December 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, November 15th, 2022, 7:35 pm

ঘরে বসে বিশ্বকাপ দেখতে হবে রামোসকে

অনলাইন ডেস্ক :

এক বছরের বেশি সময় ধরে জাতীয় দলের বাইরে থাকলেও বিশ্বকাপ খেলার আশায় ছিলেন সের্হিও রামোস। ক্লাব ফুটবলে আবার ছন্দে ফেরার কারণেই মূলত জেগেছিল আশা। শেষ পর্যন্ত তা না হওয়ায় ভীষণ হতাশ এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার। রিয়াল মাদ্রিদ অধ্যায়ের শেষ মৌসুমে চোটের কারণে অনেকটা সময় বাইরে ছিলেন রামোস। তখন ছন্দ পেতেও ভুগতে হয় তাকে। ফলে গত বছর ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের দল থেকে বাদ পড়েন তিনি এবং এরপর আর জাতীয় দলে ডাক পাননি রামোস। স্পেনের ২০১০ বিশ্বকাপ এবং ২০০৮ ও ২০১২ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ী দলের সদস্য রামোস জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ খেলেছেন ১৮০টি। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ দলেও গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন তিনি। স্পেনের হয়ে রামোস সবশেষ খেলেছেন গত বছরের মার্চে, কসোভোর বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে। কাতার বিশ্বকাপের জন্য স্পেনের ৫৫ সদস্যের প্রাথমিক দলে ছিলেন ৩৬ বছর বয়সী রামোস। তবে গত শনিবার লুইস এনরিকের ঘোষিত ২৬ জনের চূড়ান্ত স্কোয়াডে জায়গা হয়নি তার। ইনস্টাগ্রামে সোমবার বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ার হতাশা তুলে ধরেন রামোস। “বিশ্বকাপ? নিঃসন্দেহে বড় স্বপ্নগুলোর একটি ছিল, যা আমি পূরণ করতে চেয়েছিলাম। এবার আমার পঞ্চম বিশ্বকাপ খেলা হতো, কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত এখন ঘরে বসে দেখতে হবে।” “এটা মেনে নেওয়া কঠিন, তবে এরপরও সকালে সূর্য উঠবে। আমি নিজের সম্পর্কে কিছুই পরিবর্তন করব না। আমার মানসিকতা নয়, খেলাটির প্রতি আবেগও নয়। ফুটবলে আমার নিবেদন, প্রচেষ্টা এবং নিজেকে উজাড় করে দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো পরিবর্তন আসবে না।” রিয়ালে শেষ মৌসুমে চোটের সঙ্গে লড়াইয়ের পর ২০২১ সালের গ্রীষ্মে পিএসজিতে যোগ দেন রামোস। প্যারিসেও প্রথম মৌসুমে তাকে চোটে ভুগতে হয় অনেক। তবে চলতি মৌসুমে বেশ ছন্দে আছেন তিনি। বললেন, আবার আগের মতো ফুটবল উপভোগ করছেন তিনি। “সেরে উঠতে এবং (ফুটবলে) আগের মতো অবস্থায় ফিরতে আমি নিজেকে, আমার শরীর ও মনকে উজাড় করে দিয়েছি।.. সৌভাগ্যবশত, আমি এখন বলতে পারি, এই মৌসুমে আমি আবার নিজেকে আগের মতো অনুভব করছি এবং ফুটবল উপভোগ করছি।” আগামী রোববার শুরু হবে কাতার বিশ্বকাপ। ‘ই’ গ্রুপে স্পেনের তিন প্রতিপক্ষ সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি, কোস্টা রিকা ও জাপান। আগামী (২৩ নভেম্বর) কোস্টা রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে স্পেনের বিশ্বকাপ অভিযান। এর আগে আগামীকাল বৃহস্পতিবার প্রীতি ম্যাচে জর্ডানের বিপক্ষে খেলবে এনরিকের দল।