June 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, April 25th, 2023, 7:26 pm

ঈদের কোন ছবিটি কেমন যাচ্ছে?

অনলাইন ডেস্ক :

ঈদের প্রথম দিনেই আশার আলো ফুটেছে প্রেক্ষাগৃহগুলোতে। ঢাকা তো বটেই, প্রায় গোটা দেশ থেকে খবর মিলছে স্বস্তির। ঈদের দিন হাউজফুলের খবর নিশ্চিত না হওয়া গেলেও বেশিরভাগ হলই পঞ্চাশ ভাগের বেশি দর্শক পেয়েছে। তাতেই হল কর্তৃপক্ষ খুশি। প্রত্যেকেই আশা করছেন, দুই চার দিনের মধ্যে দর্শক সমাগম শতভাগ হবে। প্রথম দিনে সেই আভাসই মিলেছে। তার আগে জেনে নেওয়া যাক ঈদের ছবিগুলোর নাম-পরিচয়। মূলত হল সংখ্যায় এবার শাসন করছে শাকিব খানের ‘লিডার’।

উৎসবের বাইরে দেশে টিকে থাকা হলের সংখ্যা ৬০ প্লাস হলেও, এই ঈদে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে একশ হলে! বিশেষ করে দেশের প্রায় সব ভালো ও বড় হল দখলে নিয়েছে ‘লিডার’। ফলে প্রথম দিন থেকেই ছবিটিকে ঘিরে হল মালিকদের পক্ষ থেকে পজিটিভ সাড়া মিলছে। এছাড়াও মুক্তি পেয়েছে বাপ্পী চৌধুরীর ‘শত্রু’, অনন্ত জলিলের ‘কিল হিম’, বুবলীর ‘লোকাল’, অপু বিশ্বাসের ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’, পূজার ‘জ্বীন’, রোশানের ‘পাপ’ ও ইয়াশের ‘আদম’। ঈদের প্রথম দিনে মাল্টিপ্লেক্সগুলোতে ভালো সাড়া মিলেছে ‘লিডার’, ‘জ্বীন’, ‘কিল হিম’, ‘লোকাল’ ও ‘আদম’ ছবিটির পক্ষে। অন্যদিকে সিঙ্গেল স্ক্রিনে সাড়া মিলছে ‘লিডার’ ও ‘শত্রু’র। রাজধানীর আজাদ, গীত, মধুমিতা, স্টার সিনেপ্লেক্স, লায়ন্স, শ্যামলী, সৈনিক ক্লাব, বগুড়ার মধুবন, নারায়ণগঞ্জের নিউ মেট্রো, সিনেস্কোপ ও গুলশান সিনেমা হল, কেরানীগঞ্জের নিউ গুলশান, জয়পুর হাটের নাজমা- এসব হলের সঙ্গে কথা বলে মিলেছে সন্তুষ্টির খবর। এরমধ্যে দেশজুড়েই এগিয়ে আছে শাকিব খান-বুবলী জুটির ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমাটি।

এরপরই নাম চলে এসেছে বাপ্পী-মিতুর ‘শত্রু’র। বাকি সিনেমাগুলো মাল্টিপ্লেক্সে চলছে ভালোই। রাজধানীর অন্যতম ঐতিহ্যবাহী হল মধুমিতায় ঈদের দিন দেখা গেছে শাকিব-বুবলীর ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ চলছে। সেখানে দুপুর ও বিকালের শো যেমন তেমন, সন্ধ্যার শোতে ডিসি হাউজফুল গেছে। হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ দেশের সিনেমা নিয়ে বরাবরই নাখোশ থাকেন। কারণ, তার দাবি বিদেশি ছবি আমদানির! তবে ঈদের দিন তার মুখে ছিল হাসি।

