June 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, October 15th, 2023, 12:15 pm

গঙ্গাচড়ায় অক্সিজেন রোডের পর এবার মেডিসিন রোড

জেলা প্রতিনিধি, রংপুর (গঙ্গাচড়া) :

রংপুরে গঙ্গাচড়ায় অক্সিজেন রোডের পর এবার মেডিসিন রোড করা হলো। ব্যাতিক্রম এ নামের কারণে সাধারণ মানুষ গাছ রোপনে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এসিল্যান্ড এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে। “নিরাপদ পরিবেশে সুস্থ্য জীবনে বাঁচতে চাই, দূষণমুক্ত অক্সিজেন গ্রহন করি সবুজ বনায়নে দেশ গড়ি” এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে ও ‘প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা এক ইঞ্চি জমিও যেন খালি না থাকে’ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা বাস্তবায়নে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ তামান্না ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার সাহার যৌথ পরিকল্পনায় রাস্তা-ঘাটসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফলজ, বনজ ও ওষুধী চারা গাছ রোপনের উদ্যোগ গ্রহন করেন। পরিকল্পনা মোতাবেক উপজেলার সকল ইউনিয়নের একটি রাস্তায় চারা গাছ রোপন করে এ ব্যাতিক্রম নাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। যাতে মানুষ অপ্রয়োজনে নির্বিচারে গাছ ধ্বংস না করে এবং গাছের গুনগুন সম্পর্কে জানতে পারে ও গাছের যত্ন করে।

এমন পরিবেশ বান্ধব উদ্যোগ বাস্তবায়ন শুরু করে কোলকোন্দ ইউনিয়নের ঘোনটারী যাওয়ার পথ ৭ ও ৮ নং ওয়ার্ডের সীমানার আঁকা-বাঁকা রাস্তায় ফলজ, বনজ ও ওষুধী চারা গাছ রোপন করে। এ রোডের নাম দেওয়া হয় অক্সিজেন রোড। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার (১৪ অক্টোবর) নোহালী ইউনিয়নের কচুয়া আবাসন কাচারিপাড়া হতে ইউনিয়ন পরিষদ যাওয়া সবুজ খেতের মাঝে আঁকা-বাঁকা রাস্তায় ওষুধী চারা গাছ রোপন করা হয়। এর রাস্তার নাম দেওয়া হয় মেডিসিন রোড। এলাকার জনপ্রতিনিধিসহ সব বয়সের মানুষ একটি করে গাছ রোপন করে। এ তারা ব্যাতিক্রম নামের কারণ জানতে চাইলে সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার সাহা সুন্দরভাবে তাদেরকে বুজিয়ে বলেন।

এলাকার মানুষজন আনন্দিত হয়ে গাছ রক্ষণাবেক্ষণ করবেন এবং নিজেরা লাগাবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার সাহা, নোহালী ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফ আলী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজমুল হক সুরুজ, ইউপি ৩ ও ৪ নং ওয়ার্ড সদস্য, হাঙ্গার প্রজেক্ট ইউনিয়ন সমন্বয়কারী চন্দ্র শেখরসহ নানা বয়সের মানুষ গাছ রোপনে অংশ নেন। ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, একটি ব্যাতিক্রম নামে গাছের গুরুত্ব কতটা তা মানুষকে সহজে বুজানো যায়। সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার সাহা বলেন, গাছ লাগাই পরিবেশ বাঁচাই, নিরাপদ অক্সিজেন নেই, ওষুধী গাছের সুফল নেই সুস্থ্য জীবনে বাঁচতে চাই। এ সকল বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে ও প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা এক ইঞ্চি জমি খালি না থাকে তা বাস্তবায়নে এ উদ্যোগ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ তামান্না বলেন, গাছ কাটার আগে মানুষ যেন বুজতে পারে গাছের উপকারিতা সম্পর্কে। তাহলে সে গাছ কাটার আগে একটা লাগিয়ে কাটবে। এছাড়া মানুষের জীবন মান উন্নয়নে সরকার নানা পদক্ষেপ নিয়ে কাজ করছে। তার মধ্যে এটি একটি। এই উদ্যোগটা কাজে লাগাতে পারলে একটি মানুষ সুস্থ্য জীবন নিয়ে যেমন বাঁচতে পারবে তেমনি অর্থনৈতিভাবে লাভবান হবে।