November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, October 12th, 2022, 8:39 pm

ইডেনের রিভা-রাজিয়া বিরোধী গ্রুপের ৭ জনকে হয়রানি না করার নির্দেশ

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় স্থগিত কমিটির করা মামলায় রিভা-রাজিয়া বিরোধী গ্রুপের সাতজনকে পুলিশি হয়রানি না করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে তাদেরকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. রেজাউল করিম বলেন, এই মামলার আসামিদের গ্রেপ্তার না করার জন্য বলা হয়েছে। আর ৬ সপ্তাহের মধ্যে তাদেরকে আত্মসমর্পণ করার জন্য বলে ‘নট টু অ্যারেস্ট নট টু হ্যারাজ’ (হয়রানি ও গ্রেপ্তার) না করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। জামিন প্রাপ্তরা হলেন- রূপা রানী দত্ত, শেখ সানজিদা, মারিয়া, শারমিন আক্তার, মনিকা তালুকদার, মায়েদা বেগম ও তানজিলা আক্তার। আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জামিন আবেদনকারীদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মেজবা উদ্দীন শরীফ। বুধবার (১২ অক্টোবর) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. সেলিম ও বিচারপতি মো. জাকির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট মেজবা উদ্দীন শরীফ।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন আইনজীবী ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. রেজাউল করিম। এর আগে ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা করে রিভা-রাজিয়া গ্রুপ। তাদের অনুসারী ইডেন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিতু আক্তার বাদী হয়ে লালবাগ থানায় এ মামলা করেন। মামলায় আসামি করা হয় জেবুন্নাহার শিলা, সামিয়া আক্তার বৈশাখী, মারজানা আক্তার উর্মি, কল্পনা বেগম, সোনালী আক্তার, সুস্মিতা বাড়ৈ, আফরোজা রশ্মি, রূপা রানী দত্ত, ফাতেমা খানম বিন্তি, সাদিয়া জাহান সাথী, সানজিদা পারভিন চৌধুরী, শেখ সানজিদা, এস এম মিলি, মারিয়া, শারমিন, জান্নাতুল ফেরদৌস, মনিকা তনচংগ্যা মিমি, মায়েদা বেগম মায়া, তানজিলা আক্তারসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরও চার-পাঁচজনকে।

আসামিদের বেশিরভাগই ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগ থেকে সদ্য বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি ও সহ-সম্পাদক। তারা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরোধী গ্রুপ হিসেবে পরিচিত। এর আগে ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসী। ওই মামলায় প্রথমে ৯ জন এবং পরে ১৪ জন জামিন নিয়েছেন হাইকোর্ট থেকে। গত ৪ অক্টোবর ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় করা মামলায় স্থগিত কমিটির সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাসহ ১৪ জনকে ছয় সপ্তাহের আগাম জামিন দেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

জামিন পাওয়া অন্যরা হলেন- কামরুন্নাহার জ্যোতি, জিন্নাত জাহান লিমা, বিজলি আক্তার, সোমা মল্লিক, শাহানা রহমান, শিরিন সুমি, ফারজানা নীলা, রিতু আক্তার, মিম ইসলাম, নুজহাত ফারিয়া রোকসানা, নূরজাহান ও আনিকা তাবাসসুম স্বর্ণা। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এস এম আবুল হোসেন। গত ২৫ সেপ্টেম্বর ইডেন কলেজ ক্যাম্পাসে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়ার সমর্থকদের সঙ্গে কয়েকজন সহ-সভাপতির সমর্থকদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। এ সময় ১০ জন হন আহত। সেই রাতে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত করে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সংসদ। একই সঙ্গে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য ১৬ জনকে বহিষ্কার করা হয়। পরে ২৮ সেপ্টেম্বর ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসী ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মোস্তফা রেজা নুরের আদালতে মামলার আবেদন করেন। আদালত সেটি আমলে নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন। মামলার আসামিরা হলেন- ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা, রাজিয়া সুলতানা, নুঝাত ফারিয়া রোকসানা, মিম ইসলাম, নূর জাহান, ঋতু আক্তার, আনিকা তাবাসসুম স্বর্ণা ও কামরুন নাহার জ্যোতি। দুদিন পর লালবাগ থানায় অন্য গ্রুপ আরেকটি মামলা করে। এদিকে, ২৮ সেপ্টেম্বর রাতে লালবাগ থানায় মামলা করেন ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিতু আক্তার। তিনি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

এ মামলায় ৩ অক্টোবর নয়জনের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। ছয় সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়ে তাদের বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জামিনপ্রাপ্তরা হলেন- ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি জেবুন নাহার শিলা, মারজান আক্তার উর্মি, কল্পনা বেগম, সোনালী আক্তার, সুস্মিতা বাড়ৈ, সাদিয়া জাহান সাথী ও জান্নাতুল ফেরদৌস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফাতেমা খানম বিন্তি ও সাংগঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখী। জানা গেছে, ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় দুটি মামলা হয়েছে।

একটি কোর্টে, একটি থানায়। তবে দুই মামলার তদন্তই লালবাগ থানা পুলিশ করছে। বেআইনিভাবে মারপিট, হত্যা চেষ্টা, চুরি, ক্ষতি করা ও হুমকির অভিযোগে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৩, ৩২৩, ৩০৭, ৩৭৯, ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় মামলা করেন রিতু। ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সিট বাণিজ্যসহ নানান বিষয়ে গণমাধ্যমে কথা বলায় ছাত্রলীগনেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসীকে ২৪ সেপ্টেম্বর রাতে তার হলের কক্ষ থেকে টেনেহিঁচড়ে বের করে নেন কলেজ ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। পরে সভাপতি তামান্না ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার সামনে তাদের নির্যাতন করা হয়।