তিনি বলেন, ‘প্রথম শোতে প্রায় ১৩-১৪ হাজার সেল হয়েছে। আগে তো ৫-৬ হাজারও হতো না।’ নওশাদের আশা, এই টিকিট সেল ক্রমশ বাড়বে চলতি সপ্তাহে। তার ভাষায়, ‘এখন বেশিরভাগ দর্শক ঈদের ছুটিতে গ্রামে গেছে। তারা ঢাকায় ফিরলে আরও দর্শক বাড়বে।’ ঈদে মুক্তি পাওয়া ৮টি ছবির মধ্যে ৬টিই চালাচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স। প্রথম দিনের সিনেমাগুলোর টিকিট বিক্রিতে স্বস্তিবোধ করলেন মিডিয়া অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার মেসবাহউদ্দিন আহমেদ। দিলেন ব্যতিক্রম তথ্য। বলেন, ‘‘আমাদের এখানে ‘জ্বীন’ সিনেমার প্রতিটি শো সব শাখায় প্রায় হাউজফুল। এ ছাড়া ‘লিডার’ আর ‘কিল হিম’র অবস্থায় বেশ ভালো। ‘আদম’ ও ‘লোকাল’ সিনেমা দুটিও প্রথম দিন খারাপ যায়নি।

আগামী দুই একদিনের মধ্যে দর্শক চাপ আরও বাড়বে বলে আমরা অনুভব করছি। কারণ, সবগুলো ছবিরই অগ্রিম টিকিট সংগ্রহের আগ্রহ পাচ্ছি দর্শকদের কাছ থেকে।’’ এই কর্মকর্তার অভিমত, দীর্ঘদিন পর একসঙ্গে বাংলাদেশে অনেক ভালো সিনেমা মুক্তি পেলো। যার ফলে দর্শকরা হলে এসে নিজের পছন্দসই সিনেমা দেখার সুযোগ পাচ্ছে। মাল্টিপ্লেক্সের কাছে দর্শকরা তেমনটাই প্রত্যাশা করে। কেরানীগঞ্জের নিউ গুলশান সিনেপ্লেক্সে চলছে বাপ্পী চৌধুরী-জাহারা মিতুর ‘শত্রু’। জানা গেছে, এই সিনেমার প্রথম শোতে ৯৫ জন, দ্বিতীয় শোতে ৮৩ জন এবং তৃতীয় শোতে ১৩৪ জন দর্শক ছিল। হলের কর্ণধার আমির হামজা বলেন, ‘প্রথম দিনের সেল রিপোর্টে আমি হতাশ নই। বরং আশাবাদী। কারণ, আমাদের এলাকায় শ্রমিকের সংখ্যা বেশি। এখন তো ৯৫% শ্রমিক ঈদের ছুটিতে বাড়ি গেছেন। দুই একদিনের মধ্যে তারা ফিরবে এবং এই সেল কয়েকগুণ বাড়বে বলেই আমার বিশ্বাস। তাছাড়া ছবিটিও বেশ অ্যাকশনে ভরপুর, এমন ছবিই দর্শকরা চায়।’

