November 30, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, July 2nd, 2021, 8:56 pm

সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিন: রাস্তায় বেরোনোয় গ্রেপ্তার ৩২০, জরিমানা ৬ লাখ

শুক্রবার কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও মাঠে তৎপর রয়েছে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও সেনাবাহিনী।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

কোভিড-১৯ এর উচ্চ সংক্রমণ রোধকল্পে সরকার ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে বিভিন্ন স্থানে অপ্রয়োজনে বের হওয়ার অভিযোগে ৩২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলারক্ষা বাহিনী। এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়েছে ২০৮ জনকে। কঠোর বিধি নিষেধ বাস্তবায়নে প্রথম দিনের মতো আজ শুক্রবার দ্বিতীয় দিনেও মাঠে তৎপর রয়েছে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও সেনাবাহিনী।

অন্যদিকে, ট্রাফিক কর্তৃক মামলা হয়েছে ২১৯ টি। জরিমানার পরিমাণ ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৫০০ টাকা। এবং ৬৮ টি গাড়িতে ১ লাখ ১৯ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করেছে কর্তব্যরতরা।

শুক্রবার (২ জুলাই) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীজুড়ে চলমান কঠোর লকডাউনে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করায় এসব শাস্তি আরোপ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

এডিসি ইফতেখায়রুল জানান, সরকারি নির্দেশনা প্রতিপালনে সকাল থেকে একযোগে ডিএমপির ক্রাইম ডিভিশন, ট্রাফিক ডিভিশন ও গোয়েন্দা ডিভিশন মাঠে কাজ করেছে। পাশাপাশি প্রত্যেকটি বিভাগেই ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে পরিচালনা করা হয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সকাল থেকে রাজধানীর রমনা, লালবাগ, মতিঝিল, ওয়ারী, তেজগাঁও, মিরপুর, গুলশান, উত্তরার বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের বিভিন্ন চেকপোস্ট, তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া সপ্তাহব্যাপী কঠোর বিধিনিষেধের বাস্তবায়ন করতে ভোর থেকে মাঠে ব্যাপক তৎপর রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনে তল্লাশি ও পথচারীদের বাইরে বের হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করছে পুলিশ।
লকডাউনের প্রথমদিনে গত বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন এলাকা থেকে ছয় শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। এসব ব্যক্তিকে আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে গতকাল শুক্রবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। দুপুর থেকে একে একে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী তাদের দুইশ থেকে দুই হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা করে আদেশ দেন। সিএমএম কোর্ট হাজতের দায়িত্বপ্রাপ্ত এসআই শহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রায় ৬০০ মানুষকে ডিএমপি আইনে মামলা দিয়ে হাজির করা হয়। আদালত তাদের বিভিন্ন পরিমাণে জরিমানা করে আদেশ দেন। সেই জরিমানা পরিশোধ সাপেক্ষে আটক ব্যক্তিদের ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে।
এরআগে করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত বিধি-নিষেধ কঠোরভাবে প্রতিপালনে মাঠ পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ। গত বুধবার বিকেলে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে ভার্চ্যুয়ালি সব মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার, রেঞ্জ ডিআইজি, জেলা পুলিশ সুপার ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি) সব ইউনিট প্রধানদের এ নির্দেশনা দেন তিনি। আইজিপি সরকারি বিধি-নিষেধ চলাকালে সবাইকে ঘরে থাকার আহ্বান জানান। একইসঙ্গে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হতে হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধানসহ ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের অনুরোধ করেন। ১ জুলাই থেকে রাজধানীতে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বের হলেই কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। বুধবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি। মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, যুক্তিসংগত কারণ ছাড়া কেউ বের হলে তাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। নির্দেশনা বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে অত্যন্ত কঠোর অবস্থানে থাকবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। বিধি-নিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ২৬৯ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। করোনা ভাইরাসজনিত রোগ (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে গত বৃহস্পতিবার সকাল ৬ টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত সার্বিক কার‌্যাবলী ও চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।