October 5, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, January 30th, 2022, 7:30 pm

টাকার বিনিময়ে ভোট কেনা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মুনমুন

অনলাইন ডেস্ক :

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের দিনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল। ‘টাকা দিয়ে ভোট কিনছে জায়েদ’ শিরোনামের ভিডিওতে দেখা যায় অভিনেত্রী মুনমুনের হাতে একটি কাগজ ধরিয়ে দিচ্ছেন জায়েদ খান। দুজন অনেক্ষণ ধরে কথা বলেন। এমন সময় মুনমুনের কানে কানে কিছু একটা বলেন। আর মুনমুনও হাতের ব্যাগ খুলে ভেতরে কিছু একটা রাখেন। এই ভিডিও দেখে অনেকেই নির্বাচনের দিন অভিনেত্রী নিপুণের আনা অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পেয়েছেন। এ বিষয়ে কথা বলতে রোববার (২৮ জানুয়ারী) এক ফেসবুক লাইভে হাজির হয়েছিলেন মুনমুন। ‘নিষিদ্ধ নারী’খ্যাত অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি দুই টাকার শিল্পী নই যে আমার কাছে জায়েদ খান ভোট কিনতে আসবে। জায়েদ আমার ছোট ভাই, সে আমার কাছে টাকা দিয়ে ভোট কিনবে! ওর এত বড় সাহস হবে? রাস্তার মধ্যে টাকা দিয়ে আমাকে কিনবে, আর আমি সেই টাকার বিনিময়ে তাকে ভোট দিব! আমার নামে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। ’ লাইভে তিনি এই অপপ্রচার থামানোর অনুরোধ জানিয়েছেন সবার কাছে। ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে ক্যাপশন হিসেবে লেখা হচ্ছে, টাকা দিয়ে ভোট কিনছে জায়েদ। এই ভিডিও নিয়ে যেসব প্রশ্ন তোলা হয়েছে। তার প্রতিবাদ করেছেন অভিনেত্রী মুনমুন। ভিডিওতে যা দেখা গেছে তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে অভিনেত্রী বলেছেন, ‘আমি কালো জামা পরে গিয়েছিলাম। আমার হাতে ছিল কালো রঙের মাস্ক। জায়েদ আমার হাতে একটা পেপার দিয়েছিল। আমি সেটা দেখছিলাম। আর আমার হাতে যে কালো রঙের মাস্কটা ছিল সেটা আমি ব্যাগের চেইন খুলে ভেতরে রেখেছি। ও পেপারটা ধরে বললো, আপা এবার কিন্তু টিক চিহ্ন নাই এবার ছাপ দিতে হবে। আর এটাকেই বলা হচ্ছে আমি নাকি টাকা নিয়ে ভোট দিয়েছি। ’ মুনমুন আরো বলেন, ‘মালেক আফসারী ভাইও আমাকে জিজ্ঞেস করেছে, কানে কানে আপনাকে কি বললো জায়েদ? আমাকে কানে কানে জায়েদ বলেছে, ফুল প্যানেলে ভোট দিতে।’ এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জায়েদ খানের বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে ভোট কেনার অভিযোগ করেন একই পদের প্রার্থী নিপুণ আক্তার। নিপুণ সরাসরি জায়েদের মুখোমুখি হয়ে নির্বাচনের দিন অভিযোগ তোলেন। বিষয়টি নির্বাচন কমিশন পর্যন্তও গড়ায়। তবে এই অভিযোগ নিয়ে নির্বাচন কমিশনার কোনো কথা বলেনি। নির্বাচনে নিপুণকে পরাজিত করে জায়েদ খানই জয়ী হন। নিপুণ আপিল করলে পুনরায় ভোট গণনা হয়, সেখানেও জায়েদ খানই জয়ী হন।