November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, October 14th, 2022, 7:31 pm

ওয়ার্নারের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আলোচনায় অস্ট্রেলিয়া

অনলাইন ডেস্ক :

বর্তমান আচরণবিধিতে সুযোগ নেই, তাই অধিনায়কত্বের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার জন্য আপিল করতে পারছেন না ডেভিড ওয়ার্নার। বাঁহাতি এই ওপেনারকে সেই সুযোগ করে দিতে বোর্ডের আচরণবিধিতে পরিবর্তনের উদ্যোগ নিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। ২০১৮ সালের কেপ টাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কা-ে ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে অস্ট্রেলিয়া। আর নেতৃত্বে তাকে নিষিদ্ধ করা হয় আজীবনের জন্য। ওয়ার্নারের এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আলোচনা অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটে অনেকদিন ধরেই চলছে। অ্যারন ফিঞ্চ ওয়ানডে থেকে অবসর নেওয়ায় এই সংস্করণের নতুন অধিনায়ক খুঁজছে অস্ট্রেলিয়া। তাতে এই আলোচনা পেয়েছে ভিন্ন মাত্রা। নেতৃত্বে ফেরার আগ্রহের কথা ওয়ার্নার বলেছেন অনেকবার। কিন্তু প্রক্রিয়াটি অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে এত সহজ নয়। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান আচরণবিধি অনুযায়ী, কোনো ক্রিকেটার শাস্তি মেনে নিলে সেটা পুনর্বিবেচনা করতে আবেদন করার অধিকার থাকে না তার। এই জায়গা বদলের জন্য শুক্রবার বোর্ডের কর্তারা একটি পদক্ষেপ নিয়েছেন। এখনকার আচরণবিধিতে বদল আনতে হেড অব ইন্টিগ্রিটি জ্যাকি প্যাত্রিজকে অনুরোধ করেছে অস্ট্রেলিয়ান বোর্ড। সিএ তাদের বিবৃতিতে বলেছে, আচরণবিধির এই পরিবর্তন ক্রিকেটার কিংবা বোর্ডের সংশ্লিষ্টদের ‘যথাযথ সময়ের’ পর শাস্তি পর্যালোচনার অনুরোধ করার অধিকার দেবে। বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভা শেষে বৃহস্পতিবার সিএ চেয়ারম্যান লকল্যান হেন্ডারসনও ইঙ্গিত দেন, ওয়ার্নারের নেতৃত্বের নিষেধাজ্ঞা পর্যালোচনা করার পক্ষে থাকার। “ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দৃষ্টিভঙ্গি হলো, ডেভিড (ওয়ার্নার) বিশেষ করে মাঠে ভালো করছে এবং মাঠের বাইরেও দুর্দান্ত অবদান রাখছে। অতীতে দেওয়া নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আমরা যেন প্রতিক্রিয়া না দেখাই সে বিষয়ে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।” “তবে আমাদের এ বিষয়েও সচেতন থাকতে হবে, ক্রিকেটার ও যারা নিষেধাজ্ঞার অধীনে তাদেরও পরিবর্তন হতে পারে, ভবিষ্যতে খুব ভালো করতে পারে। বিশেষ করে ডেভিডের অবস্থা আমরা যেভাবে দেখছি, তাতে আমাদের একটি নীতিগত অবস্থান ঠিক করতে হবে।”