May 26, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, April 15th, 2022, 8:25 pm

করোনাভাইরাস পলিসি নিয়ে সাংহাইতে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষ

অনলাইন ডেস্ক :

করোনাভাইরাসের হঠাৎ বিস্তার রোধে চীনের সাংহাইতে কঠোর লকডাউনের কারণে লাখ লাখ লোক ঘরে বসে থাকার কারণে তাদের মধ্যে সৃষ্ট হতাশার সহিংস বহিঃপ্রকাশ দেখা গেছে। দেশটির ভাইরাস পলিসি নিয়ে পুলিশের সাথে সাংহাই বাসিন্দাদের সংঘর্ষের একাধিক ভিডিও চিত্র নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। বিবিসি জানায়, ভিডিওগুলোতে বাসিন্দাদের হতাশার চিত্র প্রকাশিত হয়েছে এবং ভাইরাল হয়েছে। সাধারণত এই ধরনের ক্লিপগুলি ‘গ্রেট ফায়ারওয়াল’ নামে পরিচিত চীনের সেন্সর দেয়াল অতিক্রম করে না। এএফপি’র বরাতে এনডিটিভি’র প্রতিবেদনে বলা হয় সাংহাইয়ের বাসিন্দাদের বাড়িঘর কোভিড -১৯ আক্রান্ত রোগীদের কাছে ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দিলে পুলিশের সাথে ঝগড়া ও সংঘর্ষে জড়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত ভিডিওগুলোতে ভাইরাস প্রতিক্রিয়া নিয়ে মেগাসিটি বাসিন্দাদের ক্রমবর্ধমান অসন্তোষের একটি বিরল আভাস বলে জানিয়েছে এএফপি। ২৫ মিলিয়ন মানুষের শহরটিতে কঠোর শূন্য-কোভিড নীতি জারি রেখেছে দেশটির সরকার। এপ্রিলের শুরু থেকে গৃহবন্দী বাসিন্দারা খাদ্যের ঘাটতি এবং তাদের রাষ্ট্রীয় কোয়ারেন্টাইনে বাধ্য করার অভিযোগ করেছেন। কারণ কর্তৃপক্ষ দৈনিক সংক্রমিতদের বাড়িতে কয়েক হাজার শয্যা তৈরি করতে চাইছে। গত বৃহস্পতিবার ভিডিওগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, কম্পাউন্ডের বাইরে এসে বাসিন্দারা পুলিশের সামনে চিৎকার করছে। পুলিশ অফিসাররা তাদের লাইন ভেদ করার চেষ্টা করেছিল। একটি ক্লিপে পুলিশকে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করতে দেখা যায়। বাসিন্দারা তাদের আক্রমণের অভিযোগ করেছে। হাউসিং কমপ্লেক্স ঝাংজিয়াং গ্রুপ জানায়, কর্তৃপক্ষ ৩৯টি পরিবারকে মহামারী প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের কম্পাউন্ড থেকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়ার পরে এই ঘটনাটি শুরু হয়েছিল। একটি লাইভ-স্ট্রিম করা ভিডিওতে একজন মহিলাকে কাঁদতে এবং জিজ্ঞাসা করতে শোনা যায় “কেন তারা একজন বৃদ্ধকে নিয়ে যাচ্ছে?” ঝাংজিয়াং গ্রুপ বলেছে, তারা ভাড়াটেদের ক্ষতিপূরণ দিয়েছে এবং তাদের একই কম্পাউন্ডের অন্যান্য ইউনিটে স্থানান্তর করেছে। অন্য একটি ভিডিওতে, যা লাইভ-স্ট্রিম করা হয়েছিল, একজন মহিলাকে চিৎকার করতে শোনা যায়। “ঝাংজিয়াং গ্রুপ আমাদের কম্পাউন্ডকে একটি কোয়ারেন্টাইন স্পটে পরিণত করার চেষ্টা করছে এবং কোভিড-পজিটিভ লোকদের আমাদের কম্পাউন্ডে বসবাস করার অনুমতি দিচ্ছে।”