থিত করিনি। ইচ্ছে করেই। কারণ ঐসকল ইন্টারভিউতে তৎকালীন বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মতামত ছিল। যা আগামী প্রজন্মের কোনো এক পাঠকের কাছে খটকা লাগতেই পারে। আমি তাই নিজের স্মৃতির যে দহনবেলা তৈরি হয়েছে আমার ভেতর তা তুলে ধরেছি।’

তিনি বলেন, ‘এই মানুষটি চলে যাবার পরদিন থেকে নানান স্মৃতি, আক্ষেপ আর ভালবাসার অনুরণন যে ঘুরপাক খেয়েছে সেগুলিই শব্দে সাজানোর চেষ্টা করেছি। আইয়ুব বাচ্চু’র সববয়সী ভক্তরা যেন এই বইয়ের প্রতিটি অংশে নিজেদের সঙ্গে তাদের আইয়ুব বাচ্চুকে সম্পর্কিত করতে পারেন, সেই চেষ্টাটাই করেছি।’

তানভীর তারেক এর এই গ্রন্থের ভূমিকায় আইয়ুব বাচ্চুর সহধর্মিনী ফেরদৌস আক্তার চন্দনা লিখেছেন, ‘তানভীর তারেক- তার এই বইটিতে আইয়ুব বাচ্চুকে দেখা, তার সঙ্গে কাটানো সময় ও গানের কাজ মিলিয়ে আবেগঘন কিছু স্মৃতিগল্প লিখেছেন। যা পড়ে আমারও মাঝে মাঝে ঐসব দৃশ্যকল্প, সমকালীন মানুষটাকে মনে পড়েছে বারবার। আমি জানি, তাঁর অগনিত ভক্তরাও একইভাবে, এই লেখাগুলো পড়ে স্মৃতির সঙ্গে, আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে হাঁটবেন অনেকক্ষণ। দারুণ সুখ পাঠ্য এই স্মৃতিগদ্য ভবিষ্যতে আইয়ুব বাচ্চুর জীবনী বা তাঁকে নিয়ে যে কোনো গবেষণার কাজে দারুণ এক রেফারেন্স হয়ে থাকবে।’

স্মৃতিদহন বইটিতে লেখকের সঙ্গে আইয়ুব বাচ্চুর ২২ বছরের সম্পর্কের নানান খতিয়ান, তৎকালীন মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির নানান দিক উঠে এসেছে ।

বইটি একুশে বইমেলার অনিন্দ্য প্রকাশ প্যাভিলিয়নে পাওয়া যাচ্ছে। একই সঙ্গে রকমারিসহ বিভিন্ন অনলাইন শপ থেকেও কিনতে পারা যাবে।

—ইউএনবি