December 4, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, October 16th, 2022, 7:50 pm

আরব আমিরাতকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে নেদারল্যান্ড

অনলাইন ডেস্ক :

টি-২০ ক্রিকেট বিশ্বকাপের অষ্টম আসরের উদ্বোধনী দিনের রোমাঞ্চকর দ্বিতীয় ম্যাচে আরব আমিরাতকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে নেদারল্যান্ড। ১১২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ১ বল বাকী থাকতেই জয় দেখা পায় নেদারল্যান্ড। গত রোববার জিলংয়ের সাইমন্ডস স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে নামে আরব আমিরাত। ব্যাট করতে নেমে শুরুতে দেখেশুনে খেলতে থাকে দুই উদ্বোধনী ব্যাটার চিরাগ সুরি ও মোহাম্মদ ওয়াসিম। দলীয় ৩৩ রানে ২০ বলে ১৩ রান করে আউট হন চিরাগ সুরি। এরপর ক্রিজে আসেন কাশফি দাউদ। দলীয় ৫৯ রানে ১৪ বলে ১৫ রান করে সাজঘরে ফিরে যান কাশফি। এরপর অরভিন্ডকে নিয়ে রান কিছুটা এগিয়ে নেন ওপেনিংয়ে নামা মোহাম্মদ ওয়াসিম। দলীয় ৯১ রানে ৪৭ বলে ৪১ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। দলীয় ৯৯ রানে থেকে ১১০ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে আরব আমিরাত। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১১ রান তোলে আরব আমিরাত। নেদারল্যান্ডের পক্ষে বাস ডি লিডই ৩ ওভারে ১৯ রান খরচায় নেন সর্বোচ্চ ৩ উইকেট। ১১২ রানের ছোট টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় নেদারল্যান্ড। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বিক্রমজিত সিংয়ের উইকেট হারায় নেদারল্যান্ড। দলীয় ১৪ রানে ৭ বলে ১০ করে আউট হন বিক্রমজিত। এরপর ম্যাক্স ওডোদ ও বাস ডি লিডই মিলে শুরুর ধাক্কা সামাল দেন। দুজন মিলে ২৭ রানের ছোট পার্টনারশিপ গড়েন। দলীয় ৪১ রানে ১৮ বলে ২৩ করে আউট হন ওপেনিংয়ে নাম ম্যাক্স ওডোদ। এরপর দলীয় ৫৯ রানে আউট হন বোলিংয়ে চমক দেখানো বাস ডি লিডই। ১৮ বলে ১৪ করে সাজঘরে ফিরে আন তিনি। এরপর ৭১ থেকে ৭৬ রানের মধ্যে আরও তিন নেদারল্যান্ডের ব্যাটারকে সাজঘরে ফিরিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তোলে আমিরাতের বোলার জুনাইদ সিদ্দিক। জয়ের জন্য শেষ ৬ ওভারে ৩৫ রান প্রয়োজন হয় নেদারল্যান্ডের। এরপর নেদারল্যান্ডের দুই ব্যাটার স্কট এডোয়ার্ড ও টিম প্রিংগেল মিলে পরিস্থিতি অনুযায়ী দেখেশুনে খেলে দলকে জয়ের পথেই রাখে। কিন্তু জয় থেকে ৯ রান দূরে থাকতে ১৬ বলে ১৫ রান করে আমিরাত পেসার জাহুর খানের বলে বোল্ড হন টিম প্রিংগেল। এরপর ভ্যান বিককে নিয়ে ১ বল হাতে রেখে নেদারল্যান্ডকে জয় এনে দেয় স্কট এডোয়ার্ড। তিনি ১৯ বলে ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন।