October 6, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, August 31st, 2022, 7:45 pm

ইউরোপিয়ান দলবদল: রুইজকে নিয়ে মধ্যমাঠ শক্তিশালী করল পিএসজি

অনলাইন ডেস্ক :

ইউরোপিয়ান ফুটবলের ২০২২/২৩ মৌসুম শুরু হতে এখনো বেশ বাকি। আর এর আগে ক্লাবগুলো নিজেদের গুছিয়ে নিচ্ছে। ইউরোপিয়ান দলবদলের মৌসুমে এবার ইতোমধ্যেই দলগুলো নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী খেলোয়াড় দলে ভিড়িয়ে নিজেদের শক্তিমত্তা বাড়াতে শুরু করেছে।
নাপোলি থেকে রুইজকে উড়িয়ে এনেছে পিএসজি: ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়নরা এবার বড় তারকাদের পেছনে পড়ে থাকার চেয়ে দলের প্রয়োজন মোতাবেক খেলোয়াড়দের বেছে নেওয়া শুরু করেছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার নাপোলি থেকে মিডফিল্ডার ফাবিয়ান রুইজকে দলে ভেড়াল পিএসজি। স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডারের সঙ্গে পাঁচ বছরের চুক্তির বিষয়টি মঙ্গলবার ক্লাবের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে পিএসজি। বিবৃতিতে ট্রান্সফার ফির বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। তবে সংবাদমাধ্যমের খবর, এজন্য তাদের প্রাথমিকভাবে ২১ মিলিয়ন ইউরোর মতো খরচ হয়েছে। ২০১৯ সালে জাতীয় দলে অভিষেকের পর থেকে এ পর্যন্ত ১৫ ম্যাচ খেলেছেন ২৬ বছর বয়সী এই সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার। করেছেন একটি গোল। নাপোলির হয়ে গত মৌসুমটা তার দারুণ কাটে। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে দলটির হয়ে সাত গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে করান পাঁচটি। দলটির সেরি আয় তৃতীয় হওয়ার পথে রাখেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত মোট ৬ খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়েছে পিএসজি। যার মধ্যে আছেন মোট তিন মিডফিল্ডার, দুই ডিফেন্ডার এবং একজন ফরোয়ার্ড। মধ্যমাঠে ফ্যাবিয়ান রুইজের সঙ্গে ভিতিনিহো এবং রেনাতো সানচেজকে দলে নিয়েছে তারা।
লড়াই করে অ্যান্তনিকে দলে ভেড়াল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড: ইউরোপিয়ান দলবদলের মৌসুমের শেষ দিকেই যতসব নাটকীয়তা ধরে রেখেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। প্রথম কার্লোস ক্যাসেমিরোকে আর এরপর আয়াক্স থেকে আরেক ব্রাজিলিয়ান অ্যান্তনিকে দলে ভেড়াল রেড ডেভিলসরা। ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড অ্যান্তনির জন্য উঠে পড়ে লাগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আক্রমণের ডান প্রান্ত সামাল দেওয়ার জন্য অ্যান্তনিকে ইউনাইটেডের চাই-ই চাই। শুরুতেই তার জন্য ৬০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দিয়েছিল ইউনাইটেড। তবে সে প্রস্তাব তৎক্ষণাৎ প্রত্যাখ্যান করে দেয় আয়াক্স। এরপর দ্বিতীয়বারের মতো ৮০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দেয় ইউনাইটেড। তবে এই প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করে আয়াক্স। তারা জানায় অ্যান্তনি বিক্রির জন্য নয়। কোনো প্রস্তাবই গ্রহণ করা হবে না। তবে এরপর মোড় ঘুরে যায় এই দলবদলে। আয়াক্সের স্পোর্টিং ডিরেক্টর ভ্যান ডার সার এই ট্রান্সফারটিতে নিজে হস্তক্ষেপ করবেন বলে জানা যায়। এর একদিন পরেই রেড ডেভিলদের দেওয়া ১০০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব গ্রহণ করে আয়াক্স। দুই পক্ষ ট্রান্সফার ফি নিয়ে একমতে পৌঁছায়। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মেডিকেল সম্পন্ন হবে। ২২ বছর বয়সী এই তরুণ ফরোয়ার্ড এখন যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামী খেলোয়াড় হতে যাচ্ছেন।
অ্যান্তনির জন্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ৯০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাবে আয়াক্সের না: ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড অ্যান্তনির জন্য উঠে পড়ে লেগেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আক্রমণের ডান প্রান্ত সামাল দেওয়ার জন্য অ্যান্তনিকে ইউনাইটেডের চাই-ই চাই। তাকে পেতে বড় অংকের প্রস্তাবও দিয়েছে আয়াক্সকে। তবে কিছুতেই ডাচ চ্যাম্পিয়নদের মন গলাতে পারছে না রেড ডেভিলরা। ব্রিটিশ গণমাধ্যম স্কাই স্পোর্টস জানিয়েছে, ২২ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার অ্যান্তনিকে পেতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ৯০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দিয়েছিল আয়াক্সকে। তবে এমন লোভনীয় প্রস্তাবেও মন গলেনি আয়াক্সের। এর আগে ইউনাইটেডের ৮০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করেছিল তারা। এদিকে আয়াক্স ছাড়তে মরিয়া অ্যান্তনি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, আমি গত ফেব্রুয়ারিতেই ক্লাবকে জানিয়েছিলাম আমি নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে চাই। আমি ক্লাব ছাড়তে চাই। গুঞ্জন শোনা গেছে, ইউনাইটেডে যোগ দিতে মরিয়া অ্যান্তনি। তবে আয়াক্স তাকে কিছুতেই ছাড়তে চাচ্ছে না বলে তিনি অনুশীলনে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন।
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলেন কেভিন ট্র্যাপ: বেশ কয়েক মৌসুম ধরেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রধান গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়ার পারফরম্যান্স গ্রাফ নিম্নমুখী। চলতি মৌসুমের প্রথম তিন ম্যাচে তা স্পষ্টত ফুটে উঠেছে। এবার তাই গোলরক্ষক পজিশনের জন্য বিকল্প ভাবছে রেড ডেভিলরা। ইতোমধ্যেই এঞ্চ্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের জার্মান গোলরক্ষক কেভিন ট্র্যপের জন্য লিখিত প্রস্তাব দেয় তারা। তবে ইউনাইটেডের প্রস্তাব সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছেন এই জার্মান। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, কেভিন ট্র্যাপ এঞ্চ্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টে খুশি আছেন। আর তিনি ইউনাইটেডে যোগদান করতে চান না। এ ব্যাপারে ফ্যাব্রিজিও রোমানো কেভিন ট্র্যাপের বক্তব্য হুবহু তুলে ধরেছেন। ট্র্যাপ বলেন, ‘আমি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পক্ষ থেকে লিখিত প্রস্তাব পেয়েছিলাম। তারা বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্লাব। কিন্তু আমি মঙ্গলবার দুই ক্লাবকেই জানিয়ে দিয়েছে যে আমি এঞ্চ্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টেই থাকছি।’ এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বর্তমানে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের গোলরক্ষক মার্টিন ডুব্রাভকাকে দলে ভেড়াতে চায়।
রিয়াল থেকে ক্যাসেমিরোকে দলে ভেড়াল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড: হঠাতই দল বদলের বাজারে চমক। সদ্যই চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী রিয়াল মাদ্রিদের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় কার্লোস ক্যাসেমিরোকে বাগিয়ে নিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। মাত্র চারদিন আগে ইউনাইটেড ক্যাসেমিরোর জন্য আলোচনা শুরু করে। আর ১৯ আগস্ট চুক্তি সম্পন্নও হয়ে যায়। ইতোমধ্যেই রিয়াল মাদ্রিদ অফিসিয়াল বিবৃতিও দিয়েছে ক্যাসেমিরোর বিদায়ের। রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে দীর্ঘ ৯ বছরের সম্পর্ক শেষ হলো ক্যাসেমিরোর। ৩০ বছর বয়সী এই ফুটবলারের জন্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে গুনতে হচ্ছে ৭২ মিলিয়ন ইউরো (৬০ মিলিয়ন পাউন্ড) এবং সেই সঙ্গে বোনাস হিসেবে ১২ মিলিয়ন ইউরো (১০ মিলিয়ন পাউন্ড)। ব্রাজিলের সাও পাওলো থেকে ২০১৩ সালে রিয়ালে যোগ দেন কাসেমিরো। সময়ের সঙ্গে দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের একজন হয়ে ওঠেন তিনি। ক্লাবের অনেক সাফল্যের সাক্ষী এই মিডফিল্ডার। জিতেছেন পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা, তিনটি লা লিগা। রিয়ালের হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২২২ ম্যাচ খেলে ২৪ গোল করেছেন কাসেমিরো। জানা গেছে ইউনাইটেডের সঙ্গে এই চুক্তিতে চার বছর ওল্ড ট্রাফোর্ডে থাকবেন ক্যাসেমিরো আর এক বছর চুক্তি বৃদ্ধিও করতে পারবেন তিনি। সেখানে ক্যাসেমিরো প্রায় ১৮ মিলিয়নেরও বেশি বেতন পাবেন বছরে। যা রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে প্রায় ৭৫ শতাংশ বেশি। এ ছাড়া চ্যাম্পিয়নস লিগের খেলার টিকিট কাটতে পারলেই বাড়তে পারে তার বেতন।
চেলসি ছেড়ে লাইপজিগে ফিরলেন টিমো ভার্নার: ২০২০ সালে ৪৫ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে আরবি লাইপজিগ থেকে চেলসিতে নাম লেখান জার্মান ফরোয়ার্ড টিমো ভার্নার। সে সময় দারুণ সম্ভাবনা নিয়ে অল ব্লুজদের ডেরায় নাম লেখান তিনি। তবে প্রত্যাশার চাপ সামলাতে পারেননি তিনি। আর ইংলিশ ফুটবলের পাঠ চুকিয়ে আবারও লাইপজিগে ফিরলেন ভার্নার। মঙ্গলবার দুই ক্লাবই পৃথক বিবৃতি দিয়ে নিশ্চিত করেছে এই ফরোয়ার্ডের দল বদলের ব্যাপারটি। ট্রান্সফার ফি নিয়ে কোনো পক্ষ থেকেই কিছু জানানো হয়নি। তবে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে ভার্নারের জন্য ২৫ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ করতে হচ্ছে লাইপজিগকে। ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বেশি ও সেরা সময়টা ভার্নার কাটিয়েছেন লাইপজিগে। ২০১৬-২০ পর্যন্ত সেখানে খেলে ক্লাবটির হয়ে রেকর্ড ৯৫ গোল করেন তিনি। আর চেলসির হয়ে গেল দুই মৌসুমে সময়টা আশানুরূপ না কাটলেও স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটির হয়ে ভার্নার চেলসির হয়ে ২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, উয়েফা সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপ জেতেন।
দুই পক্ষের সমঝোতায় ইন্টার মিলানের সঙ্গে চুক্তির ইতি টানলেন অ্যালিক্সিস সানচেজ: দীর্ঘদিন ধরেই ইন্টার মিলান সময়টা ভালো কাটছিল না অ্যালিক্সিস সানচেজ। ক্যারিয়ারের প্রায় শেষই দেখে ফেলেছিলেন এই চিলিয়ান ফরোয়ার্ড। অবশেষে ইন্টার মিলানের সঙ্গে সব সম্পর্ক চুকিয়ে ফেলেছেন সানচেজ। দুই পক্ষের সমঝোতায় ইটালিয়ান এই ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি শেষ করেছেন তিনি। ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমের খবর, ফ্রান্সের ক্লাব অলিম্পিক মার্শেইতে যোগ দিচ্ছেন ৩৩ বছর বয়সী অভিজ্ঞ এই ফরোয়ার্ড। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ২০১৯ সালে প্রথমে ধারে ইন্টার মিলানে যোগ দেন সানচেজ। এরপর ইউনাইটেড থেকে পাকাপাকিভাবে সানচেজকে নিজেদের করে নেয় ইন্টার। ক্লাবটির হয়ে ১০৯ ম্যাচ খেলে তার গোল মাতে ২০টি। গত মৌসুমে শুরুর একাদশে জায়গা খুব একটা পাননি বলেই চলে। বিদায় বেলায় বিবৃতিতে ক্লাব অবশ্য কৃতজ্ঞতাই জানিয়েছে সানচেসের প্রতি। সানচেজ বলেন, ‘গত তিন মৌসুমের জন্য আলেক্সিসকে আন্তরিকভাবেই ধন্যবাদ জানাচ্ছে ক্লাব, যে সময়ে দলটি জিতেছে তিনটি বড় শিরোপা। তার ভবিষ্যতের জন্যও আমরা শুভ কামনা জানাচ্ছি।’ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আগে সানচেস চার মৌসুমে খেলেন আর্সেনালে, তার আগে তিন মৌসুম খেলেন বার্সেলোনায়। আন্তর্জাতিক ফুটবলের চিলি হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা ও গোলের রেকর্ড সানজেসেরই। ১৭ বছর বয়সে দেশের জার্সিতে অভিষেকের পর এখনও পর্যন্ত ১৬ বছরের ক্যারিয়ারে ১৪৮ ম্যাচ খেলে করেছেন ৪৮ গোল।
ফ্রি এজেন্ট ইস্কো গেলেন সেভিয়াতে: ২০১৩ সালে মালাগা থেকে ৩০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে স্প্যানিশ গোল্ডেন বয় ইস্কো অ্যালার্কনকে দলে ভেড়ায় রিয়াল মাদ্রিদ। এরপর রিয়ালের হয়ে নিজের নাম কামিয়েছেন ইস্কো। জিতেছেন পাঁচ পাঁচটি চ্যাম্পিয়নস লিগ। যেখানে অন্যতম সেরা খেলোয়াড়ও ছিলেন এই স্প্যানিশ। তবে রিয়াল মাদ্রিদ ক্যারিয়ারের শেষ দিকে এসে আর নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি তিনি। বয়স মাত্র ৩০ হলেও নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন তিনি। আর এ কারণেই ইস্কোর সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ আর বৃদ্ধি করেনি রিয়াল। তাতেই ২০২১/২২ মৌসুম শেষে ফ্রি এজেন্টে পরিণত হন ইস্কো। আর ফ্রি এজেন্ট ইস্কোকে দলে ভেড়াতে ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাব আগ্রহ প্রকাশ করলেও শেষ পর্যন্ত তাকে দলে ভিড়িয়েছে সেভিয়া। রোববার নিজেদের অফিসিয়াল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইস্কোকে দলে ভেড়ানোর খবর নিশ্চিত করে সেভিয়া।
বার্সেলোনা ছেড়ে এমএলএস’র এলএ গ্যালাক্সিতে রিকি পুজ: বার্সেলোনার মূল দলে অভিষেক হওয়ার পর আলো কেড়েছিলেন রিকি পুজ। তবে শুরুতে আলো ছড়ালেও পরবর্তীতে আর থিতু হতে পারেননি দলে। বার্সেলোনার একাদশ থেকে জায়গা তো হারিয়েছেনই এবার ক্লাবই ছাড়তে হলো তাকে। বার্সেলোনা ছেড়ে ইউরোপের বড় কোনো ক্লাবে না যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকার লিগের দল লস এঞ্জেলস গ্যালাক্সিতে যোগ দিচ্ছেন স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডার। তবে দুই ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়নি পুজকে ঠিক কত টাকা দিয়ে এলএ গ্যালাক্সি কিনছে। তবে চুক্তি অনুযায়ী ২২ বছর বয়সী খেলোয়াড়কে ফের কিনতে পারবে বার্সেলোনার। আবার অন্য কোনো ক্লাবে তাকে বিক্রি করা হলে ট্রান্সফার ফির ৫০ শতাংশ অর্থ পাবে কাতালান ক্লাবটি। লা মাসিয়াতে বেড়ে ওঠা রিকি পুজ এলএ গ্যালাক্সির সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি করেছেন। ২০২৫ মৌসুমের শেষ পর্যন্ত দলটিতে খেলবেন তিনি। ২০১৮ সালে বার্সেলোনার সিনিয়র দলে অভিষেকের পর থেকে সেখানে সব মিলিয়ে খেলেছেন ৫৭ ম্যাচ, গোল করেছেন দুটি।
লিভারপুলে আরও পাঁচ বছর ডিয়েগো জোটা: ২০২০ সালে উলভস থেকে লিভারপুলে নাম লেখান পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড ডিয়েগো জোটা। এরপর এই দুই বছরে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন জোটা। আর লিভারপুলের আক্রমণের গুরুত্বপূর্ণ অংশও হয়ে উঠেছেন তিনি। এবার অল রেডদের সঙ্গে পাঁচ বছর চুক্তির মেয়াদ বাড়ালেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, ২০২৭ সাল পর্যন্ত অ্যানফিল্ডের ক্লাবটিতে থাকবেন এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। ক্লাবের পক্ষ থেকে ২ আগস্ট এক বিবৃতিতে দীর্ঘ মেয়াদে জোটার চুক্তি নবায়নের ব্যাপারটি নিশ্চিত করা হয়। ক্লাব যদিও চুক্তির মেয়াদের কথা নির্দিষ্ট করে উল্লেখ করেনি। গত মৌসুমে লিভারপুলের এফএ কাপ ও লিগ কাপ জয়ে বড় অবদান ছিল জোটার। প্রিমিয়ার লিগেও দারুণ খেলে