June 25, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, May 8th, 2022, 7:45 pm

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের টিকেট পেল বার্সেলোনা

অনলাইন ডেস্ক :

বদলি নামার এক মিনিটের মাথায় গোল করলেন আনসু ফাতি। আগেভাগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার টিকেট নিশ্চিত করার সম্ভাবনা জাগাল বার্সেলোনা। কিন্তু শুরু থেকে উজ্জীবিত ফুটবল খেলা রিয়াল বেতিস ঘুরে দাঁড়াল দ্রুতই। তবে দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ের গোলে হোঁচটের শঙ্কা উড়িয়ে দিলেন জর্দি আলবা। সব চাওয়া পূরণের উচ্ছ্বাসে ভাসল শাভি এরনান্দেসের দল। লা লিগায় শনিবার রাতে প্রতিপক্ষের মাঠে ২-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। ৩৫ ম্যাচে ৬৯ পয়েন্ট নিয়ে নিশ্চিত করেছে আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা। শিরোপাশূন্য মৌসুমের শেষ পর্যায়ে এসে বার্সেলোনার লক্ষ্য দুটি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নিশ্চত করা আর চার দলের স্প্যানিশ সুপার কাপে জায়গা করে নেওয়া। প্রথমটির জন্য থাকতে হবে সেরা চারে, পরেরটির জন্য হতে হবে রানার্সআপ। বেতিসের বিপক্ষে জিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নিশ্চিত করে লা লিগায় সেরা দুইয়ে থাকার দিকে মনোযোগ দিতে চেয়েছিলেন শাভি। এই লক্ষ্য পূরণের জন্য মরিয়া চেষ্টার ছাপ শুরুর খেলায় রাখতে পারেনি বার্সেলোনা। প্রথমার্ধে বলের নিয়ন্ত্রণে তারা এগিয়ে থাকলেও আক্রমণে আধিপত্য করে বেতিস। ছয় শটের তিনটি লক্ষ্যে রাখতে পারে তারা। অন্যদিকে বার্সেলোনা তিন শটের দুটি ছিল লক্ষ্যে। দ্বাদশ মিনিটে ডান দিক থেকে উসমান দেম্বেলের ক্রসে গোলরক্ষক ফিস্ট করলেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। তবে বিপদে পড়েনি বেতিস। গোলমুখ থেকে দ্রুত ক্লিয়ার করেন আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার হেরমান পেস্সেইয়া। ২০তম মিনিটে রোনালদ আরাহোর জোরালো হেড বেতিসের বদলি গোলরক্ষক রুই সিলভার গ্লাভস হয়ে ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়। তিন মিনিট আগেই ক্লওদিও ব্রাভো চোট পেয়ে মাঠ ছাড়লে বদলি নামেন সিলভা। দশ মিনিট পর পোস্টের বাধায় এগিয়ে যাওয়া হয়নি বেতিসেরও। সের্হিও কানালাসের পাস ধরে বক্সের বাইরে থেকে গুইদো রদ্রিগেসের নেওয়া কোনাকুণি শট নেতোকে ফাঁকি দিলেও পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। দ্বিতীয়ার্ধেও একই ধারায় খেলতে থাকে বেতিস। ৬৫তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগও পেয়েছিল তারা। কিন্তু আলেক্স মরেনোর আড়াআড়ি ক্রসে হুয়ানমি ছয় গজ বক্সের ভেতর থেকে হাঁটু দিয়ে টোকা দেওয়ার পর আটকান নেতো। একটু পর হুয়ানমির নিচু শট ফিরিয়ে আবারও বার্সেলোনার ত্রাতা তিনি। ৭৩তম মিনিটে ছোট ডি বক্সের উপরের কোণায় বল পেয়ে যাওয়া ফেররান তরেসের জোরালো শট কর্নারের বিনিময়ে ফেরান বেতিস গোলরক্ষক। ৭৫তম মিনিটে তরেসের বদলি নামার এক মিনিটের মধ্যেই বার্সেলোনাকে এগিয়ে নেন ফাতি। সতীর্থের আড়াআড়ি ক্রস প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এই তরুণ ফরোয়ার্ডের ডান পায়ের নিখুঁত শট পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়ায়। সামনে থাকা তিন ডিফেন্ডার পারেননি প্রতিরোধের দেয়াল তুলতে। এতক্ষণ পোস্ট আগলে রাখা গোলরক্ষক সিলভাও বল আটকানোর কোনো সুযোগই পাননি। চোট জর্জর ক্যারিয়ারে গত জানুয়ারির পর দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন ফাতি। বার্সেলোনার এগিয়ে যাওয়ার আনন্দের স্থায়ীত্ব ছিল মাত্র তিন মিনিট। নাবিল ফেকিরের ফ্রি কিক থেকে হেডে বেতিসকে সমতায় ফেরান বার্সেলোনারই সাবেক ডিফেন্ডার মার্ক বাত্রা। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ড্রয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল ম্যাচ। যোগ করা সময়ে দানি আলভেসের ক্রসে দারুণ ভলিতে তা উড়িয়ে দেন আলবা। আগেই শিরোপা জেতা রিয়াল স্বাভাবিকভাবেই সবার ধরা ছোঁয়ার বাইরে। এই জয়ে রানার্সআপ হওয়ার পথে আরেকটু এগিয়ে গেল বার্সেলোনা। ৩৫ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে বেতিস। সেরা চারে থাকার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ সেভিয়া (৬৪) ও আতলেতিকো মাদ্রিদ (৬১)। এই দুই দল ১ ম্যাচ কম খেলেছে।