October 2, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, September 8th, 2022, 9:47 pm

গঙ্গাচড়ায় বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, পুলিশ সাংবাদিকসহ আহত অর্ধশতাধিকের বেশী, আটক ৬

গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধিঃ
রংপুরের গঙ্গাচড়ায় বিএনপি’র বিক্ষোভ মিছিলকে কেন্দ্র করে পুলিশ-বিএনপি’র নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওসিসহ ২৪ জন পুলিশ সদস্য ও সাংবাদিকসহ অর্ধ শতাধিকের বেশী মানুষ আহত হয়েছেন। আহতদের গঙ্গাচড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। আবার অনেকে জরুরী বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে গঙ্গাচড়া বাজার এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, গুম, খুন ও দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার গঙ্গাচড়ায় বিক্ষোভ কর্মসূচীর ডাক দেয় বিএনপি। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পুরাতন সোনালী ব্যাংক মোড় এলাকায় জড়ো হতে থাকে দলীয় নেতাকর্মীরা। এরপর বিকেল সাড়ে ৪টার পর বিএনপি নেতাকর্মীরা পুরাতন সোনালী ব্যাংক মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে গঙ্গাচড়া বাজারের দিকে যেতে চাইলে পুলিশ বাঁধা দেয়। পুলিশের বাঁধা উপেক্ষা করে বিএনপি নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে এগিয়ে গেলে সংঘর্ষ বেধে যায়। বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। পরে পুলিশ পিছু হটলে বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে ডাক বাংলোর সামনে দলীয় কার্যালয়ের দিকে যায়। অপর দিকে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা জনতা ব্যাংকের দিক থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে দলীয় কার্যালয়ের দিকে যেতে থাকে এবং কিছু নেতাকর্মী জিরো পয়েন্ট জিগাতলায় এলোমেলো ঘুরাফেরা করে। এ সময় পুলিশ শহিদ মিনারে দিক থেকে এগিয়ে গেলে পুলিশকে লক্ষ করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশ রাবার বুলেট ছুড়ে। পরে বিএনপি, ছাত্রদল ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল এলোমেলো ছুড়তে থাকে এবং পুলিশও রাবার বুলেট ছুড়তে থাকে। এতে বাজারে দোকানপাটের ঝাপ ফেলায় দিয়ে ভিতরে থাকে ব্যাবসায়ীরা আর বাজারে আসা মানুষজন দিক বেদিক ছুটাছুটি করতে থাকে। বিএনপি নেতাকর্মীদের ইটপাটকেলের আঘাতে গঙ্গাচড়া থানার ওসি দুলাল হোসেনসহ ২৪ পুলিশ সদস্য ও বিএনপির ইটপাটকেল এবং পুলিশের রাবার বুলেটের আঘাতে ৪ সাংবাদিকসহ ব্যবসায়ী, নেতাকর্মী, পথচারী মিলে প্রায় ৪০ জন আহত হয়। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ারসেল মেরে আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় পুলিশ ৬ জনকে আটক করে।
রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) হোসাইন রায়হান বলেন, বর্তমানে গঙ্গাচড়ার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। গঙ্গাচড়া বাজার এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। গঙ্গাচড়া থানার ওসিসহ আহত পুলিশ সদস্যদের কারো মাথা ফেটে গেছে, কারও হাত-পা কেটে গেছে। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ বিষয়ে সিনিয়র কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা স্বাপেক্ষে পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।