May 29, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, March 12th, 2024, 8:38 pm

টাইব্রেকারে হেরে বাদ রোনালদোরা

অনলাইন ডেস্ক :

অদ্ভুত এক ম্যাচ কাটালেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। গোলকিপারের একদম সামনে থেকে সহজতম এক সুযোগ হাতছাড়া করলেন তিনি। ঠিক পরেই আবার গোল করে জাগিয়ে তুললেন জয়ের আশা। পরে টাইব্রেকারেও বল পাঠালেন জালে। কিন্তু ম্যাচ শেষে তার চোখের কোণে তবু জলের ফোটা। তার দলের জন্যও যে ম্যাচটি গেল একইরকম! খাদের কিনারা থেকে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ালেও শেষ রক্ষা হলো না আল নাসরের।

এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ক্লাব আল আইনের কাছে টাইব্রেকারে হেরে ছিটকে গেছে রোনালদোর আল নাস্র। শেষ আটের প্রথম লেগে ১-০ গোলে জিতে এগিয়ে থাকা আল আইন সোমবার দ্বিতীয় লেগে এক পর্যায়ে এগিয়ে যায় ২-০ গোলে। দুই লেগ মিলিয়ে তখন তারা ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে। কিন্তু সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে তিন গোল করে আল নাস্র। ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্তি সময়ে। সেখানে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন আল নাসরের আয়মান ইয়াহিয়া। ১০ জনের দলের বিপক্ষে আবার গোল করে এগিয়ে যায় আল আইন।

কিন্তু শেষ সময়ে গোল করেন রোনালদা। আল নাস্র ম্যাচ জিতে নেয় ৪-৩ ব্যবধানে, কিন্তু দুই লেগ মিলিয়ে লড়াই শেষ হয় ৪-৪ সমতায়। এরপর টাইব্রেকার। সেখানে রোনালদো ছাড়া গোল করতে পারেননি আল নাসরের আর কেউ। ৩-১ ব্যবধানে জিতে সেমি-ফাইনালে পা রাখে আল আইন। প্রথম লেগে যার গোলে জিতেছিল আল আইন, সেই সুফিয়ানে রাহিমি দ্বিতীয় লেগেও ছিলেন দলের নায়ক। ২৮ ও ৪৫তম মিনিটে দারুণ দুটি গোল করেন তিনি।

আল নাস্র তখন বিদায়ের দুয়ারে। প্রথমার্ধেই যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে আল আইন গোলকিপার খালিদ আইসার ভুলে আব্দুলরাহমান ঘারিব গোল করে আল নাস্রকে লড়াইয়ে ফেরান। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে আবার আইসার ভুল। এবার বক্সের ডান পাশ থেকে শট নেন আল নাস্রের ওতাভিও। সোজা আসা সেই বল ধরতে ব্যর্থ হন আইসা, তার পায়ে লেগে বল ঢুকে যায় জালে। আত্মঘাতী গোল হিসেবেই ধরা হয় সেটিকে। এরপরই রোনালদোর সেই সুবর্ণ সুযোগ। ৬১তম মিনিটে একটি বল ঠিকঠাক ধরতে পারেননি আল আইন গোলরক্ষক আইসা।

তার বুকে লেগে বল যায় ঠিক সামনেই দাঁড়িয়ে থাকা রোনালদোর কাছে। কিন্তু মাত্র তিন গজ দূর থেকে অবিশ্বাস্যভাবে বল বাইরে পাঠিয়ে দেন রোনালদো। ম্যাচে আরও কয়েকটি সুযোগ তিনি হাতছাড়া করেন। আল নাস্র অবশ্য হাল ছাড়েনি। ৭২তম মিনিটে অ্যালেক্স তেলিসের গোল ম্যাচে এগিয়ে নেয় তাদেরকে আর সমতায় ফেরায় দুই লেগ মিলিয়ে। এখানেও আল আইন গোলরক্ষকের ভুলের অবদান আছে। বক্সের একটু বাইরে ডানপাশ থেকে যে ফ্রি কিক নেন তেলিস, সেটিতে জোর ছিল না তেমন। কিন্তু ধরতে ব্যর্থ হন আইসা। তার সামনে পড়ে আঙুলে ছোঁয়ায় লেগে বল ঢুকে যায় জালে।

নির্ধারিত সময়ে আর গোল হয়নি। ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানে অষ্টম মিনিটে ভিএআর দেখে রেফারি লাল কার্ড দেখান আল নাসরের আয়মানকে। ১০ জনের আল নাস্র আবার আরেকটি ধাক্কা খায় গোলকিপারের ভুলে। বল ফিস্ট করে ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হন তিনি, পোস্টে লেগে ফেরত আসা বল কাছ থেকে আলতো টোকায় জালে জড়ান আল আইনের সুলতান আল-শামসি। ১০৬তম মিনিটে পরপর দুটি সুযোগ হাতছাড়া করেন রোনালদো। দারুণ এক পাস থেকে বল পেয়ে বক্সের ভেতর তিনি জোরাল শট নিলেও তা ফিরিয়ে দেন আল আইন গোলকিপার আইসা।

ফিরতি বলে আবার শট নেন রোনালদো। এবার সেই দুর্বল শট আটকে দেন আইসা। পরে রোনালদোকেই বক্সের ভেতর ফেলে দেওয়ায় পেনাল্টি পায় আল নাস্র। ১১৮তম মিনিটে গোল করতে ভুল করেননি তিনি। গোল করার পর সমর্থকদের দিকে হাতজোর করে ক্ষমা চাইতে দেখা যায় রোনালদোকে। হয়তো তার আগের সুযোগগুলো হাতছাড়া করার জন্য।

ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। মূল ম্যাচে একের পর এক ভুল করা আল আইনের গোলকিপার আইসা টাইব্রেকারে ঠেকিয়ে দেন আল নাসরের মার্সেলো ব্রজোভিচের শট। পরে রোনালদো গোল করলেও ব্যর্থ হন তেলিস ও ওতাভিও। আল আইনের কেউ বল জালে পাঠাতে ভুল করেননি। ২০১৬ সালের পর প্রথমবার সেমি-ফাইনালে ওঠে আল আইন। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ সৌদি আরবের আল হিলাল কিংবা আল ইত্তিহাদ। শেষ হয়ে যায় রোনালদোর এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগ স্বপ্ন।