January 19, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, December 19th, 2021, 7:31 pm

চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে মঙ্গলবার: পাপন

অনলাইন ডেস্ক :

হঠাৎই জরুরি সভা ডাকেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান। কোয়ারেন্টিনকে ঘিরে নিউজিল্যান্ডে অবস্থানরত বাংলাদেশ দলের ভেতরে যে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে, সেটি সমাধানের পথ খোঁজাই ছিল এই জরুরি সভার প্রধান আলোচ্য। আপাতত সিদ্ধান্ত হয়েছে, ২১ আগস্ট করোনা পরীক্ষার পর যদি অনুশীলনের সুযোগ না পান, তাহলে মমিনুল হকদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে বোর্ড। এর আগ পর্যন্ত সিরিজ বাতিলের কোনো অভিপ্রায় নেই বিসিবির। নিউজিল্যান্ডে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক। আলোচনার মাধ্যমে সেটি মমিনুলদের জন্য সাত দিনে নামিয়ে এনেছিল বিসিবি। কিন্তু সে দেশে পৌঁছনোর পর দলের স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ করোনা আক্রান্ত হওয়া এবং একজন সহযাত্রীর নমুনায় ওমিক্রন ভাইরাস চিহ্নিত হতেই রুটিন বদলে গেছে বাংলাদেশ দলের। সাত দিনের রেয়াত তুলে নিয়েছে নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগ। তাই ২১ তারিখ তৃতীয় করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ না আসা পর্যন্ত আবার ঘরবন্দি মমিনুলরা। এ অবস্থায় বাংলাদেশ দলে ছড়িয়ে পড়েছে বিষণœতার বীজ, সফর বাতিল করে দেশে ফিরে আসার পক্ষে মতও দিয়েছেন অনেকে। ক্রিকেটারদের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে বিচলিত বোর্ডও। রবিবারের সভা শেষে নাজমুল হাসানের বক্তব্যে তেমনই ইঙ্গিত, ‘আমাদের খেলোয়াড়রা খুব কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। ওরা টানা কোয়ারেন্টিনে আছে। সূচি অনুযায়ী যেদিন আসার (নিউজিল্যান্ড সফর শেষ করে) সেদিন এলেও বিপিএলের জন্য চার-পাঁচ দিন জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকতে হতো। এরপর বিপিএল শেষ হতেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোম সিরিজ। সেটা শেষ হওয়ার চার থেকে ছয় দিন পরই উড়াল দিতে হবে দক্ষিণ আফ্রিকায়। এটা ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত টানা চলবে। কোনো বিরতিই দেওয়া যাচ্ছে না। মানসিক ও শারীরিকভাবে তারা একেবারেই ক্লান্ত। অনেক খেলোয়াড় চিন্তা করছিল চলে (নিউজিল্যান্ড থেকে) আসা যায় কি না, সিরিজ বাদ দেওয়া যায় কি না। আসলে এটার কোনো সুযোগ নেই। যদি ২১ তারিখের পর আবার কোয়ারেন্টিন বাড়ানো হয়, তখন ওদের সঙ্গে আলোচনায় যেতে পারব।’ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের প্রথম টেস্ট শুরু হওয়ার কথা ১ জানুয়ারি। এর আগে নিজেদের মধ্যে একটি এবং স্থানীয় দলের মধ্যে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে মমিনুলদের। কিন্তু কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ বৃদ্ধির কারণে প্রস্তুতি ম্যাচের সংখ্যা যেমন কমতে পারে, তেমনি পিছিয়ে যেতে পারে টেস্টের সূচিও। এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি, ‘সিরিজ দুই-তিন দিন পিছিয়ে দিলে কিছু বলার নেই। তবে ওদের (নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট) বলে দিয়েছি, পর্যাপ্ত প্রস্তুতি ছাড়া আমাদের জন্য খেলা কঠিন।’ তবে এইসব সম্ভাবনাই নির্ভর করছে ২১ আগস্ট মমিনুলদের তৃতীয় করোনা টেস্টের ফলের ওপর।