এদিকে পুরান ঢাকার মাল্টিপ্লেক্স লায়ন্স সিনেমাসে মুক্তিপ্রাপ্ত ৮টি সিনেমার ৭টি চলছে। এরমধ্যে ‘লিডার’ ও ‘কিল হিম’ রোজ ৪টি, ‘লোকাল’, ‘জ্বীন’, ‘পাপ’ ২টি, ‘শত্রু’ ও ‘আদম’ ছবির ১টি করে শো চলছে। সেখানে রোশানের ‘পাপ’ সিনেমার প্রথম শো ছিল দর্শকশূন্য! একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ‘জ্বীন’ ছবিটি আবার ভালো দর্শক পেয়েছে। মোটামুটি দর্শক পেয়েছে ‘লিডার’ ও ‘কিল হিম’ ছবি দুটিও। এদিকে ঢাকার অদূরে নারায়ণগঞ্জে সরেজমিন দেখা গেছে, ঈদের দিন থেকে শাকিব খান-বুবলীর ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ চলছে খানপুর এলাকার নিউ মেট্রো সিনেমা হল। সজল-পূজার ‘জ্বীন’ চলছে ডিআইটি এলাকার সিনেস্কোপ এবং বাপ্পী-মিতুর ‘শত্রু’ চলছে গুলশান সিনেমা হলে। জেলার একমাত্র আধুনিক প্রেক্ষাগৃহ সিনেস্কোপের নির্বাহী পরিচালক মো. রবি বলেন, ‘‘এবার ঈদে সজল-পূজা চেরীর ‘জ্বীন’ সিনেমাটি মুক্তি দিয়েছি। প্রথম দিনে আশানুরূপ সাড়া মিলেছে। সিনেমার আগাম অনেক টিকিট বিক্রি হয়েছে। সামনে দর্শক সমাগম আরও বাড়বে বলে আশা করছি।’’ এদিকে শাকিব খান-বুবলীর ‘লিডার’ সিনেমা চালানো নিউ মেট্রো সিনেমা হলের কর্মকর্তা মো. রবি মিয়া বলেন, ‘প্রথম দিনে ভালো সাড়া পেয়েছি আমরা।

আশা করছি দর্শকদের খুব ভালো লাগবে ছবিটি। পুরো রমজানের এক মাস সিনেমা হল বন্ধ থাকার পর ঈদ উপলক্ষে আবারও আমরা সরব হলাম। এটাই বড় আনন্দ।’ জয়পুরহাটের নাজমা হল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ করেও মিলেছে সন্তুষ্টির আভাস। সেখানে চলছে ‘শত্রু’। তারা জানায়, প্রথম দিনে ১২টার শো ৫০ ভাগ, ৩টার শো ৬০ ভাগ এবং ৬টার শো ৭৫ ভাগ টিকিট বিক্রি হয়েছে। এতেই হল কর্তৃপক্ষ মহাখুশি। কারণ, গেলো কয়েক বছর ঈদের প্রথম দিনে এতটা সেল হয়নি। বগুড়ার মধুবন সিনেপ্লেক্সে চলছে ‘কিল হিম’। এই সিনেপ্লেক্সের কর্মকর্তা লিটন জানান, প্রথম দিনে তারা যে দর্শক পেয়েছেন তাতে মোটামুটি সন্তুষ্ট। অন্যদিকে গাইবান্ধার রুমা সিনেমা হলে চলছে ‘লিডার’।

যেখানে প্রথম দিনের তিনটি শোতেই ছিল উপচে পড়া ভিড়। জাজের দুই ছবি ‘জ¦ীন’ ও ‘পাপ’ চলছে গ্র্যান্ড সিলেট সিনেপ্লেক্সে। কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রথম দিনে তারা আশানুরূপ সাড়া পায়নি। এদিকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঈদের দ্বিতীয় দিনে এসে দর্শকের চাপে রাজধানীর ব্লকবাস্টারে লিডারের শো ৩টি থেকে বেড়ে হয়েছে ৫টি। তবে সারা দেশের সিঙ্গেল স্ক্রিনে শাকিবের পাশাপাশি ভালোই ফাইট দিচ্ছে বাপ্পীর ‘শত্রু’ সিনেমাটি। অন্যদিকে মাল্টিপ্লেক্সে অনন্তর ‘কিল হিম’ নিয়ে অনেক প্রত্যাশা থাকলেও পূজার ‘জ¦ীন’-এর প্রভাব বেশ লক্ষণীয়। বিপরীতে অপুর ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’ আর বুবলীর ‘লোকাল’ নিয়ে উল্লেখযোগ্য আওয়াজ মেলেনি প্রথম সপ্তাহের প্রথম দিনে। মূল কারণ, হল সংকট। ফলে বেশিরভাগ সিনেমা সংশ্লিষ্টরা অপেক্ষায় আছেন দ্বিতীয় সপ্তাহের দিকে।