December 1, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, November 15th, 2021, 7:23 pm

ওয়ার্নারের সমালোচনায় ওয়াকার ইউনিস

অনলাইন ডেস্ক :

ওয়ানডে ফরম্যাটে সর্বোচ্চ শিরোপাজয়ী অস্ট্রেলিয়া প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতে নিল। স্বাভাবিক ভাবেই উচ্ছ্বসিত অজিদের জন্য প্রশংসার শেষ নেই। কিন্তু পাশাপাশি আছে সমালোচনাও। সমালোচনার কারণ পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ডেভিড ওয়ার্নারের সেই বিতর্কিত ছক্কা। ওয়াকার ইউনিস ওই ছক্কা মারার জন্য ওয়ার্নারের নিন্দা করেছেন। যদিও সেটা ছিল বৈধ বল এবং ওই বলে আউট হলেও আম্পায়ার আঙুল তুলতেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে মোহাম্মদ হাফিজের বলে ছক্কা মেরেছিলেন ওয়ার্নার। বলটি হাফিজের হাত ফস্কে বেরিয়ে যায়। পিচে দুই বার ড্রপ করে ওয়ার্নারের কাছে যায়। সেই বলে ছক্কা মারেন অজি ওপেনার। এরকম ভাবে ছক্কা মারার ক্ষেত্রে ক্রিকেটের আইনের দিক দিয়ে কোনো সমস্যা না থাকলেও অনেকেই নীতির প্রশ্ন তোলেন। ওয়াকারও একই প্রশ্ন তুলেছেন। পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার ওই ছক্কাের মধ্যে কোনো ভুল না দেখে ওয়ার্নারের পাশে দাঁড়িয়েছেন বলে তারও সমালোচনা করেছেন পাকিস্তানের এই কিংবদন্তি পেসার। ওয়াকার বলেন, ‘আইনের দিক দিয়ে কোনো সমস্যা নেই। তার ছক্কা মারার অধিকার আছে, মেরেছে। কিন্তু সেটাকে বারবার তুলে ধরে সমর্থন করাটা ঠিক নয়। দুর্দান্ত উপস্থিত বুদ্ধি বলে ল্যাঙ্গার যেভাবে ওয়ার্নারের পিঠ চাপড়েছে, সেটা আমাকে অবাক করেছে। এটা ঠিক নয়। তারা তা হলে বাচ্চাদের কী শেখাচ্ছে? এটা ওদের মানসিকতা হতে পারে। তা নিয়ে কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু দয়া করে এটা বাচ্চাদের শিখিও না।’ ২২ বছর আগের কথা তুলে ধরে ওয়াকার বলেন, ‘ল্যাঙ্গারের এমন কাজ করার ইতিহাস আছে। ১৯৯৯ সালে হোবার্ট টেস্টে আমরা দারুণ খেলেছিলাম। কিন্তু সে একটা বল ব্যাটের কানায় লাগিয়েও উইকেট ছেড়ে বের হয়নি। বল যে তার ব্যাটে লেগেছিল, সেটা নিশ্চিত। দুই-তিন দিন পরে নিজেই স্বীকার করেছিল। একটা অনুষ্ঠানে তার সঙ্গে দেখা হয়েছিল। সেখানে তাকে সেই ঘটনা নিয়ে জিজ্ঞেস করেছিলাম। সে বলেছিল, বল তার ব্যাটে লেগেছিল। আমি অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। জানি না, তারা বাচ্চাদের কী শেখাচ্ছে!’