February 2, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, January 15th, 2023, 8:09 pm

কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি নাদাল

অনলাইন ডেস্ক :

আগামীকাল সোমবার থেকে মেলবোর্ন পার্কে শুরু হচ্ছে বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে তরুণ প্রতিদ্বন্দ্বীদেরই এবার সবচেয়ে বড় ঝুঁকি হিসেবে দেখছেন রাফায়েল নাদাল। অন্যদিকে নারীদের বিভাগে শীর্ষ বাছাই ইগা সোয়াইটেকও ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জয়ের পথে নিশ্চিতভাবেই বেশ কিছু কঠিন প্রতিপক্ষের মোকাবেলা করতে হবে। গত বছরের শিরোপাজয়ী এ্যাশলে বার্টি আকস্মিক ভাবে টেনিস থেকে অবসরের ঘোষনা দেয়ায় নারী বিভাগে নিশ্চিতভাবে এবার নতুন কোন চ্যাম্পিয়ন খুঁজে পাবে টেনিস বিশ্ব। ৩৬ বছর বয়সী স্প্যানিশ সুপারস্টার নাদাল গত সাত ম্যাচের মধ্যে ছয়টিতেই পরাজিত হয়েছেন। এর মধ্যে এ বছর হেরেছেন দুটি ম্যাচে। ব্রিটেনের ইন-ফর্ম জ্যাক ড্রাপারের বিরুদ্ধে রড লেভার এ্যারেনাতে কোর্টে নামার আগে তাই স্বাভাবিক ভাবে কিছুটা হলেও শঙ্কায় রয়েছে নাদাল। ২২ বারের রেকর্ড গ্র্যান্ড স্ল্যাম কিজয়ী ও শীর্ষ বাছাই নাদাল এ সম্পর্কে বলেছেন, ‘সম্ভবত এটাই আমার ক্যারিয়ারে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে প্রথম রাউন্ডে সবচেয়ে কঠিন ম্যাচ। শীর্ষ বাছাই হওয়া সত্বেও ম্যাচটি আমার কাছে কঠিন মনে হচ্ছে। তরুন, শক্তিশালী ও র‌্যাঙ্কিংয়ে খুব দ্রুত উন্নতি করা ড্রাপার দারুন এই মুহূর্তে দারুন ছন্দে রয়েছেন।’ ২১ বছর বয়সী ড্রাপার এ সপ্তাহে এডিলেড ইন্টারন্যাশনালে সেমিফাইনালে খেলেছেন। নাদাল তার আইডল হলেও প্রথম রাউন্ডে প্রতিপক্ষ সম্পর্কে ড্রাপার বলেছেন, ‘আমি এগিয়ে যেতে চাই ও শক্তিশালী প্রতিপক্ষ হিসেবেই লড়াই করতে চাই। অবশ্যই জয়ের লক্ষ্য নিয়ে কোর্টে নামবো, এটাই আমার পরিকল্পনা।’ গত বছর রাশিয়ান দানিল মেদভেদেভের সাথে পাঁচ সেটের নাটকীয় লড়াইয়ের পর নাদাল শিরোপা জিতেছিলেন। আজ সোমবার সেন্টার কোর্টে মেদভেদেভ প্রথম রাউন্ডে যুক্তরাষ্ট্রের মার্কোস জিরনের মোকাবেলা করবে। নয়বারের চ্যাম্পিয়ন নোভাক জকোভিচ গত বছর করোনা ভ্যাকসিন জটিলতায় কোর্টে না নেমেই দেশে ফেরত গেলে শীর্ষ বাছাই ও ফেবারিট হিসেবে খেলতে নেমেছিলেন নামাল। শেষ পর্যন্ত শিরোপা জিতে নাদাল ২০০৯ সালের পর প্রথমবারের মত অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ট্রফি হাতে নিয়েছিলেন। সার্বিয়ার ৩৫ বছর বয়সী জকোভিচ কাল মঙ্গলবার স্প্যানিশ রবার্তো কারবেলাস বায়েনার মোকাবেলা করবে। এবারের আসরে শুধুমাত্র ১০ম শিরোপা কিংবা নাদালের সাথে সমান ২২তম স্ল্যাম শিরোপা জয়ই নয় বরং র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান দখলও জকোভিচের মূল লক্ষ্য। গত সপ্তাহে এডিলেড ইন্টারন্যাশনাল জয়ের পর জকোভিচ বলেছেন, ‘আমি আমার সুযোগ কাজে লাগাতে পছন্দ করি।’ এবারের শিরোপা জিতলে জকোভিচ শীর্ষস্থানে ফিরবেন। একইসাথে এই সুযোগ থাকবে নরওয়ের কাসপার রুপ ও গ্রীক স্টিফানোস তিসিতসিপাসের সামনে। বিশ^ র‌্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় স্থানে থাকা রুড ফাইনালে পৌঁছালে যদি জকোভিচ কিংবা তিসিতসিপাসের কেউ শিরোপা না জিতে তবে শীর্ষস্থান নিশ্চিত করতে পারবেন। আর এদের মধ্যে কেউ যদি শিরোপা জিততে না পারেন তবে ইনজুরির কারণে মেলবোর্ন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয়া কার্লোস আলকারাজই তার শীর্ষস্থান ধরে রাখবেন। এদিকে নারী বিভাগে সুস্পষ্ট ফেবারিট হিসেবেই কোর্টে নামবেন সোয়াইটেক। ২০২২ সালে এই পোলিশ আটটি ডব্লিউটিএ শিরোপা জিতেছেন। ছয় বছরের মধ্যে একই মৌসুমে দুটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন সোয়াইটেক। গত বছর রোলা গাঁরো ও ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন। অবসরে যাওয়া সেরেনা উইলিয়ামস ও দুইবারের মেলবোর্ন বিজয়ী নাওমি ওসাকাও খেলতে পারছেন না। মূল ড্র’তে আগের শিরোপা জয়ী মাত্র দুইজন রয়েছেন, ২০২০ সালের বিজয়ী সোফিয়া কেনিন ও প্রায় একদশক আগে দ্বিতীয় শিরোপা জেতা ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। ৬৮ নম্বর খেলোয়াড় জার্মানির জুলে নিমিয়ারের বিপক্ষে আজ সোমবার কোর্টে নামবেন সোয়াইটেক। গত বছর উইম্বলডনের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছেন নিমিয়ার। সম্প্রতি ইউএস ওপেনের শেষ ষোলতে খেলেছেন এই দুজন। ম্যাচটিতে প্রথম সেটে পরাজিত হলেও শেষ পর্যন্ত টুর্ণামেন্টে বিজয়ী হয়েছিলেন সোয়াইটেক।