October 2, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, September 7th, 2022, 7:46 pm

চেলসিকে হতাশ করে ডায়নামোর জয়

অনলাইন ডেস্ক :

ডায়নামো জাগ্রেবের কাছে হারের মধ্য দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শুরু করেছে চেলসি। মঙ্গলবার থমাস টাচেলের চেলসি ১-০ গোলে পরাজিত হয়েছে ক্রোয়েশিয়ান জাগ্রেবের কাছে। এর মাধ্যমে গ্যাবনিজ অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াংয়ের চেলসির জার্সি গায়ে অভিষেকটা স্মরণীয় হলোনা। গ্রুপ-ই’তে চেলসিকে পরের ম্যাচগুলোতে মোকাবেলা করতে হবে রেড বুল সালজবার্গ ও এসি মিলানের। অপেক্ষাকৃত সহজ গ্রুপে পড়লেও প্রথম ম্যাচেই হোঁচট খেয়ে টাচেলের দলকে এখন সতর্কতার সাথে পা ফেলতে হবে। জাগ্রেবের মাঠে মিসলাভ ওরসিচের ১৩ মিনিটের গোলে ব্লুজদের পরাজয় নিশ্চিত হয়। গত মৌসুমের শেষে নতুন খেলোয়াড় চুক্তিতে ২৫০ মিলিয়ন ইউরোর বেশী ব্যয় করে ফেলেছে চেলসি। বড় এই ব্যয়ে আদৌ চেলসির কোন লাভ হয়েছে কিনা তা নিয়ে টাচেল চাপে পড়তেই পারেন। প্রিমিয়ার লিগেও তেমন কোন পারফরমেন্স দেখাতে পারছে না দল। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় এনিয়ে টানা তিন পরাজয়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে ব্লুজরা। কাল ম্যাচ শেষে টাচেল বলেন, ‘এটা একেবারে নি¤œমানের পারফরমেন্স ছিল। সবসময়ই আমাদের গল্পটা একইরকম থেকে যাচ্ছে। ম্যাচের শুরুটা মোটামুটি হচ্ছে, কিন্তু শেষ পর্যন্ত সফল হতে পারছি না। প্রথম ২০ মিনিটেই আমরা হারের মুখ দেখে ফেলেছিলাম। এরপর কাউন্টার এ্যাটাক থেকে ম্যাচের সবচেয়ে সহজ সুযোগ হাতছাড়া করে আর তেমন কোন সুযোগ তৈরী করতে পারিনি।’
এই পরাজয়ে গ্রীষ্মকালীণ ট্রান্সফার উইন্ডোর শেষ দিনে বার্সেলোনা থেকে ১০.৩ মিলিয়ন ইউরোতে স্ট্যামফোর্ড ব্রীজে আসা অবামেয়াংয়ের জন্য অভিষেকটা সুখকর হলোনা। ৩৩ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার এবারের মৌসুমে বার্সেলোনা হয়ে মাত্র আট মিনিট খেলেছেন। গত রোববার প্রথমবারের মত তিনি চেলসির সাথে অনুশীলন শুরু করেন। ক্রোয়েশিয়ান শক্ত রক্ষনভাগের বিপরীতে অবামেয়াংকে খুব একটা স্বাচ্ছন্দ্যে খেলতে দেখা যায়নি।। টাচেল বলেন, ‘আমি আজ কোন ব্যক্তিগত পারফরমেন্সের কথা বলবো না। একটি দল হিসেবে খেলে আমরা পরাজিত হয়েছি। পুরো ম্যাচে অনেক কিছুই পর্যবেক্ষন করার প্রয়োজন আছে। আমিও এর একটি অংশ। আমরা কেউই স্পষ্টভাবে ম্যাচে ছিলাম না। আমাদের যেখানে থাকার প্রয়োজন ছিল কেউই সেখানে ছিলাম না। আমাদেরই এর সমাধাণ খুঁজে বের করতে হবে। এই মুহূর্তে সবকিছুরই অভাব রয়েছে।’ কেই হাভার্টজের লো ক্রসে অবামেয়াং প্রথম সুযোগটি হাতছাড়া করেন। পরের মিনিটেই রাহিম স্টার্লিংকে বল দিবেন নাকি নিজেই শট নিবেন এই সিদ্ধান্ত নিতে নিতেই জাগ্রেব রক্ষনভাগের বাঁধা পড়েন অবামেয়াং। ম্যাচের শুরুতে এমনই কিছু আক্রমণ চালিয়েছে চেলসি। কিন্তু ১৩ মিনিটে কাউন্টার এ্যাটাক থেকে এগিয়ে যায় জাগ্রেব। চেলসি রক্ষনভাগ সামলানোর দায়িত্বে ছিলেন ১০০ মিলিয়নের দুই খেলোয়াড় ওয়েসলি ফোফানা ও কালিদু কুলিবালি। কিন্তু ওরসিচকে আটকানোর ক্ষমতা তাদের ছিলনা। রবার্ট লুবিসিচের পাস থেকে ব্রুনো পেটকোভিচের হেডে ওরসিচের শট রক্ষা করতে পারেননি চেলসি গোলরক্ষক কেপা আরিজাবালাগা। মৌসুমের শুরুটা ভাল না হওয়ায় কাল নিয়মিত গোলরক্ষক এডুয়ার্ড মেন্ডির স্থানে মাঠে নেমেছিলেন আরিজাবালেগা। গোল পরিশোধে মরিয়া হয়ে ওঠা চেলসি এরপর একের পর এক আক্রমণ চালিয়েছে। রেসি জেমস ও বেন চিলওয়েল মাঝে মাঝে ফরোয়ার্ডদের ভাল কিছু বলও যোগান দিয়েছেন। বিরতির পর চিলওয়েলের পাস থেকে অবামেয়াং গোল করলেও অফসাইডের কারণে তা বাতিল হয়ে যায়। ২৫ গজ দূর থেকে স্টিফান রিস্টোভস্কির জোড়ালো শট দুর্দান্ত দক্ষতায় কেপা রুখে না দিলে তখনই হয়তো ব্যবধান দ্বিগুন করতে পারতো জাগ্রেব। ৫৯ মিনিটে অবামেয়াংয়ের স্থানে আরমান্ডো ব্রোয়াকে মাঠে নামান টাচেল। ম্যাচের শেষভাগে জেমসের শট পোস্টে লেগে ফেরত আসে। ম্যাসন মাউন্টের শট রুখে দেন জাগ্রেব গোলরক্ষক ডোমিনিক লিভাকোভিচ। এসব ঘটনা কাল চেলসিকে কোন সুখবর দিতে পারেনি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৪৩ ম্যাচে এনিয়ে মাত্র ষষ্ঠ জয় তুলে নিল জাগ্রেব।