লিভারপুল। চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটির চেয়ে মাত্র ১ পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে লিগ শেষ করেছিল তারা। আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে হেরেছিল রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে দলটির হয়ে এখন পর্যন্ত ৮৫ ম্যাচে তিনি গোল করেছেন ৩৪টি। আগামী শনিবার ফুলহ্যামের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে প্রিমিয়ার লিগ অভিযান শুরু করবে লিভারপুল। এই ম্যাচেও জোটার খেলার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। তিনি এখন হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে ভুগছেন।
সেভিয়া থেকে জুলেস কুন্দেকে দলে ভেড়াচ্ছে বার্সেলোনা: ২০২২/২৩ মৌসুমের দলবদলের সময়ে ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোর ভেতর সবচেয়ে ব্যস্ত সময় পার করেছে বার্সেলোনা। নিজেদের অর্থনৈতিক সমস্যার ভেতরেও বড় অংকের অর্থ খরচ করে বেশ কয়েকটি খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়েছে কাতালান ক্লাবটি। এই তালিকায় সর্বশেষ নাম হিসেবে যুক্ত হয়েছেন সেভিয়ার ফ্রেন্স ডিফেন্ডার জুলেস কুন্দে। এবারের মৌসুমে বার্সেলোনা মাঠের বাইরে সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে ইংলিশ ক্লাব চেলসির বিপক্ষে। চেলসির মুখ থেকে ইতোমধ্যেই রাফিনহাকে কেড়ে নিজেদের ডেরায় ভিড়িয়েছে বার্সেলোনা। এ ছাড়া চেলসি থেকে ফ্রি এজেন্ট খেলোয়াড় আন্দ্রেস ক্রিস্টিয়ানসেনকে দলে ভেড়ায় বার্সা। এরপর উসমান দেম্বেলের সঙ্গে বার বার আলোচনা করেও শেষ পর্যন্ত তাকে দলে ভেড়াতে পারেনি চেলসি। সেই তালিকায় নতুন পালক যুক্ত হলো জুলেস কুন্দে। গেল মৌসুম থেকেই রক্ষণভাগে কুন্দেকে দলে ভেড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল চেলসি। নতুন মৌসুমেও সেভিয়ার সঙ্গে বেশ কয়েক দফা আলোচনার টেবিলে বসেছিল চেলসি তবে শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনার সঙ্গে পেরে ওঠেনি লন্ডনের ক্লাবটি। বার্সেলোনাতেই নাম লেখাচ্ছেন জুলেস কুন্দে। এমনটাই জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএন এবং ইটালিয়ান তারকা সাংবাদিক ফ্যাব্রিজিও রোমানো। বুধবার (৩১ আগষ্ট) টুইটারে এক ক্ষুদে বার্তায় রোমানো জানিয়েছেন, জুলেস কুন্দেকে নিয়ে সেভিয়ার সঙ্গে একমতে পৌঁছেছে বার্সেলোনা। বার্সার সঙ্গে ব্যক্তিগত চুক্তিতে একমত হয়েছেন কুন্দে। এখন বাকি কেবল চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করা। কুন্দের জন্য নগদ ৫৫ মিলিয়ন ইউরো গুনতে হচ্ছে বার্সেলোনাকে।
লুইস সুয়ারেজ ফিরছেন উরুগুয়েতে: বার্সেলোনা ছেড়ে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে পাড়ি জমানোর পর দুই মৌসুম কাটিয়েছেন সেখানে। জিতেছেন একটি লা লিগাও। এবার অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গেও চুক্তি শেষ লুইস সুয়ারেজের আর চুক্তি শেষে ফ্রি এজেন্ট হিসেবে ফিরছেন নিজের শৈশবের ক্লাব ন্যাসিওনালে। উরুগুয়ের ক্লাব ন্যাসিওনালের সঙ্গে প্রাথমিক চুক্তিতে পৌঁছেছেন সুয়ারেজ। সুয়ারেজ এবং ন্যাসিওনালের মধ্যকার চুক্তির ব্যাপারটি ক্লাবের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টেই প্রকাশিত হয়েছে। এ ছাড়া সুয়ারেজ নিজেও তা জানিয়েছেন। সুয়ারেজ বলেন, ‘আমি ন্যাসিওনালের সঙ্গে প্রাথমিক চুক্তিতে পৌঁছেছি। ন্যাসিওনালে ফেরার প্রস্তাবে না বলা আমার জন্য অসম্ভব ছিল। আমি আশা করছি খুব দ্রুতই এই চুক্তি সম্পন্ন হবে।’ ফ্রি এজেন্ট হিসেবে বিভিন্ন ক্লাবের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েছেন সুয়ারেজ। তবে তিনি ক্যারিয়ারের শেষ সময়ে এসে নিজের শৈশবের ক্লাবে ফিরে যাওয়াটা সঠিক মনে করেছেন। ২০০৫/০৬ মৌসুমে ন্যাসিওনালের হয়ে খেলেছিলেন সুয়ারেজ। সেবার ২৭ ম্যাচে ১০ গোলও করেছিলেন তিনি।
