December 6, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, February 24th, 2022, 8:25 pm

ইউক্রেনে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের সরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ

ফাইল ছবি

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেছেন, যে সব বাংলাদেশি ইউক্রেন ছেড়ে পোল্যান্ডে আসবে তাদের ফিরিয়ে আনতে সরকার চার্টার্ড ফ্লাইটের ব্যবস্থা করবে।
তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম কাজ হলো আমাদের নাগরিকদের ইউক্রেন থেকে নিরাপদে পোল্যান্ডে নিয়ে আসা।’
বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ইতিমধ্যে সম্ভাব্য অপসারণের বিষয়ে বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (ক্যাব) ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সঙ্গে কথা বলেছেন তারা।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, তারা পোল্যান্ড থেকে (বাংলাদেশি নাগরিকদের) সরিয়ে নেয়ার পদ্ধতি চূড়ান্ত করবেন এবং প্রয়োজনে তারা বিদেশি এয়ারলাইন্সের সঙ্গেও কথা বলবেন।
পোলিশ সরকার বাংলাদেশিদের সীমান্ত অতিক্রম করার জন্য ভিসা দেয়ার আশ্বাস দিলেও তা এখনও শুরু হয়নি উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘তাদের (বাংলাদেশিদের) নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ইউক্রেন থেকে পোল্যান্ড সীমান্তে আসতে হবে।’
ইউক্রেন থেকে আসা বাংলাদেশিদের ১৫ দিন পর্যন্ত থাকতে দেবে পোল্যান্ড এবং এর আগেই বাংলাদেশ সরকার তাদের ফিরিয়ে আনার আশাবাদ ব্যক্ত করে।
শাহরিয়ার আলম বলেন, পোল্যান্ডে বাংলাদেশ দূতাবাস তাদের অপসারণের আগ পর্যন্ত বাসস্থান সুবিধা দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।
ওয়ারশে বাংলাদেশ দূতাবাস বৃহস্পতিবার সকালে দ্রুত অন অ্যারাইভাল ভিসা দেয়ার জন্য পোলিশ সরকারের কাছে আবারও আহ্বান করে।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ইতালি ও জার্মানির বাংলাদেশ মিশন থেকে অতিরিক্ত কর্মকর্তা পাঠানো হচ্ছে যেন কম সময়ের মধ্যে বাংলাদেশিদের প্রয়োজনীয় সেবা দেয়া যায়।’
এর আগে বৃহস্পতিবার ইউক্রেনে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দেয় বাংলাদেশ।
শিক্ষার্থীসহ আনুমানিক ৫০০ বাংলাদেশি নাগরিক বর্তমানে ইউক্রেনে আটকে পড়েছেন।
পোল্যান্ডে বাংলাদেশের দূতাবাস জানিয়েছে, তারা ‘ইউক্রেনে বাংলাদেশিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আরও পদক্ষেপের বিষয়ে’ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করছে।
পোল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন ওয়ারশ থেকে ফোনে ইউএনবিকে বলেন, ‘প্রায় ৫০০ বাংলাদেশির সঙ্গে আমাদের সরাসরি যোগাযোগে আছে। আমরা তাদের নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে বলেছি।’
রাষ্ট্রদূত সুলতানা অবশ্য আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, ইউক্রেনে আরও বাংলাদেশি থাকতে পারে যারা এখনও দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি।’
ইউক্রেনে বর্তমানে বাংলাদেশের কোনো দূতাবাস বা কনস্যুলেট নেই। পোল্যান্ডে দেশটির দূতাবাস ইউক্রেনের ডি-ফ্যাক্টো কূটনৈতিক মিশন হিসেবে কাজ করে।
এর আগে মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) পোল্যান্ডে বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, ইউক্রেনের বর্তমান পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশিদের সাময়িকভাবে দেশটি ত্যাগ করার পরামর্শ দেয়া যাচ্ছে। অবিলম্বে অন্য কোন দেশে যেতে না পারলে তারা বাংলাদেশে ফিরে যেতে পারেন। ঘটনাবলী পর্যবেক্ষণ করে পরবর্তীতে দূতাবাসের পক্ষ থেকে পরামর্শ হালনাগাদ করা হবে।
এতে আরও বলা হয়েছে, একই সঙ্গে অত্যাবশ্যক না হলে বাংলাদেশিদের ইউক্রেনে সব ধরনের ভ্রমণ পরিহার করার জন্য পরামর্শ দেয়া হলো।
এছাড়া ইউক্রেনে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের তাদের অবস্থানের তথ্য দূতাবাসকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে যেন জরুরি প্রয়োজনে দূতাবাস তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে।

—-ইউএনবি