October 7, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, September 2nd, 2022, 8:50 pm

জাপানে ছোট দোকানগুলোতে ব্যবহার করা হচ্ছে বুদ্ধিমান রোবট

অনলাইন ডেস্ক :

জাপানে নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকানগুলোতে জনপ্রিয়তার ভিত্তিতে পণ্য সাজিয়ে রাখার জন্য রোবট ব্যবহার করা হয়েছে।

টোকিও শহরে অবস্থিত ফ্যামিলিমার্ট দোকানের তাপানুকূল তাকগুলোর সামনে-পেছনে চলাচল করতে টিএক্স স্কারা নামের এক রোবটকে দেখা যায়।

রোবটটির মূল কাজ হচ্ছে জনপ্রিয়তার ভিত্তিতে পানীয় তাকে সাজিয়ে রাখা। সহজভাবে বললে, একটি দোকানে কোন পানীয় বেশি চলছে তা সামনের দিকে রাখা। পাশাপাশি তাকের ফাঁকা স্থান পানীয় দিয়ে পুনরায় পূরণ করা।

টিএক্স স্কারার রয়েছে ক্লিপবিশিষ্ট বিশেষায়িত যান্ত্রিক হাত। সাজিয়ে রাখার বিষয়টি যথাযথ করতে রোবটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। একটি তাকের সামনে বা পাশের ফাঁকা যায় নড়াচড়া করে ক্যামেরার সাহায্যে রোবটটি পরখ করে নেয় কোন স্থানটি খালি এবং কোন পানীয় শেষের দিকে। এরপর যান্ত্রিক হাতের সাথে যুক্ত ক্লিপ ব্যবহার করে বোতল বা ক্যান ধরে ওই খালি স্থানে রেখে দেয়।

টিএক্স স্কারা জাপানের ‘কনবিনি’তে প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। কনবিনি হচ্ছে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা জলখাবার, পানীয় ও উপহার সামগ্রীর দোকান। যেগুলো মোটামুটি ২৪ ঘণ্টাই খোলা থাকে, আছে তিন হাজার ধরনের পণ্য। তবে এসব দোকানে রয়েছে তুলনামূলক কম কর্মচারী।

রোবট কেন প্রয়োজন হতে পারে পানীয় অংশের জন্য তা দোকানগুলো ঘুরে দেখলেই সহজে বুঝতে পারবে যে কেউ। পানীয় অংশ পুরোটাই তাপানুকূল। ফলে একজন মানুষের পক্ষে বারবার সেখানে যেয়ে প্রয়োজনমাফিক পণ্য সাজিয়ে রাখা কষ্টকর। তাছাড়া দোকানের অর্থ পরিশোধের জায়গা থেকে তা বেশ দূরেই হয়ে থাকে। তাই সহজ সমাধান যান্ত্রিক কিছু। এই চরিত্রে টিএক্স বেশ ভালোই খাপ খাইয়ে নিচ্ছে।

তবে রোবটটির মূল্য কত হতে পারে তা এখনও প্রকাশ করা হয়নি। একটি রোবট দিনে এক হাজার বোতল ও ক্যান সাজিয়ে রাখতে পারে। টিএক্স স্কারার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টোকিও ভিত্তিক টেলেক্সিস্টেন্স জানিয়েছে, ফাঁকা স্থান পূরণ ও জনপ্রিয়তার ভিত্তিতে সাজিয়ে রাখতে রোবটিতে যে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হয়েছে তার নাম গরডন।

টেলেক্সিস্টেন্সের প্রধান নির্বাহী জিন তোমিওকা বলেন, ‘আমরা মানুষের দ্বারা করা সমস্ত পুনরাবৃত্তিমূলক ও বিরক্তিকর কাজগুলোকে স্বয়ংক্রিয় করতে চাই। সেই দিকেই আমরা যাচ্ছি। আর সেটা করার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে রোবট ব্যবহার করা।’

জাপানে ফ্যামিলিমার্ট দোকান রয়েছে ১৬ হাজারটি। যার মধ্যে ৩০০ দোকানে টিএক্স স্কারা রোবট রাখা হয়েছে।