লিভারপুলের ফিরমিনোকে দলে চায় জুভেন্টাস: টানা ৯ মৌসুম ইটালিয়ান সিরি আ জয়ের পর দুই মৌসুম শিরোপা হাতছাড়া। দলও তাই এবার ঢেলে সাজাতে হচ্ছে জুভেন্টাসকে। দলের অন্যতম সেরা তারকা পাওলো দিবালা ইতোমধ্যেই রোমাতে যোগ দিয়েছেন। তাই তো আক্রমণভাগকে নতুন করে সাজাতে হচ্ছে জুভেদের। এবার আক্রমণভাগে শক্তি বাড়াতে লিভারপুল থেকে রবার্তো ফিরমিনোকে দলে ভেড়ানোর আশা প্রকাশ করেছে তুরিনের বুড়িরা। জুভেন্টাসের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনোর জন্য ইতোমধ্যে প্রস্তাবও দিয়েছে জুভেন্টাস। ইটালিয়ান সংবাদমাধ্যম তুত্তোমার্কেতোর সংবাদ অনুযায়ী, ৩০ বছর বয়সী এ ব্রাজিলিয়ানের জন্য ২৩ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দিয়েছে ক্লাবটি। এদিকে আরেক ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য মিররের সংবাদ অনুযায়ী, জুভেন্টাসের নজরে আছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফরাসি ফরোয়ার্ড অ্যান্থনি মার্শিয়ালও।
বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন দেম্বেলের: বার্সেলোনার সঙ্গে চলতি বছরের জুনেই শেষ হয়েছিল ওসমান দেম্বেলের চুক্তি। ২০১৭ সালে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড থেকে বার্সেলোনায় নাম লেখান দেম্বেলে। এরপর নিজের প্রতিভা তেমন মেলে ধরতে পারেননি এই ফরাসি ফরোয়ার্ড। শোনা যাচ্ছিল বার্সেলোনার সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় ফ্রি এজেন্ট হিসেবে ক্লাব ছাড়ছেন তিনি। তবে সে শঙ্কা কেটে গেছে। বার্সার সঙ্গে নতুন চুক্তিতে একমত হয়েছেন তিনি। কাতালান ক্লাবটির সঙ্গে নতুন করে দুই বছরের চুক্তি নবায়ন করেছেন তিনি। ১৪ জুলাই এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দেম্বেলের চুক্তি নবায়নের ব্যাপারটি নিশ্চিত করে বার্সেলোনা। নতুন চুক্তিতে দেম্বেলে ২০২৪ সাল পর্যন্ত থাকবেন বার্সাতে।
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে চেলসিতে রহিম স্টার্লিং: চেলসিকে স্বর্ণযুগ এনে দেওয়া রোমান আব্রাহামোভিচের আধিপত্যের ইতি ঘটেছে কিছুদিন আগেই। এবার স্টামফোর্ড ব্রিজের মালিকানায় টড বোয়েলি। তার অধীনে নতুন করে স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছে অল ব্লুজরা। নতুন এই যাত্রায় চেলসির নতুন যুগের প্রথম সেনানি রহিম স্টার্লিং। ম্যানচেস্টার সিটি থেকে ৫০ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে ইংলিশ এই ফরোয়ার্ডকে দলে ভেড়াল চেলসি। ১৩ জুলাই এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্টার্লিংকে দলে ভেড়ানোর খবর নিশ্চিত করে চেলসি। ইউরোপিয়ান দল বদলের মৌসুম শুরু হতেই রোমেলু লুকাকুকে বিদায় জানিয়েছে চেলসি। সেই সঙ্গে দলের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পারেননি প্রতিভাবান ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচ এবং হাকিম জিয়াশের মতো ফরোয়ার্ডও। তাই তো দলবদলের মৌসুমে এবার বেশ সক্রিয় চেলসি। নতুন আক্রমণভাগের অন্যতম প্রধান অস্ত্র হয়েই ম্যানচেস্টার সিটি থেকে চেলসিতে আসলেন লিভারপুলের সাবেক ফরোয়ার্ড স্টার্লিং।
