June 29, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, May 17th, 2022, 9:19 pm

কুলাউড়ায় জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে ২০ লাখ টাকার চেক বিতরণ

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার :

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত রোগীদের মাঝে চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ও মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের বরাদ্দকৃত আর্থিক সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে। ১৭ মে মঙ্গলবার বিকেলে কুলাউড়া উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ৪০ জন রোগীর মাঝে ৫০ হাজার টাকা করে ২০ লাখ টাকার চেক বিতরন করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে চেক বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ একেএম সফি আহমদ সলমান। এসময় তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশের মানুষের ভাগ্যের আমূল পরিবর্তন হয়েছে। দেশের বৈপ্লবিক উন্নয়ন হচ্ছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে যার সুফল মানুষ ভোগ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায় মানুষের কল্যাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্তদের সু-চিকিৎসার জন্য কুলাউড়ার ৪০ জন রোগীর মাঝে চিকিৎসা ব্যয় হিসেবে সহায়তার চেক বিতরণ করা হচ্ছে। সরকারি সফরে জার্মানিতে অবস্থানরত এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের নির্দেশে আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে অসহায় রোগীদের মাঝে এ চেক বিতরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সাখাওয়াত আহমেদ, উপজেলা হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মখদ্দছ আলী, সিনিয়র সাংবাদিক এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, এমপির প্রতিনিধি হোসেন মনসুর উদ্দিন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন আরব-আমিরাতের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. সাহেদ নুর, কুলাউড়া সাংবাদিক সমিতির সম্পাদক সাইদুল হাসান সিপন, কালের কণ্ঠ প্রতিনিধি মাহফুজ শাকিল, এমপির বিশেষ সহকারী শেখ রুহেল আহমদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ছয়ফুর রহমান ছয়ফুল, কাদিপুর যুব সমাজের বোর্ড চেয়ারম্যান নাহিদ চৌধুরীসহ উপকারভোগীরা ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী বলেন, উপজেলার আবেদনকারী রোগীদের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে প্রকৃত রোগীর মধ্যে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ চেক বিতরণ করা হয়েছে। ক্যান্সার, কিডনী, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ ও থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত উপজেলার ৪০ জন রোগীর প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকার এককালীন আর্থিক অনুদানের মোট ২০ লাখ টাকার চেক বিতরণ করা হয়। পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে আরো জটিল রোগীদের মাঝে এই সহায়তা প্রদান করা হবে।