September 29, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, November 21st, 2021, 8:50 pm

জাতীয় সংসদের সামনে বিএনপির এমপিদের মানববন্ধন

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র চেয়ারপার্সন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে প্রেরণের দাবিতে রোববার সকালে জাতীয় সংসদ দক্ষিণ প্লাজা'র সামনে মানিক মিয়া এভিনিউ-তে ‘বিএনপি সংসদ সদস্যদের মানববন্ধন’ কর্মসূচি পালন করে।

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্যরা। রোববার (২১ নভেম্বর) সকালে তারা জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানান। তারা বলেন, ‘খালেদা জিয়ার ওপর বেআইনিভাবে জুলুম করা হচ্ছে। খালেদা জিয়ার শরীর ভালো নেই। তার যদি কিছু হয়, পুরো দায়ভার এই সরকারকে নিতে হবে।’ মানবন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের উকিল আবদুস সাত্তার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের হারুনুর রশীদ, বগুড়ার গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, বগুড়া-৪ আসনের মোশাররফ হোসেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের আমিনুল ইসলাম, বিএনপি মনোনীত সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা। মানববন্ধনে হারুনুর রশীদ বলেন, এই সরকার বেআইনিভাবে ৩০ জনের অধিক মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামির সাজা মওকুফ করেছে। সাবেক সেনা প্রধানের ভাইকে ৪০১ ধারার যেভাবে প্রতিপালন হওয়ার কথা ছিল, সেটি উপেক্ষা করে তাকে মুক্তি দিয়েছিল। আজকে বাংলাদেশে ইয়াবা স¤্রাট, মাদকপাচারকারী, টাকা পাচারকারীরা ক্ষমতার দাপটে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আর বেআইনিভাবে সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ওপর জুলুম অব্যাহত রেখেছে। বাংলাদেশে মানুষের মৌলিক অধিকার, সুশাসন, আইনের শাসন সাংঘাতিকভাবে অনুপস্থিত দাবি করে হারুনুর রশীদ বলেন, ‘নিন্দা জানানোর ভাষা নেই। সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে এক প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন; যা গোটা দেশবাসীর সামনে প্রচার হয়েছে। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) সুস্পষ্টভাবে বলেছেনÑ তাকে (খালেদা জিয়া) বাড়িতে থাকার যে সুযোগ দিয়েছি, এটিই যথেষ্ট। এটা কি প্রমাণ করে না, প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছার ওপর নির্ভর করছে বাইরে তার (খালেদা জিয়া) চিকিৎসা পাওয়া এবং না পাওয়া। যদি ৪০১ ধারা সঠিকভাবে (পরিপালন) হতো, তাহলে বেগম খালেদা জিয়া বহু আগেই বাইরে যাওয়ার চিকিৎসার সুযোগ পেতেন। তিনি খালেদা জিয়াকে বাংলাদেশে বিরোধী জনমতের একমাত্র শক্তি উল্লেখ করে বলেন, ‘এটি প্রধানমন্ত্রী ভালোভাবেই জানেনÑ তিনি মুক্তি পেলে সারা দেশের মানুষের মধ্যে নতুন উদ্দীপনা তৈরি হবে, এটি দমন করার জন্য তাকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। তার মুক্তির জন্য আমরা জাতীয়তাবাদী শক্তি ঐক্যবদ্ধ আছি। আমরা চাই অবিলম্বে বেগম জিয়াকে মুক্তি দেওয়া হোক, সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হোক।’ খালেদা জিয়ার শরীর ভালো নেই উল্লেখ করে সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেন, ‘সেই মানুষটিকে (খালেদা জিয়া) সরকার ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। গত ৩ বছর আগে যখন তাকে কারাগারে নেওয়া হয়, তিনি কিন্তু হেঁটে কারাগারে গিয়েছেন, তিনি সুস্থ ছিলেন। গত ৩ বছরে তিনি সরকারের হেফাজতে, এই সময়ে তার স্বাস্থ্যের অবনতি কি করে হলোÑ এ জবাব সরকারকে দিতে হবে। আমাদের সরকার দলের এমপিরা শোনায়, ওনার (খালেদা জিয়া) বেস্ট চিকিৎসা নাকি বাংলাদেশে হচ্ছে। বেস্ট চিকিৎসা বাংলাদেশে হওয়া সম্ভব হতো, তাহলে কেন অতি সাধারণ মানুষকে ভারতে চিকিৎসার জন্য ছুটে যাচ্ছে? খালেদা জিয়ার যদি কিছু হয়, পুরো দায়ভার এই সরকারকে নিতে হবে।