December 5, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Saturday, July 24th, 2021, 7:36 pm

করোনায় ঈশ্বরগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু : জানাজায় উপস্থিত ছিলনা কোন মুক্তিযোদ্ধা

সাইফুল ইসলাম তালুকদার :
মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সোহরাব উদ্দিন এর দাফন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার বিকাল ৩টায় উপজেলা খেলার মাঠে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাকির হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস দল তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এসময় বিউগলে করুণ সুর বাজানো হয়। এই বীর মুক্তিযোদ্ধার দাফন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হলেও জানাজায় কোন মুক্তিযোদ্ধা অংশগ্রহণ করেননি ।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন বলেন, মরহুম মুক্তিযোদ্ধার কফিনে পুষ্পস্থবক অর্পন করার জন্য জানাযায় কোন মুক্তিযোদ্ধাকে পাওয়া যায়নি। চির বিদায়ের প্রাক্কালে মুক্তিযোদ্ধাগণ উপস্থিত থাকলে ভালো হত।
এব্যাপারে সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছাত্তার জানান, শারীরিক অসুস্থতার কারণে জানাজায় অংশগ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। তবে গার্ড অব অনারের ব্যাপারে ইউএনও ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে কথা বলেছি। জানাজায় বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হলুদ ও আব্দুস সালাম অংশগ্রহণ করার কথা ছিল।
বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হলুদকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, মুক্তিযোদ্ধাদের পিপি না থাকায় কেউ অংশগ্রহণ করেননি। আমার পিপি থাকলেও বৃষ্টির কারণে অংশগ্রহণ করতে পারিনি।
এব্যাপারে মরহুমের পুত্র আ.ন.ম জহির উদ্দিন নাছের বলেন, আমার বাবা একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। তিনি সকল মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে চলা ফেরা করেছেন। আমার জানা মতে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে সু-সম্পর্ক ছিল। কিন্তু কি কারণে আমার বাবার জানাজায় একজন মুক্তিযোদ্ধাও অংশগ্রহণ করেননি তা আমার বোধগম্য হচ্ছে না। বিষয়টি অত্যন্ত নিন্দনীয় ও দুঃখজনক।
উল্লেখ্য বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সোহরাব উদ্দিন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত একসপ্তাহ ধরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ১০টা ৪৫মিনিটে ইন্তেকাল করেন। জানাজায় কোন মুক্তিযোদ্ধা অংশগ্রহণ না করায় পরিবারের সদস্যরা গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। তিনি স্ত্রী এক ছেলে ও দুই কন্যা সন্তান সহ বহুগুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমের দাফনকার্যে সহযোগিতা করেন উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক নির্বাচিত ইসলামিক ফাউণ্ডেশনের ৫ সদস্যের বিশেষ টিম।