December 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, November 9th, 2022, 9:13 pm

আন্ধারমানিক নদীতে গিলে খাচ্ছে বাঁধ

জেলা প্রতিনিধি, পটুয়াখালী (কলাপাড়া) :

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় আন্ধারমানিক নদীতে গিলে খাচ্ছে জলোচ্ছ্বাস নিয়ন্ত্রন বাঁধ। শুধু কান্ট্রি সাইটের কিছুটা স্লোপ বাকি আছে। ফাঁটল ধরেছে অন্ততঃ আরো ২৫ থেকে ৩০ ফুট। উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামের পাউবো’র ৪৬ নং পোল্ডারটির এমন অবস্থা হয়েছে। প্লাবনের শঙ্কায় এলাকাজুড়ে বিরাজ করছে আতঙ্ক। ভাঙ্গনের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে কৃষকদের।
স্থানীয়রা জানান, হঠাৎ করে এই বাঁধটি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এখনো ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। এখন শুধু স্লোপ বাকি আছে। টপসহ মূল বাঁধ ভেঙ্গে গেছে। ক্রমান্বয়ে ভাঙ্গনের গতিবেগ বেড়ে যাওয়ায় ঝুঁকিতে রয়েছে ওই ইউনিয়নের সদরপুর, আক্কেলপুর, সৈয়দপুর, মজিদবাড়িয়া, দরিয়াপুর, হাজীপুর ও লস্করপুর গ্রাম। মাত্র কয়েক মাস আগে বাঁধটি রক্ষায় বালু-সিমেন্ট ভর্তি জিও ব্যাগ দিয়ে জরুরি প্রটেকশন দিলেও ভেঙ্গে যাচ্ছে অপর অংশ।
জালালপুর গ্রামের অধিবাসী মো.জসিম মিয়া জানান, এ এলাকার অধিকাংশ মানুষ কৃষক। কৃষিকাজই তাদের জীবিকার একমাত্র উৎস। এ বেড়িবাঁধটি ভেঙ্গে গেলে ৮টি গ্রামের মানুষই ক্ষতির শিকার হবে। হাজীপুর গ্রামের মো.মিরাজ জানান, বাঁধটি দ্রুত মেরামত না করলে আমন ধানে নদীর পানি প্রবেশ করে ডুবে যাবে। এ বিপদ থেকে মুক্তি দিতে সংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসা উচিৎ।
নীলগঞ্জ ইউনিয় পরিষদের চেয়ারম্যান মো.বাবুল মিয়া জানান, বিষয়টি নিয়ে পাউবোতে জানানো হয়েছে।
পানি উন্নয়ন বোর্ড কলাপাড়ার নির্বাহী প্রকৌশলী মো.আরিফ হোসেন জানান, ৪৬ নম্বর পোল্ডারের জালালপুরে বাঁধ ভাঙ্গার খবর শুনে তাৎক্ষণিক একজন এসও ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। তিনিও পরির্দশন করেছেন । এখন জরুরি ভিত্তিতে ভাঙ্গা অংশ মেরামতের পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।