February 9, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, January 11th, 2023, 8:06 pm

এবার রাজশাহীতে চালু হচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স

অনলাইন ডেস্ক :

বাংলাদেশের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী এবং প্রাচীন নগরী রাজশাহী। পদ্মা নদীর তীরবর্তী এই শহর উত্তরবঙ্গের সবচেয়ে বড় শহর। বাংলাদেশের সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন এবং সবুজ শহর রাজশাহী। তাই একে বলা হয় গ্রীন সিটি। এ ছাড়া আরো অনেক নামে ডাকা হয় রাজশাহীকে। যেমন-শিক্ষানগরী, সিল্ক সিটি, রেশমি নগরী। ২০১৬ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী বায়ুদূষণ কমানোয় বিশ্বসেরা শহরগুলোর মধ্যে শীর্ষে স্থান পায় রাজশাহী। এত খ্যাতি যে শহরের, সেখানে আধুনিক মানসম্পন্ন একটি সিনেমা হলের অভাব বোধ করছিলেন দর্শকরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নানাভাবে এ বিষয়টি তুলে ধরেছেন অনেকে। বলা চলে, এটি ছিল সময়ের দাবি। এবার রাজশাহীবাসীর সেই দাবি পূরণ হতে চলেছে। নতুন বছরে রাজশাহীতে চালু হচ্ছে মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’। আগামীকাল শুক্রবার জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্য দিয়ে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। আগামী শনিবার থেকে দর্শকরা এখানে সিনেমা দেখতে পারবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজশাহীর বিশিষ্ট ব্যক্তিরা এবং বিনোদন জগতের তারকারা উপস্থিত থাকবেন বলে জানিয়েছেন স্টার সিনেপ্লেক্সের মিডিয়া অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ। রাজশাহীর বুলনপাড়া আই বাঁধ সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কে একটি হল নিয়ে নির্মিত হয়েছে এই সিনেপ্লেক্স। এখানে আসনসংখ্যা ১৭২টি। বরাবরের মতো নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসংবলিত সাউন্ডসিস্টেম, জায়ান্ট স্ক্রিনসহ বিশ্বমানের সিনেমা হলের যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা এখানেও থাকছে বলে জানান স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল। রাজশাহীতে সিনেপ্লেক্স চালু সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘রাজশাহী দেশের ঐতিহ্যবাহী একটি শহর। এখানে প্রচুর সিনেমাপ্রেমী দর্শক রয়েছেন, যারা স্টার সিনেপ্লেক্সের মতো একটি মাল্টিপ্লেক্স প্রত্যাশা করেন। অনেকেই বিভিন্ন মাধ্যমে আমাদের কাছে দাবি জানিয়েছেন। সেই দাবি পূরণের কাজটি করতে পেরে আমি আনন্দিত। আমরা চেষ্টা করছি স্টার সিনেপ্লেক্সকে দেশব্যাপী ছড়িয়ে দিতে, যাতে সারা দেশের মানুষ বিশ্বমানের সিনেমা হলে সিনেমা দেখার সুযোগ পান।’ রাজশাহী শহরে নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত সাতটি সিনেমা হল ব্যাপক জনপ্রিয় ছিল। সে সময় ভালো কিছু ছবি নির্মাণ হওয়ায় হলগুলোতে ভিড় লেগেই থাকত সিনেমাপ্রেমীদের। কিন্তু ২০১০ সালের পর চলচ্চিত্রের দুরবস্থা শুরু হলে বন্ধ হতে থাকে হলগুলো। সবশেষ ২০১৮ সালে বন্ধ হয় ‘উপহার’ সিনেমা হলটি। একের পর এক সিনেমা হল বন্ধ হওয়ায় একেবারেই হলশূন্য হয়ে পড়ে শহরটি। সেই শূন্যতা কাটিয়ে আবারও হলমুখী হবেন রাজশাহী জেলার সিনেমাপ্রেমী মানুষেরা-এমনটাই আশা করা হচ্ছে। নতুন নতুন মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণ প্রসঙ্গে মাহবুব রহমান রুহেল বলেন, ‘পর্যায়ক্রমে আমরা আরো অনেকগুলো মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণ করব। দেশের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির প্রসারে আমাদের এই উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে। আমরা বিশ্বাস করি, হারানো ঐতিহ্য আবার ফিরে আসবে। পরিবার-পরিজন নিয়ে হলে গিয়ে সিনেমা দেখার সুস্থ পরিবেশ আবার তৈরি হবে।’ উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের ৮ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে যাত্রা শুরু করে দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’। বর্তমানে এর ঢাকায় ৫টি ও চট্টগ্রামে ১টি শাখা রয়েছে। ধানম-ির সীমান্তসম্ভার (সাবেক রাইফেলস স্কয়ার), মহাখালীর এস কে এস (সেনা কল্যাণ সংস্থা) টাওয়ার, মিরপুরের সনি স্কয়ার এবং বিজয় সরণির সামরিক জাদুঘর ও চট্টগ্রামের বালি আর্কেড শপিং মলে শাখাগুলো অবস্থিত। এ ছাড়া ঢাকার উত্তরা এবং বগুড়ায় নতুন শাখার নির্মাণকাজ চলছে।