September 27, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, September 7th, 2022, 7:45 pm

এমবাপ্পের দুই গোলে জুভেন্টাসকে হারালো পিএসজি

অনলাইন ডেস্ক :

কিলিয়ার এমবাপ্পের জোড়া গোলে জয় দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অভিযান শুরু করেছে পিএসজি। মঙ্গলবার পার্ক ডি প্রিন্সেসে জুভেন্টাসকে গ্রুপ-এইচ’র প্রথম ম্যাচে জুভেন্টাসকে ২-১ গোলে পরাজিত করেছে প্যারিসের জায়ান্টরা। এমবাপ্পের দুটি গোলই ছিল অসাধারন। পাঁচ মিনিটে নেইমারের সহযোগিতায় আসে প্রথমটি। ২২ মিনিটে দ্বিতীয় গোলটির যোগানদাতা ছিলেন আচরাফ হাকিমি। বদলী খেলোয়াড় ওয়েস্টন ম্যাককিনির গোলে জুভেন্টাস দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দিলেও শেষ পর্যন্ত তা কেবল সান্তনার গোল হয়েই থেকেছে। মাত্র কয়েক বছর আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের শক্তির জানান দেয়া জুভেন্টাসের তুলনায় এবারের দলটি কিছুটা হলেও শক্তিমত্তা হারিয়েছে। ইনজুরির কারণে কাল দলের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে ছাড়াই প্যারিস সফরে এসেছিল জুভেন্টাস। এর মধ্যে পিএসজির সাবেক তারকা এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া অন্যতম। ম্যাচে সমতা ফেরানোর মত স্ট্রাইকারের অভাব লক্ষ্য করা গেছে। ম্যাচ শেষে পিএসজি কোচ ক্রিস্টোফে গালটিয়ার বলেছেন, ‘আমি এই দলটি নিয়ে দারুন সন্তুষ্ট। কঠিন পরিস্থিতিতে জয় ছিনিয়ে নেবার পর দলের মানসিকতার পরিবর্তন হয়ে যায়, দল আরো শক্তিশাীল হয়ে ওঠে।’ গত সপ্তাহে লিগ ওয়ানের ম্যাচে নঁতের বিপক্ষে খেলতে গিয়ে সহজ ট্রেন যাত্রার পরিবর্তে ব্যক্তিগত জেট বিমানে চেপে ক্লাব সফর করার সিদ্ধান্ত নিয়ে কালকের ম্যাচের আগের সংবাদ সম্মেলনে পিএসজির কোচসহ পুরো দলকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে। এমনকি সাংবাদিকরা বিষয়টি নিয়ে প্রকাশ্যে হাসি ঠাট্টাও করেছে। বিশ্বকাপ জয়ী তারকা এমবাপ্পে অবশ্য নিজের পারফরমেন্স দিয়ে বিষয়টি আর বেশীদুর যেতে দেননি। জুভেন্টাসের বিপক্ষে ম্যাচের ফলাফল নেতিবাচক হলে হয়ত বিষয়টি নিয়ে আরো সমস্যায় পড়তে হতো পিএসজিকে। একইসাথে মৌসুম শেষে রিয়াল মাদ্রিদে যাবার গুঞ্জন শেষে পিএসজি যে কেন তাকে দলে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল তারও প্রমান পাওয়া গেছে। প্যারিসের জায়ান্টদের সাথে ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তি নবায়ন করেছেন এমবাপ্পে। প্রায় এক দশক ধরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ব্যর্থতা কাটিয়ে প্রথমবারের মত শিরোপা জয়ের জন্য পিএসজিকে সহযোগিতা করাই এখন এমবাপ্পের মূল লক্ষ্য। এ সম্পর্কে ফরাসি এই তারকা বলেছেন, ‘এবার দলে আমার ভূমিকা কিছুটা হলেও ভিন্ন। কোচ আমার কাছ থেকে নতুন কিছু আশা করছে। বিশেষ করে লিওনেল মেসি ও নেইমারের সাথে যুক্ত হয়ে কিভাবে দলকে সবদিক থেকে সহযোগিতা করা যায় সেটাই এখন আমার সামনে বড় চ্যালেঞ্জ। তাদের দুজনকে গোলের ক্ষেত্রে সহযোগিতা করার দায়িত্বও আমার ওপর পড়েছে। এখন দেখা যাক নতুন ভূমিকায় আমি কতটা সফল হতে পারি। একইসাথে আমার কাছ থেকে গোল আশা করছেন কোচ।’ নেইমারের সাথে দুর্দান্ত বোঝাপড়ায় ম্যাচ শুরুর মাত্র পাঁচ মিনিটের মধ্যে স্বাগতিকদের এগিয়ে দিয়েছিলেন এমবাপ্পে। বামদিক থেকে এমবাপ্পে প্রথম নেইমারের দিকে বল বাড়িয়ে দেন। এরপর বক্সের ভিতর ঢুকে পড়া এমবাপ্পেকে বল ফিরিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। কোনাকুনি শটে জুভেন্টাস গোলরক্ষক মাত্তিয়া পেরিনকে পরাস্ত করতে কোন ভুল করেননি এমবাপ্পে। ১৯ মিনিটে জুভেন্টাস সমতায় প্রায় চলেই এসেছিল। জুয়ান কুয়াড্রাডো ক্রস থেকে আরকাডিয়াস মিলিকের হেড পিএসজি গোলরক্ষক গিয়ানলুইগি ডোনারুমা দারুন দক্ষতায় রুখে দেন। মিনিটখানেক পরেই আচরাফ হাকিমির পাসে দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে ব্যবধান দ্বিগুন করেন এমবাপ্পে। মার্কো ভেরাত্তি ও গ্রীষ্মকালীন চুক্তিভূক্ত ভিতিনহা মধ্যমাঠে বলের পজিশন নিয়েছেন, অন্যদিকে জুভেন্টাসের রক্ষনভাগের মদ্রে লিওনেল মেসি বারবার জায়গা করে নিয়েছেন। মিডফিল্ড থেকে আসা দুর্দান্ত সব পাসে আক্রমনভাগে এমবাপ্পের বারবার আক্রমনে পিএসজির দুর্দান্ত দক্ষতায় স্বাগতিক সমর্থকদের নজড় কেড়েছে। বিরতির পর অনেকটাই নিষ্ক্রিয় ফ্যাবিও মিরেত্তির স্থানে ম্যাককিনিকে মাঠে নামান জুভেন্টাসের কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি। ৫৩ মিনিটে যুক্তরষ্ট্রের এই মিডফিল্ডারের হাত ধরেই গোল আদায় করে নেয় তুরিনের জায়ান্টরা। বামদিক থেকে লিয়ান্দ্রো পারেডেসের শর্ট কর্নারে ফিলিপ কোস্টিকের ক্রসে ম্যাককিনির হেড আটকাতে পারেননি ডোনারুমা। নেইমারের পাসে এমবাপ্পে হ্যাটট্রিকের সুযোগ হাতছাড়া করেন। ডুসান ভøাহোভিচের হেড দুর্দান্তভাবে ডোনারুমা রক্ষা না করলে জুভেন্টাস হয়তো তখনই সমতায় ফিরতে পারতো। ম্যাচের শেষভাগে নেইমারের একটি ভলি আটকে দেন পেরিন। ম্যাচ শেষে আলেগ্রি স্বীকার করেছেন ম্যাচের ফলাফল ইতিবাচক হতে পারতো। এবারের মৌসুমে এমবাপ্পে এ পর্যন্ত ৬ ম্যাচে ৯ গোল করেছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ সাত ম্যাচে করেছেন ৮ গোল।