July 24, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, April 28th, 2023, 7:53 pm

ইউনাইটেডের সঙ্গে টটেনহ্যামের ড্র

অনলাইন ডেস্ক :

প্রথমার্ধেই দুবার জালে বল পাঠিয়ে জয়ের আশা জাগাল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তবে সেই ধাক্কা দারুণভাবে সামলে, বিরতির পর আক্রমণের ঝড় তুলে এক পয়েন্ট আদায় করে নিল টটেনহ্যাম হটস্পার। টটেনহ্যাম হটস্পার স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়েছে। জেডন স্যানচোর গোলে সফরকারীরা এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মার্কাস র‌্যাশফোর্ড। দ্বিতীয়ার্ধে পেদ্রো পোরো ব্যবধান কমানোর পর সমতা টানেন সন হিউং-মিন। লিগে টানা তিন জয়ের পর এই ড্রয়ে তৃতীয় স্থানে থাকা নিউক্যাসল ইউনাইটেডের চেয়ে ২ পয়েন্টে পিছিয়ে পড়ল এরিক টেন হাগের দল।

বিপরীতে এই ১ পয়েন্টে এক ধাপ এগিয়ে পাঁচে উঠল টটেনহ্যাম। গত রোববার নিউক্যাসলের মাঠে ৬-১ গোলে ভরাডুবি, সেই ধাক্কায় এক মাসের মধ্যে দ্বিতীয় কোচ ছাঁটাই-সব মিলিয়ে ভীষণ খারাপ সময়ের মধ্যে থাকা টটেনহ্যাম এদিনও শুরুতে গোল খেয়ে বসে। সপ্তম মিনিটে র‌্যাশফোর্ডের পাস ধরে বক্সে ঢুকে দুজনের মধ্যে দিয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে পাঠান স্যানচো। ত্রয়োদশ মিনিটে প্রতিপক্ষের ভুল পাস পেয়ে আক্রমণে উঠে লক্ষ্যে প্রথম শট নেয় টটেনহ্যাম। তবে রিশার্লিসনের দুর্বল শট সহজেই হাতে জমান দাভিদ দে হেয়া। ২৫তম মিনিটে ব্রুনো ফের্নান্দেসের দূর থেকে নেওয়া শট পাঞ্চ করে কর্নারের বিনিময়ে ফেরান স্বাগতিক গোলরক্ষক। ২৮তম মিনিটে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল টটেনহ্যাম।

ইভান পেরিসিচের হেড একেবারে শেষ মুহূর্তে এক হাত দিয়ে আটকান দে হেয়া। ৪৩তম মিনিটে আবারও প্রতিপক্ষ শিবিরে ভীতি ছড়ান পেরিসিচ; তবে ক্রোয়াট মিডফিল্ডারের জোরাল শট দৃঢ়তায় আটকে দেন ইউনাইটেড গোলরক্ষক। পরের মিনিটের পাল্টা আক্রমণে দুর্দান্ত গোলে ব্যবধান বাড়ান র‌্যাশফোর্ড। নিজেদের সীমানা থেকে সতীর্থের উঁচু থ্রু বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বক্সে ঢুকে জোরাল শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড। লিগে দুই ম্যাচ পর আবার জালের দেখা পেলেন র‌্যাশফোর্ড। আসরে তার গোল হলো ১৬টি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে লড়াইয়ে ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে টটেনহ্যাম।

৫৬তম মিনিটে গোলও পেয়ে যায় তারা। গোলমুখে হ্যারি কেইনের প্রচেষ্টা রক্ষণে প্রতিহত হওয়ার পর ফিরতি বল ধরে জোরাল শটে ঠিকানা খুঁজে নেন পেদ্রো পোরো। দুর্ভাগ্য বাধা হয়ে না দাঁড়ালে পরের মিনিটে ফের দুই গোলে এগিয়ে যেতে পারতে ইউনাইটেড। কিন্তু বক্সে একজনকে কাটিয়ে আরও সামনে এগিয়ে গোলরক্ষককে একা পেয়েও অবিশ্বাস্যভাবে ক্রসবারে মারেন ফের্নান্দেস। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠা লড়াইয়ে ৬৬তম মিনিটে আরেকটি দারুণ সুযোগ পায় টটেনহ্যাম। কিন্তু সতীর্থের পাস বক্সে ফাঁকায় পেয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন হিউং-মিন।

৭৯তম মিনিটে আর হতাশ করেননি হিউং-মিন। ডান দিক থেকে কেইনের দারুণ পাস বক্সে বাঁ দিকে ফাঁকায় পেয়ে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন দক্ষিণ কোরিয়ান ফরোয়ার্ড। বাকি সময়ে দুই দলই সমানতালে করতে থাকে আক্রমণ। সুযোগও কিছু আসে, কিন্তু ব্যবধান গড়ে দিতে পারেনি কেউ। ৩১ ম্যাচে ১৮ জয় ও ৬ ড্রয়ে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। পাঁচ নম্বরে উঠে আসা টটেনহ্যামের পয়েন্ট ৫৪, দুটি ম্যাচ বেশি খেলেছে তারা। তাদের সমান ৩৩ ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে অ্যাস্টন ভিলা। ৩৩ ম্যাচেই ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আর্সেনাল। শিরোপা লড়াইয়ের নিয়ন্ত্রণ অবশ্য ম্যানচেস্টার সিটির হাতে; দুই ম্যাচ কম খেলে ২ পয়েন্ট কম নিয়ে আপাতত দুইয়ে আছে তারা। দিনের আরেক ম্যাচে এভারটনকে ৪-১ গোলে হারানো নিউক্যাসল ইউনাইটেড ৩২ ম্যাচে ৬২ পয়েন্ট নিয়ে আছে তিনে।