লিডস থেকে বার্সেলোনায় রাফিনহা: আক্রমণের ধার বাড়াতে গেল মৌসুম থেকেই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রাফিনহার ওপর নজর ছিল বার্সেলোনার। তবে ইউরোপিয়ান দল বদলের মৌসুম শুরুর পর তাকে দলে ভেড়ানোর দৌড়ে পিছিয়েই ছিল কাতালান ক্লাবটি। বার্সেলোনার চেয়ে এই দৌড়ে বেশ এগিয়েই ছিল চেলসি এবং আর্সেনাল। লিডস ইউনাইটেডের সঙ্গে কথাবার্তা পাকা করে ফেলেছিল চেলসি। দেরিতে হলেও রাফিনহার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করে বার্সেলোনা। আর সেখান থেকেই এই দৌড়ে ছিটকে যায় চেলসি। আর শেষ পর্যন্ত দৌড়ে জয়ী হয় বার্সায়। বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে রাফিনহার সঙ্গে চুক্তির বিষয়টি ঘোষণা করে ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বার্সেলোনা জানিয়েছে, ‘রাফায়েল দিয়াস বেলোলি, রাফিনহাকে স্থানান্তরের জন্য শারীরিক পরীক্ষা পর্যন্ত বার্সেলোনা এবং লিডস ইউনাইটেড নীতিগতভাবে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে।’ ২৫ বছর বয়সী এ তারকার সঙ্গে পাঁচ বছরের চুক্তি করেছে ক্লাবটি। ফলে আগামী ২০২৭ সাল পর্যন্ত ন্যু ক্যাম্পেই থাকছেন তিনি। এ তারকাকে পেতে ৫৫ মিলিয়ন ইউরো খরচ হচ্ছে বার্সেলোনার। এর সঙ্গে অবশ্য আরও বাড়তি বোনাস রয়েছে। জানা গেছে, সবমিলিয়ে খরচের পরিমাণটা ৭২ মিলিয়ন ইউরো।
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেড়ে আবারও জুভেন্টাসে পগবা: ২০১২ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ফ্রি ট্রান্সফারে জুভেন্টাসে পাড়ি জমিয়েছিলেন পল পগবা। এরপর ২০১৬ সালে রেকর্ড পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে আবারও তাকে দলে ভেড়ায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তবে ৬ মৌসুম পরে ৮৯ মিলিয়ন পাউন্ডের পগবাকে আবারও ফ্রি ট্রান্সফারেই জুভেন্টাসের কাছে ছেড়ে দিতে হয়েছে ইউনাইটেডের। জুভেন্টাসের সঙ্গে এবারও চার বছরের চুক্তি করেছেন পগবা। ২৯ বছর বয়সী ফুটবলার এখানে থাকবেন ২০২৬ সালের জুন পর্যন্ত। চুক্তির মেয়াদ শেষে পগবা যে ইউনাইটেড ছাড়বেন, তা ২০২১-২২ মৌসুম চলাকালীনই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। আর তিনি যে আবারও জুভেন্টাসেই ফিরতে যাচ্ছেন, সেটাও প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায় তিন দিন আগে। এরপর মেডিকেল ও আনুষ্ঠানিকতা সারার পর সোমবার ইটালিয়ান ক্লাবটির পক্ষ থেকে পগবার চুক্তির বিষয়ে ঘোষণা দেওয়া হলো। ২০১২ সালে ফ্রি ট্রান্সফারে জুভেন্টাসে নাম লেখানোর পর দুর্দান্ত পারফর্ম করতে শুরু করেন পগবা। জুভের হয়ে ৪ মৌসুমে নিজে ৩৪ গোল করেন আর সতীর্থদের দিয়ে করান আরও ৩২টি গোল। চার মৌসুমেই সিরি আ জয়ের পাশাপাশি স্বাদ পেয়েছিলেন আরও কয়েকটি শিরোপার। এরপরেই তাকে ফেরাতে মরিয়া হয়ে ওঠে রেড ডেভিলরা। ২০১৬ সালে ৮৯ মিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফার ফিতে ইউনাইটেডে ফিরেছিলেন বিশ্বকাপ জয়ী মিডফিল্ডার। তবে ইউনাইটেডে ফেরাটা তার সুখকর হয়নি মোটেই। রেড ডেভিলদের হয়ে প্রথম দিকে দারুণ পারফর্ম করতে থাকেন পগবা। হোসে মোরিনহোর অধীনে এফএ কাপ ও ইউরোপা লিগ জিতলেও এরপর ছন্দ পতন পগবার। য পারফরম্যান্স দেখে তাকে দলে এনেছিল ইউনাইটেড তার ছিটেফোঁটাও দেখাতে ব্যর্থ হন তিনি। অবশেষে রেড ডেভিলরা তাকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।
ফেইনুর্ড থেকে মালাসিয়াকে উড়িয়ে আনল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড: রক্ষণে শক্তি বাড়িয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। নেদারল্যান্ডসের তরুণ লেফট ব্যাক তাইরেল মালাসিয়াকে দলে নিয়েছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটি। ইউনাইটেড মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানায়, মালাসিয়ার সঙ্গে চুক্তি ২০২৬ সাল পর্যন্ত। এতে মেয়াদ আরও এক বছর বাড়ানোর সুযোগ রাখা হয়েছে। ডাচ ক্লাব ফেইনুর্ড থেকে আসা এই ডিফেন্ডারের ট্রান্সফার ফি নিয়ে কিছু বলেনি ইউনাইটেড। ব্রিটিশ গণমাধ্যমের খবর, প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ পাউন্ডে ২২ বছর বয়সী মালাসিয়ার সঙ্গে চুক্তি করেছে তারা। সঙ্গে যোগ হতে পারে ১৭ লাখ পাউন্ড। ফেইনুর্ড একাডেমিতে বেড়ে ওঠা মালাসিয়া দলটির হয়ে ২০২১-২২ মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলে ৫০ ম্যাচ খেলেছেন। এখন পর্যন্ত নেদারল্যান্ডসের হয়ে খেলেছেন পাঁচ ম্যাচে। এরিক টেন হাগের ইউনাইটেডের শুরুর একাদশে জায়গা করে নিতে হলে মালাসিয়াকে লড়াই করতে হবে লুক শ ও অ্যালেক্স তেলেসের সঙ্গে। গত মৌসুম একদম ভালো কাটেনি ইউনাইটেডের। ষষ্ঠ স্থানে থেকে প্রিমিয়ার লিগ শেষ করায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা করে নিতে ব্যর্থ হয়েছে। আগামী ৭ অগাস্ট ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়নের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে নতুন মৌসুম শুরু করবে দলটি।
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়তে চান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো: জুভেন্টাস ছেড়ে পুরনো ঠিকানা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ২০২১/২২ মৌসুমের শুরুতে নাম লিখিয়েছিলেন। প্রিমিয়ার লিগে ৩০ ম্যাচে ১৮ গোল করে ইউনাইটেডের সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনিই। তবে দলগতভাবে ভালো করতে পারেনি রেড ডেভিলরা। এতেই গেল মৌসুমে ছয়ে থেকে শেষ করেছে লিগ। আর হারিয়েছে চ্যাম্পিয়নস লিগের জায়গটিও। তবে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার জন্য মরিয়া রোনালদো এবার ইউনাইটেড ছাড়ার কথা ভাবছেন বলে জানিয়েছে ইংলিশ সংবাদমাধ্যমগুলো। জানা গেছে রোনালদোকে দলে ভেড়ানোর ইচ্ছে প্রকাশ করেছে চেলসির নতুন আমেরিকান মালিক। এই নিয়ে চেলসির মালিকের সঙ্গে বৈঠকও করেছে রোনালদোর এজেন্ট জর্জ মেন্ডেস। চেলসি ছাড়াও বায়ার্ন মিউনিখও রোনালদোর প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছে ইংলিশ সংবাদমাধ্যমগুলো।
এভারটন থেকে টটেনহাম হটস্পার্সে রিচার্লিসন: ২০২১/২২ মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সেরা চারে জায়গা দখল করে নেয় টটেনহাম হটস্পার্স। এরপরেই পরবর্তী মৌসুম অর্থাৎ ২০২২/২৩ মৌসুমের জন্য দল গোছাতে শুরু করে স্পার্স। এবার আক্রমণভাগের শক্তি বাড়াতে এভারটন থেকে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রিচার্সিলনকে উড়িয়ে আনছে। বর্তমান কোচ অ্যান্তোনিও কন্তের চাহিদা পূরণের জন্য রিচার্লিসনকে এভারটন থেকে আনার চুক্তিতে দুই ক্লাব একমতে পৌঁছেছে। রিচার্লিসনের জন্য ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড গুনতে হচ্ছে এভারটনকে। সেই সঙ্গে আরও অতিরিক্ত ১০ মিলিয়ন পাউন্ড পাওয়ার সম্ভবনা থাকছে এভারটনের। তবে সেটা নানান শর্ত পূরণের পরেই এই অর্থ পেতে পারে এভারটন। মার্সিসাইডের ক্লাবটির হয়ে রিচার্লিসন ১৫২ ম্যাচে ৫৩টি গোল করেছেন। ২৯ জুন রিচার্লিসনের সঙ্গে ব্যক্তিগত চুক্তিতে একমত হয়েছে এভারটন। সেই সঙ্গে বার্সেলোনা থেকে ফ্রান্সের ডিফেন্ডার ক্লেমেন্ট লেংলেকেও দলে ভেড়ানোর চেষ্টা করছে টটেনহাম।
চেলসি থেকে ইন্টার মিলানে লুকাকু: ইন্টার মিলান থেকে চেলসির রেকর্ড পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে ফিরিয়েছিলেন রোমেলু লুকাকুকে। তবে মৌসুমের মাঝপথেই ক্লাবের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে হারান একাদশের জায়গা। এরপর থেকে মৌসুমের বেশিরভাগ সময়ই কাটিয়েছেন বেঞ্চে। এবার ইউরোপিয়ান দলবদলের মৌসুম শুরু হতে না হতেই আবারও ইন্টার মিলানে ফিরলেন বেলজিয়ান স্ট্রাইকার রোমেলু লুকাকু। এক মৌসুমের জন্য লুকাকুকে ধারে দলে ভেড়াতে ইন্টার মিলানকে গুনতে হচ্ছে প্রায় ৬.৯ মিলিয়ন পাউন্ড বা ৮ মিলিয়ন ইউরো।