July 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, January 30th, 2024, 8:57 pm

জায়েদ খানের সঙ্গে প্যানেল সাজাতে চান না মিশা

অনলাইন ডেস্ক :

আবারও বাজছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ডামাডোল। আবারও নির্বাচনমুখী হয়ে যাচ্ছেন চলচ্চিত্রের শিল্পীরা। যদিও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনে চিত্রনায়ক জায়েদ খান ও চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের মধ্যকার সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে চলমান দ্বন্দ্ব এখনো সুরাহা হয়নি। এতদিন ধরে অবশ্য দায়িত্ব পালন করে এসেছেন নিপুণ আক্তারই। তবে সেটা সুরাহা না হলেও খুব দ্রুততম সময়েই ঘোষণা হবে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনী তফসিল। জানা যায়, ১ ফেব্রুয়ারি সমিতির বৈঠকে দিনই চূড়ান্ত হওয়ার কথা রয়েছে এবারের নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশন। এরইমধ্যে অভিনেতা মিশা সওদাগর জানালেন, শিল্পীরা চাইলে অবশ্যই নির্বাচনে অংশ নেবেন তিনি। সেই সঙ্গে জায়েদ খানের সঙ্গে প্যানেল না সাজানোর বিষয়টি নিশ্চিত করলেন এই অভিনেতা। শিল্পী সমিতির দায়িত্বে থেকে টানা ১৩ বছর কাজ করেছেন মিশা সওদাগর। এর মধ্যে অবশ্য টানা দুইবার ছিলেন সভাপতি। আর তাঁর প্যানেলের হয়ে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন জায়েদ খান।

তবে এবার জায়েদের সঙ্গে প্যানেল না সাজানো প্রসঙ্গে মিশা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘জায়েদ খান আমার ছোট ভাই। তার সঙ্গে দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন করেছি। আমি চাই, নতুন নেতৃত্ব আসুক। আমি যদি নির্বাচন করি তাহলে নতুন কারো সঙ্গে করব। আমি সলিড লোক, সলিড কথা বলতেই পছন্দ করি। তাই বলব, জায়েদ খানের সঙ্গে শিল্পী সমিতির নির্বাচন করার কোনো সম্ভাবনা আমার নেই। মিশা সওদাগর মনে করেন, জায়েদ খান এখন অনেক ব্যস্ত। ওর হাতে এখন অনেক কাজ। তাই ওর রেস্ট নেওয়া উচিত। কথা বলেন বর্তমানে শিল্পী সমিতি কার্যক্রম নিয়েও। বলেন, ‘সমিতির বর্তমান কমিটি কী করেছে সে আলোচনা-সমালোচনাতে যেতে চাই না। সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন আমার বড় ভাই আর নিপুণ আমার ছোট বোন। তাদের ছোট করতে চাই না। যা সম্ভব হয়েছে তারা তাদের মতো দায়িত্ব পালন করেছে। ভালো-খারাপ বলার মালিক সমিতির সদস্যরা। অনেকের সঙ্গে আমার কথাও হয়, সেই প্রেক্ষিতে বলছি, এর থেকে আরো বেটার পদক্ষেপ নেওয়ার অনেক জায়গা ছিল।’

এদিকে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে মিশা সওদাগরের ডজন খানেক সিনেমা। এর মধ্যে নির্মাতা বদিউল আলম খোকনের ‘আগুন’, শাহীন সুমনের ‘কুস্তিগির’ শুটিং শেষ করেছেন মিশা। এ ছাড়া দেবাশীস বিশ্বাসের ‘তুমি যেখানে আমি সেখানে’, মোহাম্মাদ ইকবালের ‘রিভেঞ্জ’, ‘ডেড বডি’, রায়হান খানের ‘পায়েল’, রোমানের ‘লিপস্টিক’, মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘ডার্ক ওয়ার’, হাসিবুর রেজা কল্লোলের ‘কবি’র শুটিং শুরু করেছেন। সর্বশেষ তিনি যুক্ত হয়েছেন সানী সানোয়ার পরিচালিত নতুন ছবি ‘এশা মার্ডার’, দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর ‘অপারেশন জ্যাকপট’ সিনেমায়।