November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, October 24th, 2022, 8:48 pm

‘জিনিয়াস’ তকমা পেতে পারেন হলান্ড

অনলাইন ডেস্ক :

আর্লিং হলান্ড ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে ‘গোল’ যেন হয়ে উঠেছে তার নামের প্রতিশব্দ। তিনি গোল না পেলে সেটাই বরং হয়ে দাঁড়ায় সংবাদের শিরোনাম! স্কোরিংয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে এবারই হয়ত ভেঙে দিবেন প্রিমিয়ার লিগে এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ড। দলটির কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা বিশ্বাস, এই কীর্তি গড়তে পারলে ‘জিনিয়াস’ তকমা পেয়ে যাবেন নরওয়ে স্ট্রাইকার। বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে আড়াই বছরের অধ্যায়ে ৮৯ ম্যাচে ৮৬ গোল করে গত গ্রীষ্মের দলবদলে সিটিতে যোগ দেন হলান্ড। জার্মান ক্লাবটিতে যে ছন্দে শেষ করেছিলেন, ঠিক সেই রূপেই যেন নতুন ঠিকানায় শুরু করেন তিনি। প্রিমিয়ার লিগে অভিষেক ম্যাচেই জোড়া গোল করার পর অল্প সময়েই হয়ে উঠেছেন দলের আক্রমণের মূল ভরসার নাম। প্রিমিয়ার লিগে ১১ ম্যাচে হলান্ড জালের দেখা পেয়েছেন ১৭ বার। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ১৫ ম্যাচে তার মোট গোল ২২টি। সবশেষ গত শনিবার ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিওনের বিপক্ষে দলের ৩-১ ব্যবধানে জয়ের ম্যাচে জোড়া গোল করেন হলান্ড। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ঘরের মাঠে টানা সাত ম্যাচে গোল করলেন হলান্ড। সিটির সবশেষ এই কীর্তি গড়েছিলেন সাবেক আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার সের্হিও আগুয়েরো, ২০১৭-১৮ মৌসুমে। হলান্ড যেভাবে ছুটছেন, তাতে ইংল্যান্ডের শীর্ষ লিগে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড এবারই ভেঙে দেওয়াটা স্বাভাবিক মনে হচ্ছে। প্রিমিয়ার লিগে এক মৌসুমে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ড যৌথভাবে অ্যালান শিয়েরার ও অ্যান্ডি কোলের দখলে, ৩৪ গোল। রেকর্ডটি ভেঙে দিতে হলান্ডের প্রয়োজন আর ‘মাত্র’ ১৮ গোল। গুয়ার্দিওল আশাবাদী, প্রিমিয়ার লিগে হলান্ড নিজের প্রথম মৌসুমেই দারুণ এই কীর্তি গড়তে পারবেন। স্প্যানিশ এই কোচ ২২ বছর বয়সী তারকার মাঝে দেখেন ইতিহাসের সেরা কয়েকজন গোলস্কোরারের ছায়া। “যদি সে এই ছন্দে গোল করতে থাকে, তাহলে সে জিনিয়াস হয়ে উঠবে। প্রতিটি ম্যাচে সে যে গড়ে গোল করছে, তাতে সে (এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের) রেকর্ড ভাঙতে চলেছে। তবে ফুটবলে একজন হয়ত এখন নিয়মিত গোল করছে, তারপর কয়েকদিন বাদে তার গোল পাওয়া বন্ধ হয়ে যেতে পারে।” “আমি যত স্ট্রাইকার দেখেছি, (সামুয়েল) এতো, (লিওনেল) মেসি, (রবের্ত) লেভানদোভস্কি, (টমাস) মুলার, (সের্হিও) আগুয়েরো; তাদের মধ্যে গোল, গোল এবং আরও বেশি গোল করার উচ্চাকাক্সক্ষা কাজ করে, বিষয়টা এমনই হতে হবে।” মাস কয়েক আগেও যেখানে ছিলেন ঘরের ছেলে, যেটা ছিল তার ঘরের মাঠ, এবার সেখানেই প্রতিপক্ষ হিসেবে যাচ্ছেন হলান্ড। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বের ফিরতি দেখায় মঙ্গলবার বরুশিয়ার মুখোমুখি হবে সিটি। সেপ্টেম্বরে প্রথম দেখায় বুন্ডেসলিগার ক্লাবটিকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল সিটি। ওই ম্যাচেও একটি গোল করেছিলেন হলান্ড। ‘জি’ গ্রুপ থেকে এরইমধ্যে শেষ ষোলো নিশ্চিত করা সিটি আসছে ম্যাচটি জিতলে হবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন।