December 9, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, August 23rd, 2021, 8:12 pm

কাবুল বিমানবন্দরে গোলাগুলিতে নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক :

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নর্থ গেইটে অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের সঙ্গে পশ্চিমা নিরাপত্তা বাহিনী ও আফগান রক্ষীদের গোলাগুলি হয়েছে বলে জার্মানির সশস্ত্র বাহিনী জানিয়েছে। সোমবারের এ ঘটনায় একজন আফগান রক্ষী নিহত ও আরো তিন জন আহত হয়েছেন বলে টুইটারে জানিয়েছে তারা। এ লড়াইয়ে মার্কিন ও জার্মান বাহিনীগুলোও জড়িয়ে পড়েছে। নিহত ওই ব্যক্তি বিমানবন্দরে পাহারার দায়িত্বে থাকা কোনো তালেবান সদস্য কিনা তা টুইটে উল্লেখ করা হয়নি। বিমানবন্দরটির বাইরে শৃঙ্খলা বজার রাখার জন্য নিজেদের যোদ্ধাদের মোতায়েন করেছে তালেবান আর ভেতরে আফগান রক্ষীরা যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনীগুলোকে সহায়তা করছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাইরে থেকে এক স্নাইপার বিমানবন্দরের ভেতরে থাকা আফগান রক্ষীদের লক্ষ্য করে গুলি করলে তারা পাল্টা গুলি করে, কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনী আফগান রক্ষীদের দিকে গুলি ছোড়ে। বিমানবন্দরটিতে থাকা দুই ন্যাটো কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে এবং বিমানবন্দরটির সব গেইট বন্ধ করে রাখা হয়েছে। গত ১৫ আগস্ট তালেবানের হাতে কাবুলের পতনের পর রাজধানী শহরটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক এবং দেশটির বাহিনীর সঙ্গে কাজ করা আফগানদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। এ ছাড়া আফগানিস্তানে যাদের সামরিক বাহিনীর সদস্যরা কাজ করেছে, তারাও একই ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছেন। এদিকে তালেবান ক্ষমতায় আসার পর থেকে কাবুল বিমানবন্দরে দেশত্যাগে ইচ্ছুক হাজার হাজার মানুষের ভিড় দেখা গেছে। আফগানিস্তান থেকে পালাতে বিমানবন্দরে বাইরে তাদের মরিয়া হয়ে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। যে কোনো উপায়ে বিমানবন্দরে প্রবেশের চেষ্টা চালাতে দেখা যায় তাদের। এর আগে রোববার কাবুল বিমানবন্দরে সাতজন আফগানের মৃত্যু হয়। হুড়োহুড়িতে তাঁদের মৃত্যু হয় বলে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। সামরিক জোট ন্যাটোর এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্স বলেছে, সোমবারে গোলাগুলিতে নিহতের ঘটনা বাদে ১৫ আগস্টের পর থেকে কাবুল বিমানবন্দরে মারা গেছেন মোট ২০ জন। সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, কাবুল বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ মিত্রশক্তিগুলো তাদের নাগরিক এবং আফগান সহকর্মীদের সরিয়ে নিতে সহায়তা করছে। অস্থায়ীভাবে বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে প্রায় ৪ হাজার ৫০০ মার্কিন সেনা। নানা দেশের সেনা সদস্যের পাশাপাশি ৯০০ ব্রিটিশ সেনাও সেখানে টহলে রয়েছে। এদিকে বিমানবন্দরের বাইরে বেশ কয়েকটি তল্লাশিচৌকি স্থাপন করেছে তালেবান। ভ্রমণের কাগজপত্র ছাড়া আফগানদের বিমানবন্দরের ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।