December 1, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, August 8th, 2021, 8:07 pm

ডেঙ্গু নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত কর্মকর্তারা মাঠে থাকবে: মেয়র আতিক

রোববার সকালে রাজধানীর বেরাইদ এলাকায় এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধের লক্ষ্যে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত স্থানীয় কাউন্সিলরসহ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মাঠে সক্রিয় থাকবে বলে জানিয়েছেন মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

রবিবার সকালে রাজধানীর বেরাইদ এলাকায় এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধের লক্ষ্যে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ডিএনসিসির ৪২ নম্বর ওয়ার্ডে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগী চিহ্নিত হয়নি, তাই যেসব এলাকা এখনও ডেঙ্গুমুক্ত রয়েছে সেসব এলাকার কেউ যাতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত না হয় সেজন্য সকলের সহযোগিতায় প্রতিরোধমূলক কার্যক্রমকে আরও জোরদার করতে হবে।

তিনি বলেন, নিজেদের সুস্থতার জন্যই সুস্থ পরিবেশ নিশ্চিত করতে সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে ‘১০ টায় ১০ মিনিট প্রতি শনিবার, নিজ নিজ বাসাবাড়ি করি পরিষ্কার’ এই স্লোগানটিকে বাস্তবায়ন করতে হবে।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, নিজেদের বাসা বাড়িতে ফুলের টব, অব্যবহৃত টায়ার, ডাবের খোসা, চিপসের খোলা প্যাকেট, বিভিন্ন ধরনের খোলা পাত্র, ছাদ কিংবা অন্য কোথাও যাতে তিন দিনের বেশি পানি জমে না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি অব্যবহৃত এই জিনিসগুলো নিকটস্থ ওয়ার্ড কাউন্সিলরের অফিসে জমাদানকারীকে পুরস্কৃত করার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

মেয়র বলেন, ওয়ার্ড কাউন্সিলরের অফিসে জমা দেয়া প্রতিটি অব্যবহৃত কমোড ও টায়ারের জন্য ৫০ টাকা এবং প্রতিটি ডাবের খোসা, রংয়ের কৌটা ও চিপসের প্যাকেটের জন্য ৫ টাকা হারে আর্থিক পুরষ্কার প্রদান করা হবে।

আতিকুল ইসলাম যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলে পরিবেশকে দূষিত না করে নির্ধারিত স্থানে ময়লা-আবর্জনা রাখার জন্য নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত অনুসারে জানা যায় জনসচেতনতার কারণেই অন্যান্য এলাকার তুলনায় এখনও ডিএনসিসি এলাকায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা তূলনামূলক কম রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘মাস্ক আমার, সুরক্ষা সবার’, তাই করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধকল্পে আমাদের প্রত্যেককেই সঠিকভাবে মাস্ক পরিধানসহ সরকারি নির্দেশনা এবং স্বাস্থ্যবিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজা, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জোবায়দুর রহমান এবং স্থানীয় কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।