June 24, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, March 14th, 2024, 9:21 pm

উৎক্ষেপণের পরপরই জাপানের স্পেস ওয়ান রকেটে বিস্ফোরণ

অনলাইন ডেস্ক :

উৎক্ষেপণের পরপরই বিস্ফোরিত হয়েছে জাপানের স্পেস ওয়ানের একটি রকেট। গত বুধবার পশ্চিম জাপানের ওয়াকায়ামা অঞ্চলে কোম্পানির লঞ্চ প্যাড রকেটটি উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। উৎক্ষেপণের কয়েক সেকেন্ড পরই এটিতে বিস্ফোরণ ঘটেছে। একটি স্যাটেলাইটকে কক্ষপথে পাঠানোর লক্ষ্যে কাইরোস নামের ১৮ মিটার দীর্ঘ রকেটটি উৎক্ষেপণ করা হয়। খবর দ্য গার্ডিয়ান। লাইভ ফুটেজ দেখা যায়, উৎক্ষেপণের কয়েক সেকেন্ড পরই কঠিন-জ্বালানিযুক্ত রকেটটি বিস্ফোরিত হয়ে দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় ধোঁয়া ছড়াচ্ছে।

এক বিবৃতিতে স্পেস ওয়ান বলেছে, প্রথম কাইরোস রকেটের উৎক্ষেপণ সম্পন্ন করা হয়েছিল। তবে আমরা ফ্লাইটটি বাতিল করার একটি ব্যবস্থা নিয়েছিলাম। বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এ বিষয়ে বিস্তারিত তদন্ত চলছে। জ্বলন্ত ধ্বংসাবশেষ আশপাশের পানির ওপর ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েছিল। কাছাকাছি দর্শনার্থীদের জন্য নির্দিষ্ট এলাকাগুলোতে জড়ো হয় শত শত দর্শক। পাবলিক ব্রডকাস্টার এনএইচকেকে এক বয়স্ক ব্যক্তি বলেন, এটি নিয়ে আমার উচ্ছ্বাস বেশি ছিল। তাই আমি হতাশ। আমি জানতে চাই কী হয়েছে।

একটি নতুন রকেট সিস্টেম চালু করার প্রাথমিক প্রচেষ্টায় ব্যর্থতার ঘটনা সাধারণ বিষয়। এমনকি এটি প্রায় প্রত্যাশিত। উদাহরণসরূপ স্পেসএক্স এর কথা বলা যায়। তবে স্পেস ওয়ানের এ ব্যর্থতা জাপানের সম্ভাব্য লাভজনক বাণিজ্যিক স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের বাজারে প্রবেশের প্রচেষ্টাকে একটি বড় ধাক্কা দিয়েছে। বলা হয়েছিল, কাইরোস উৎক্ষেপণের প্রায় ৫১ মিনিট পরে স্যাটেলাইটটিকে কক্ষপথে স্থাপন করবে। গত শনিবার যন্ত্রাংশের ঘাটতি এবং অন্যান্য সমস্যার কারণে কাইরোসের উৎক্ষেপণ পাঁচবার স্থগিত করেছিল স্পেস ওয়ান। ২০১৮ সালে ক্যানন ইলেকট্রনিক্স, আইএইচআই অ্যারোস্পেস, নির্মাণ সংস্থা শিমিজু এবং সরকারি মালিকানাধীন ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক অব জাপানসহ প্রধান জাপানি প্রযুক্তি ব্যবসার একটি দল স্পেস ওয়ান প্রতিষ্ঠা করেছিল।