December 3, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, October 17th, 2022, 9:07 pm

জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা

প্রতীকী ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশের ৫৭ জেলায় জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৯টা দুপুর ২টা পর্যন্ত একটানা শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদে-
ফরিদপুর: স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহাদাত হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মাদ হাবিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, চমশা প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহাদাত হোসেন ৬২৫ ভোট পেয়ে বেসরকারি নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের ফারুক হোসেন আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৫৪০ ভোট।
চুয়াডাঙ্গা: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মাহফুজুর রহমান মনজু নির্বাচিত হয়েছেন। মোটরসাইকেল প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৩১২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু পেয়েছেন ২৪৯ ভোট। এ ছাড়া বাংলাদেশ ইসলামি আন্দোলন মনোনীত মুফতি আবদুস সালাম পেয়েছেন ৩ ভোট।
রাজশাহী: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল নির্বাচিত হয়েছেন। কাপ-পিরিচ প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৫৯৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আক্তারুজ্জামান আক্তার পেয়েছেন ৫৬৬ ভোট। এছাড়াও বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার ইকবাল বাদল পেয়েছেন (তালগাছ) ৭ ভোট এবং আফজাল হোসেন (আনারস) ৪ ভোট পেয়েছেন।
খুলনা: খুলনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে শেখ হারুনুর রশিদ পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ছিলেন। শেখ হারুনুর রশীদ মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৫৩৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এম এম মোর্ত্তজা রশিদী দারা পেয়েছেন ৪০৩ ভোট।
পটুয়াখালী: আওয়ামী লীগের পদবঞ্চিত নেতা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট হাফিজুর রহমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ঘোড়া প্রতীকে ৫৮৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আওয়ামী লীগ মনোনীত আনারস প্রতীকের খলিলুর রহমান মোহন পেয়েছেন ৪৭১ ভোট।
পঞ্চগড়: স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল হান্নান শেখ চশমা প্রতীকে ২৮৪ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। আওয়ামী মনোনীত আবু তোয়বুর রহমান মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ২৩১ ভোট।
কিশোরগঞ্জ: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৯৫৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট মো. আশরাফ উদ্দিন পেয়েছেন ২৫৭ ভোট।
রাজবাড়ী: আওয়ামী লীগ প্রার্থী সফিকুল মোরশেদ আরুজ নির্বাচতি হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৪২৮ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী দীপক কুন্ডু পেয়েছেন ভোট ১৩৮।
সাতক্ষীরা: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নজরুল ইসলাম ৬০৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী খলিলুল্লাহ ঝড়ু পেয়েছেন ৪৫১ ভোট।
নীলফামারী: আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী সাবেক জেলা প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক নির্বাচিত হয়েছেন। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৫৩৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন মটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৩১৮ ভোট।
হবিগঞ্জ: টানা দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী। ৯৬১ ভোট পেয়ে তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী আবু নাইম মো. শিবলী খায়ের পেয়েছেন ৭৭ ভোট। অপর প্রার্থী অ্যাডভোকেট নুরুল হক পেয়েছেন ৪৩ ভোট।
ঝিনাইদহ: স্বতন্ত্র প্রার্থী হারুন অর রশিদ আনারস প্রতীকে ৪৭৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের কনক কান্তি দাস চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৪৬৩ ভোট।
গাইবান্ধা: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক তালগাছ প্রতীক ৫৮৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির আতাউর রহমান আতা পেয়েছেন (ঘোড়া প্রতীক) ৫২৩ ভোট।
মেহেরপুর: সাবেক ছাত্র নেতা অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম কাপ-পিরিচ প্রতীকে ১৭৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত গোলাম রসুল (আনারস) পেয়েছেন ১১৫ ভোট।
সুনামগঞ্জ: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খায়রুল কবির রুমেনকে হারিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থী নুরুল হুদা মুকুট। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী (ঘোড়া) খায়রুল কবির রুমেন পেয়েছেন ৬০৪। আর নির্বাচিত প্রার্থী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী নুরুল হুদা মুকুট মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৬১২ ভোট।
মানিকগঞ্জ: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন বিজয়ী হয়েছেন। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪৫২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী এম ফজলুল হক রিপন চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৪২৫ ভোট।
দিনাজপুর: জাতীয় পার্টির সভাপতি আলহাজ মো. দেলওয়ার হোসেন বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ১১৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকের প্রতীকের প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক তৈয়ব উদ্দিন চৌধুরী পেয়েছেন ২২৬ ভোট। এ ছাড়া আওয়ামী লীগ সমর্থীত চশমা প্রতীকের প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইমাম চৌধুরী পেয়েছেন ৭৮ ভোট।
নরসিংদী: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুল মতিন ভূইয়াকে হারিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনির হোসেন ভূইয়া বিজয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৬২২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদন্দ্বী প্রার্থী আবদুল মতিন ভূইয়া পেয়েছেন ৩৫০ ভোট।