May 26, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, February 17th, 2023, 8:00 pm

কাম্প নউয়ে বার্সা-ইউনাইটেডের সমতা

অনলাইন ডেস্ক :

ইউরোপা লিগে রোমঞ্চকর প্লে অফের প্রথম লেগে কেউ কাউকে হারাতে পারেনি ইউরোপীয় ফুটবলের দুই জায়ান্ট ক্লাব বার্সেলোনা ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। গত বৃহস্পতিবার রাতে ক্যাম্প ন্যুয়ে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি ড্র হয়েছে ২-২ গোলে। এদিন অনুষ্ঠিত আরেক ম্যাচে নঁতের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে হতাশ সিরি এ লিগের আরেক জায়ান্ট জুভেন্টাস। ২০০৯ ও ২০১১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে খেলা দুটি দল গত বৃহস্পতিবার ক্যাম্প ন্যুয়ে জড়ো হয়েছিল ইউরোপার প্লে অফে খেলার জন্য। ঘরোয়া ফুটবলেও তারা ছিল অনন্য। ম্যাচে প্রথমার্ধটি ছিল গোলশূন্য। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল করে এগিয়ে যায় স্বাগতিক বার্সেলোনা। বিরতি থেকে ফেরার ৫ মিনিট পর (৫০মি.) একটি কর্নারের ক্রস দর্শনীয় হেডে জালে জড়ান মার্কোস আলনসো (১-০)। তবে তিন মিনিট পরেই (৫৩মি.) গোলটি পরিশোধ করে দেয় ইউনাইটেড। পোস্টের একেবারে সামনে থেকেই বার্সা গোল রক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগানকে পরাস্ত করেন মার্কাস রাশফোর্ড (১-১)। বিশ্বকাপের পর ১৫ ম্যাচে এটি ছিল তার ১৩তম গোল। এরপর লিড পায় ইউনাইটেড। ম্যাচের বয়স ঘন্টার ঘরে পৌঁছানোর আগেই (৫৯মি.) জুলেস কুন্ডের আত্মঘাতি গোলে এগিয়ে যায় প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটি (১-২)। তবে ৯০ হাজার স্বাগতিক দর্শকের সামনে বার্সাকে পরাজয়ের লজ্জা থেকে রক্ষা করেন রাফিনহা। ম্যাচের শেষ কেয়ার্টারে (৭৬মি.) রাফিনহার ক্রসের বলটি সরাসরি জড়িয়ে যায় ইউনাইটেডের জালে (২-২)। খেলা শেষে ইউনাইটেডের কোচ এরিক টেন হাগ বিটি স্পোর্টসকে বলেন, ‘আমার মনে হয় এটি ছিল দারুন একটি ম্যাচ। দুটি দলই আক্রমনাত্মক ছিল। এটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মতোই। অনেক সময় লড়াইয়ের পারদ ছাড়িয়ে গেছে ইউরোপের ওই অভিজাত টুর্নামেন্টের আমেজকেও।’ তবে বার্সা কোচ জাভির ম্যাচ পরবর্তি প্রতিক্রিয়ায় ছিল অভিযোগ। বলেন,ফ্রেডের হ্যান্ডবলের কারণে পেনাল্টির পাওয়ার কথা ছিল বার্সার। যেটি শেষ পর্যন্ত দেয়নি কর্তব্যরত রেফারি। বার্সা কোচ বলেন,‘ আমাদের একটি পেনাল্টি চুরি হয়ে গেছে। হ্যান্ডবল সত্বেও তারা (রেফারি) কেন পেনাল্টির বাঁশি বাজালোনা তা আমি জানিনা। বিষয়টি আমার কাছে অবিশ^াস্য মনে হয়েছে।’ এদিকে আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার জন্য জুভেন্টাসের জন্য সেরা উপায় হচ্ছে ইউরোপা লিগ। কারণ দলবদলে অনিয়মের শাস্তি হিসেবে তাদের ১৫ পয়েন্ট কেটে নিয়েছে ইতালীয় ফুটবল ফেডারেশন। ফলে সিরি এ’ লিগের শীর্ষ চারটি দলের সঙ্গে ১২ পয়েন্টের ব্যবধান রচিত হয় জুভেন্টাসের। এখন ওই ঘাটতি কাটিয়ে লিগে শীর্ষস্থানীয় দলগুলোর কাতারে পৌঁছানো অনেকটাই কঠিন হয়ে পড়েছে জুভদের জন্য। গত বৃহস্পতিবার ইউরোপা লিগের প্লে অফে ফরাসি ক্লাব নঁতের বিপক্ষে সহজ একটি জয়ের প্রত্যাশা করেছিল জুভেন্টাস। তবে ম্যাচটি শেষ হয়েছে ১-১ গোলের সমতায়। ম্যাচের ১৩ মিনিটে ডুসান ভøাহোভিচের গোলে এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। তবে ম্যাচের বয়স ঘন্টার কোটায় পৌছানোর সঙ্গে সঙ্গে গোলটি পরিশোধ করে ফ্রেঞ্চ কাপ বিজয়ী নঁতে। ৬০ মিনিটে লুডোভিক ব্লাসের গোলে সমতায় ফিরে ফরাসি ক্লাবটি। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ইউরোপা প্লে অফের অন্য ম্যাচে রেড বুল ১-০ গোলে রোমা, শাখতার দোনেৎস্ক ২-১ গোলে রেনে, মোনাকো ৩-২ গোলে বায়ার লেভারকুজেন এবং সেভিয়া ৩-০ গোলে পিএসভি আইন্দোভেনের বিপক্ষে জয় পেয়েছে।