January 21, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, December 13th, 2021, 7:42 pm

ইউনাইটেড ও অ্যাস্টন ভিলায় করোনার হানা

অনলাইন ডেস্ক :

এবার করোনাভাইরাস হানা দিয়েছে প্রিমিয়ার লিগের আরো দুই ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও অ্যাস্টন ভিলায়। রোববার ব্রিটিশ বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ-সংক্রান্ত খবর প্রকাশিত হয়েছে। বিবিসি সূত্রে জানা গেছে, রোববার ইউনাইটেডের বেশ কিছু খেলোয়াড় ও স্টাফের দেহে করোনার অস্তিত্ব ধরা পড়েছে। এ কারণে মঙ্গলবার ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে ইউনাইটেডের প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এর আগে নরউইচ সিটির বিপক্ষে শনিবার ১-০ গোলে জয়ের ম্যাচটির আগে ইউনাইটেডের সব খেলোয়াড়ই নেগেটিভ হয়েছিলেন। ভাইরাস যাতে আরো ছড়াতে না পারে সে কারণেই অনুশীলনে ভিন্নতা এনে ব্যক্তিগত স্কিলের উপর জোর দেয়া হয়েছে। এদিকে কয়েকজন করোনা আক্রান্ত হওয়ায় অ্যাস্টন ভিলা রবিবারের অনুশীলন সেশন বাতিল করেছে। জানা গেছে, এখনো পর্যন্ত ভিলার একজন খেলোয়াড় আক্রান্ত হলেও বেশ কিছু গ্রাউন্ড স্টাফের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে। এর আগে টটেনহ্যামের ১৩ জন খেলোয়াড় ও স্টাফ করোনা পজিটিভ হওয়ায় ব্রাইটনের বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি বাতিল করা হয়। একই কারণে রেনের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত না হওয়ায় স্পার্সরা ইউরোপা কনফারেন্স লিগ থেকে ছিটকে পড়েছে। লিস্টার সিটিতেও সাতজন খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যেও রোববার নিউক্যাসেলকে লিগ ম্যাচে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে লিস্টার। এদিকে আর্সেনাল ম্যানেজার মিকেল আর্তেতা জানতে চেয়েছেন, একটি দলে কতজন খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ হলে ম্যাচটি বাতিল হতে পারে। আর্তেতার দলের চারজন খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ থাকা সত্তেও আগস্টে ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে লিগের প্রথম ম্যাচে গানার্সদের মাঠে নামতে হয়েছিল। চলতি সপ্তাহে যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট বেড়ে যাওয়ায় জরুরি স্বাস্থ্য প্রোটোকল মানার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ক্রীড়াঙ্গনও এর ব্যতিক্রম নয়। বুধবার থেকে যেকোন ম্যাচ দেখতে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে হলে দর্শকদের অবশ্যই ভ্যাক্সিনেশন কিংবা নেগেটিভ সনদ প্রদান করতে হবে। প্রতি ম্যাচে ১০ হাজারের বেশি মানুষ স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে পারবে না। করোনাভাইরাস প্রথমবার বিশ্বজুড়ে হানা দেবার পর ২০২০/২১ মৌসুমের প্রায় পুরোটাই দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে আয়োজিত হয়েছিল। তবে পরিস্থিতি কিছুটা হলেও স্বাভাবিক হওয়ার পর চলতি মৌসুমের শুরুতে আবারো দর্শক ফিরতে শুরু করে।