December 2, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, August 16th, 2021, 8:29 pm

ক্রিকেটারদের জন্য বিসিবির পরামর্শ

অনলাইন ডেস্ক :

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজ শেষ হওয়ার পরদিন থেকেই মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে নিয়মিত মুখ মুশফিকুর রহিম। সিরিজটি খেলতে না পারা অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেটে ঘাম ঝরিয়ে যাচ্ছেন নিয়মিত। মিরপুরে অনুশীলন করছেন লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, শামীম হোসেন, ইবাদত হোসেনরাও। জাতীয় ক্রিকেটারদের অনেকেই এই সময়টায় ছুটি কাটাচ্ছেন ঢাকার বাইরে। যারা মাঠে আসছেন কিংবা যারা মাঠ থেকে দূরে, সবাই জন্যই বিসিবির পরামর্শ, কোভিডের ঝুঁকি এড়াতে চলতে হবে জনসমাগম এড়িয়ে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজ শেষ হয়েছে গত ৯ অগাস্ট। টানা জৈব-সুরক্ষা বলয়ে থাকার মানসিক ধকল এড়াতে এরপর ক্রিকেটারদের ছুটি দিয়েছে বিসিবি। মাঠে যারা আসছেন, তারা নিজ দায়িত্বেই অনুশীলন করছেন। অনেকেই এই অবসরে ছুটে গেছেন ঢাকার বাইরে পরিবারের কাছে। তবে আরেকটি সিরিজ যেহেতু খুব কাছেই, ক্রিকেটারদের তাই বাঁধনহারা হতে দিচ্ছে না বিসিবি। আগামী ২৪ অগাস্ট ঢাকায় আসার কথা নিউ জিল্যান্ড দলের। একই দিনে টিম হোটেলে সুরক্ষা-বলয়ে ঢুকবে বাংলাদেশ দলও। তার আগে ক্রিকেটারদের সতর্ক থাকার বার্তা দেওয়া হয়েছে, সোমবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বললেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরি। “আমাদের ক্রিকেটারদের ব্যাপারে আমাদের মেডিকেল ডিপার্টমেন্ট ও ক্রিকেট অপারেশন্স ডিপার্টমেন্ট কাজ করছে। পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট অন্য বিভাগগুলিও কাজ করছে। বায়ো-বাবল তৈরি হলেই ক্রিকেটাররা সেখানে ঢুকবেন এবং ইতিমধ্যেই তাদেরকে বলে দেওয়া হয়েছে কী করা যাবে, কী যাবে না।” “তারা কেমন ধরনের বিধি-নিষেধ মেনে চলবেন, তা জানানো হয়েছে। মুভমেন্ট যতটুকু সম্ভব সীমাবদ্ধ রাখা যায়, তা রাখতে বলা হয়েছে তাদের এবং পারিবারিক আবহের মধ্যেই চলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। তারা যেন লোকজনের সংস্পর্শ নূন্যতম রেখে চলাচল করেন, সেটা বলা হয়েছে এবং কোনো অনুষ্ঠান বা জনসমাগমে যোগ দিতে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে।” বাংলাদেশ সফরে মূল সিরিজের আগে ২৯ অগাস্ট একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা ছিল নিউ জিল্যান্ড দলের। তবে চলাফেরা সীমিত রাখার জন্য বিকেএসপিতে গিয়ে কিউইরা ম্যাচটি খেলতে রাজি নয়। প্রস্তুতি ম্যাচটি তাই হচ্ছে না বলে জানালেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী। “আমাদের দল যখন কোনো সফরে চায়, আমাদের চাওয়া থাকে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা ও অনুশীলনের সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যেন কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া যায়। আমরাও তাদেরকে প্রস্তাব দিয়েচিলাম। তবে যেহেতু বাড়তি সুরক্ষা-বলয়ের ব্যাপার আছে, আরেকটা ভেন্যুত সুরক্ষা-বলয় করতে হবে, তারা এই ব্যাপারগুলোকে নিরুৎসাহিত করছে। তারা চাচ্ছে মুভমেন্ট যত কম করা যায়।” অস্ট্রেলিয়া সিরিজের ম্যাচগুলি সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হলেও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের ম্যাচগুলি বিকেল ৪টায় শুরু হবে বলে জানালেন প্রধান নির্বাহী। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ শুরু ১ সেপ্টেম্বর।