June 28, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, June 3rd, 2022, 9:00 pm

চলন্ত বাসে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা: বাসচালকসহ গ্রেপ্তার ২

চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলন্ত বাসে গার্মেন্টস তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় বাস চালকসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর চান্দগাঁও এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে বন্দর থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- বাসচালক মো. গিয়াস উদ্দিন নয়ন (২১) ও তার সহকারি সীমান্ত দত্ত (২২)।

বন্দর থানা পুলিশ জানায়, নগরীর বন্দর থানায় দায়ের হওয়া একটি ছিনতাই মামলায় চালক ও তার সহকারিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনার আগে একই বাসে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছিল।

বন্দর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কিশোর মজুমদার জানান, পলাশ কান্তি দে নামে এক ব্যক্তি বৃহস্পতিবার ছিনতাইয়ের অভিযোগে বন্দর থানায় একটি মামলা করেন। অভিযোগে বলা হয়, গত ২০ মে রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি ইপিজেড এলাকার বে শপিং সেন্টারের সামনে থেকে বাসে ওঠেন। নিমতলা বিশ্বরোডে বাস পৌঁছার পর তাকে নামিয়ে দেয়ার জন্য বললে চালক দ্রুতগতিতে বাসটি বড়পোলের দিকে নিয়ে যেতে থাকে। এ সময় তিনি চিৎকার করলে বাসে যাত্রীবেশে থাকা তিন জন তাকে ছুরিকাঘাত করে নগদ ১০ হাজার টাকা ও দুটি মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এরপর বাসটি সিটি গেট এলাকায় নিয়ে জোরপূর্বক পিন নম্বর নিয়ে তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে ৪০ হাজার ৮০০ টাকা তুলে নেয়। পরে রাত সাড়ে ৩টার দিকে লালখান বাজার এলাকায় ফ্লাইওভারে পলাশকে নামিয়ে দেয়া হয়। আহত পলাশ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে মামলা করেন।

তিনি বলেন, ‘নিমতলাসহ আশপাশের এলাকার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে আমরা দেখি, একই বাসে গার্মেন্টস ফেরত এক তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছিল।’

প্রসঙ্গত, গত ১৯ মে রাতে নগরীর বাকলিয়া থানার রাহাত্তারপুল এলাকা থেকে ২০ বছর বয়সী এক তরুণীকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। এ ঘটনার পরে পুলিশ অনুসন্ধানে নামে। পাঁচ দিন সংজ্ঞাহীন থাকার পর ২৪ মে তার জ্ঞান ফেরে। পরদিন ২৫ মে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তিনি নগরীর বাকলিয়া থানায় মামলা করেন।

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, গত ১৯ মে রাত ৯টার দিকে কারখানা ছুটি হলে তিনি বাসায় ফেরার জন্য একই কারখানার আরও ১০-১২ জন শ্রমিকের সঙ্গে বাসে ওঠেন। বাস বহদ্দারহাট এলাকায় পৌঁছার পর অন্য শ্রমিকরা দ্রুত নেমে যান। পেছনের আসন থেকে উঠে নামার জন্য এগিয়ে আসতে তাকে নিয়ে বাস দ্রুত রাহাত্তার পুলের দিকে চলে যায়। এসময় বাস চালাচ্ছিল সহকারী আর চালক তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তখন তরুণী নিজেকে বাঁচাতে চলন্ত বাস থেকে লাফিয়ে নিচে পড়ে গুরুতর আহত হন।

—ইউএনবি