October 3, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Saturday, September 10th, 2022, 7:30 pm

আর্থিক স্বচ্ছতা: বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে, তবে এখনও শর্ত পূরণ হয়নি

সাবহেড-মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে

বাংলাদেশ সরকার আর্থিক স্বচ্ছতার ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক চাহিদা পূরণে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। তবে ন্যূনতম মানদণ্ডে পৌঁছাতেও এখনও ঘাটতি রয়েছে। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে দেশের রাজস্ব খাতের স্বচ্ছতা নিয়ে এ তথ্য দেয়া হয়েছে।

২০২২ ফিসকাল ট্রান্সপারেন্সি শিরোনামের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকার কীভাবে সাধারণ জনগণের কাছ থেকে সংগৃহীত কর রাজস্ব খাতে ব্যয় করে আর্থিক স্বচ্ছতার প্রতিবেদন নাগরিকদের তা জানায় এবং এটি কার্যকর সরকারি আর্থিক ব্যবস্থাপনার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

আর্থিক স্বচ্ছতার প্রতিবেদন নাগরিকদের সরকারি বাজেট সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা দেয় এবং এর মাধ্যমে নাগরিকরা (কর দানকারী) সরকারের কাছে জবাবদিহিতা চাইতে পারে। যার ফলে বাজারের আস্থা ও স্থায়িত্বকে জোরালো হয়।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সরকার এখনও ন্যূনতম শর্ত পূরণ করেনি। তবে আর্থিক স্বচ্ছতার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে।

২০০৮ সাল থেকে অন্যান্য প্রাসঙ্গিক সংস্থার সঙ্গে পরামর্শ করে মার্কিন ডিপার্টমেন্ট অব স্টেট বিদেশে দেশটির সহায়তাপ্রাপ্ত সরকারগুলোর রাজস্বখাতে আর্থিক স্বচ্ছতার মূল্যায়ন পরিচালনা করে আসছে।

আর্থিক স্বচ্ছতা প্রতিবেদন ১৪১টি সরকারের (ও ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ) আর্থিক স্বচ্ছতার ন্যূনতম শর্ত পূরণের প্রচেষ্টা, যে সরকারগুলো ন্যূনতম শর্ত পূরণ করেনি সেগুলোর মূল্যায়ন এবং যে সরকারগুলো আর্থিক স্বচ্ছতার ন্যূনতম শর্ত পূরণ করেনি তারা শর্ত পূরণে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে কি না তা পর্যালোচনা করে।

মার্কিন প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে বাংলাদেশের আর্থিক স্বচ্ছতা যেভাবে উন্নত করা যেতে পারে:

আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত নীতি অনুযায়ী বাজেট নথি প্রস্তুত করা।
নিশ্চিত করতে হবে যে সর্বোচ্চ নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান স্বাধীনভাবে কাজ করার আন্তর্জাতিক মান পূরণ করছে এবং তাদের পর্যাপ্ত সম্পদ রয়েছে।
যথাসময়ে নিরীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশ করা, যাতে সারগর্ভ ফলাফল, সুপারিশ ও বর্ণনা থাকবে।
প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণ পুরস্কার সম্পর্কে মৌলিক তথ্য ধারাবাহিক ও সর্বজনীনভাবে উপস্থাপন করা।

-পর্যালোচনা মেয়াদে সরকার একটি যুক্তিসঙ্গত সময়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করে তার বছরের শেষের প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

-এটি তার নির্বাহী বাজেট প্রস্তাবও তৈরি করেছে এবং অনলাইনসহ জনসাধারণের কাছে ব্যাপকভাবে ও সুলভ বাজেট প্রণয়ন করেছে।

ঋণ বাধ্যবাধকতা তথ্য সর্বজনীনভাবে উপস্থাপিত ছিল।

বাজেট নথিগুলো প্রাকৃতিক সম্পদের রাজস্বসহ সরকারের পরিকল্পিত ব্যয় এবং রাজস্ব প্রবাহগুলো একটি যুক্তিসঙ্গতভাবে সম্পূর্ণ রূপ দেয়।

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন উদ্যোগে আর্থিক বরাদ্দ ও উপার্জনগুলো সর্বজনীনভাবে উপস্থাপিত বাজেট নথিতে অন্তর্ভুক্ত ছিল।

বাজেটে তথ্য সাধারণত নির্ভরযোগ্য বলে বিবেচিত হত, যদিও বাজেট নথি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত নীতি অনুযায়ী প্রস্তুত করা হয়নি।

সরকারের সর্বোচ্চ নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি হিসাব পর্যালোচনা করেছে। কিন্তু এর রিপোর্টগুলিতে সারগর্ভ ফলাফল ছিল না এবং একটি যুক্তিসঙ্গত সময়ের মধ্যে সর্বজনীনভাবে উপলব্ধ করা হয়নি।

সর্বোচ্চ নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানটি স্বাধীনতার আন্তর্জাতিক মান পূরণ করেনি।

সরকার আইন বা প্রবিধান নির্দিষ্ট করেছে এবং প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণ চুক্তি ও লাইসেন্স প্রদানের জন্য মানদণ্ড ও পদ্ধতিগুলো বাস্তবে অনুসরণ করতে দেখা গেছে।

প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণ পুরস্কারের মৌলিক তথ্য জনসাধারণের জন্য ধারাবাহিকভাবে উপলব্ধ করা হয়নি।

—-ইউএনবি