April 13, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, March 12th, 2023, 7:43 pm

কুড়িগ্রামে ‘ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ’ করায় সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রতীকী ছবি

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ‘ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ’ করার জেরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অভিযুক্ত তরুণ ও ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবাসহ ১০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

আহতরা ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

শনিবার (১১ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের রাবাইটারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত রনি মিয়া (২০) দীর্ঘদিন ধরে একই এলাকার ৯ম শ্রেণির এক হিন্দু শিক্ষার্থীকে বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসার সময় ফুল ও চিঠিপত্র দিতেন এবং বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ কথা বলতেন। ৯ম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী এর প্রতিবাদ করে তার বাবাকে জানালে বিষয়টি মেয়েটির বাবা অভিযুক্ত ছেলের বাবা মো. হাছেন আলীকে জানান। এতে রনি ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার বিকালে প্রাইভেটে যাওয়ার সময় ওই শিক্ষার্থীর হাত জোরপূর্বক ধরে তাকে পাশের একটি বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

মেয়েটির চিৎকারে তার জ্যাঠাত ভাই সুবাশিষ চন্দ্র ঘটনাস্থলে এসে এর প্রতিবাদ করায় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে উভয়পক্ষের বাবা, ভাই ও নিকট আত্মীয়সহ ১০ জন গুরুতর আহত হন।

আহতরা বর্তমানে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত।

প্রতিবাদকারী মেয়েটির ভাই সুবাশিষ চন্দ্র সরকার বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমার বোনকে অভিযুক্ত রনি প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে বিরক্ত করে আসছিল। আমরা দুইদিন আগে তাকে শাসন করার জন্য তার বাবাকে বিচার দিয়েছিলাম। সেই জেরে শনিবার সন্ধ্যার দিকে আমাদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আমরা এর সঠিক বিচার চাই।

অভিযুক্ত রনি গুরুতর অসুস্থ থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

তবে রনির মা নাজমা বেগম মুঠোফোনে বলেন, আমার ছেলে ছাত্র মানুষ। এবার এইচএসসি পরীক্ষা দেবে। ওই মেয়ের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই। তারাই শনিবার বিকালের দিক ফোনে ডেকে নিয়ে রড দিয়ে আমার ছেলের মাথায় মারে, সে হাসপাতালে ভর্তি। আমি বাধা দিতে গেছি আমাকেও মারছে। আমরা এর বিচার চাই।

ভাঙ্গামোড় ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি চেয়ারম্যান মো. আলী শেখ বলেন, ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি। আমরা বিষয়টি দেখছি।

ফুলবাড়ী উপজেলা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অনিল চন্দ্র বলেন, আসলে বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর। দুই সম্প্রদায়ের দুইটি পরিবারের মধ্যে এরকম সংঘর্ষের ঘটনা দুঃখজনক। আমরা বিষয়টি থানাকে অবহিত করেছি।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

—-ইউএনবি