November 30, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Saturday, October 30th, 2021, 9:20 pm

করোনার উৎস হয়তো কখনোই জানা যাবে না

অনলাইন ডেস্ক :

বিশ্ব মহামারি করোনাভাইরাসের উৎস নিয়ে নানা বিতর্ক রয়েছে। বেশিরভাগ দেশেরই ধারণা, চীন থেকেই এটি ছড়িয়েছে গোটা বিশ্বে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলি বলেছে, করোনার উৎস হয়তো কখনোই জানা যাবে না। তবে এটা যে জৈব অস্ত্র হিসেবে তৈরি করা হয়নি এ ব্যাপারে তারা নিশ্চিত হয়েছেন। স্থানীয় সময় গত শুক্রবার এই তথ্য জানায় তারা। খবর বিবিসি, রয়টার্সের।যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা অফিস অব দ্য ইউএস ডিরেক্টর অব ন্যাশনাল ইনটেলিজেন্স (ওডিএনআই) এক রিপোর্টে জানিয়েছে, প্রাকৃতিক ভাবে করোনাভাইরাস উৎপত্তি এবং গবেষণাগার থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া -উভয় ব্যাপারেই বিশ্বাসযোগ্য অনুমান রয়েছে। কিন্তু কোনটির সম্ভাবনা বেশি তা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাননি গবেষকরা। অবশ্য এই প্রতিবেদন প্রকাশের পর তীব্র সমালোচনা করেছে চীন। ওয়াশিংটনে অবস্থিত চীনা দূতাবাসের মুখপাত্র লিউ পেংইউএক বিবৃতিতে জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের উৎস খোঁজার জন্য বিজ্ঞানী ও বিশেষজ্ঞদের ওপর নির্ভর না করে যুক্তরাষ্ট্র বরং গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর ওপর আস্থা রাখছে। ওয়াশিংটনের এই কর্মকা- পুরোপুরি রাজনৈতিক প্রহসন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের এই কর্মকা- ভাইরাসের উৎস নির্ধারণে বিজ্ঞানভিত্তিক গবেষণাকে ছোট করবে এবং একই লক্ষ্যে পরিচালিত বৈশ্বিক প্রচেষ্টাকেও বাধাগ্রস্ত করবে। যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থার ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, চীনা কর্মকর্তারা ২০১৯ সালের শেষের দিকে উহান শহরে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের আগে ভাইরাসটির অস্তিত্ব সম্পর্কে জানতেন না। তবে ওই রিপোর্টে চীন যে বিশ্বব্যাপী তদন্তে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে এবং তথ্য শেয়ার করা বাধাগ্রস্ত করেছে এটাও উল্লেখ করা হয়েছে। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। প্রথমে বলা হয়েছিল, উহান শহরের কেন্দ্রে অবস্থিত হুনান সি-ফুড মার্কেট থেকেই প্রথম করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটে। কিন্তু এই বছরের শুরুর দিকে, যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে উহানের ল্যাব থেকে দুর্ঘটনাবশত এই ভাইরাস ছড়িয়েছে। মে মাসে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের ল্যাব লিক তত্ত্বসহ ভাইরাসের উৎস খুঁজে বের করার নির্দেশ দেন। কিন্তু চীন তা প্রত্যাখ্যান করে।