January 23, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, November 29th, 2021, 12:23 pm

ঢাকায় নতুন বিমানবন্দর হচ্ছে

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী জানিয়েছেন, ঢাকার আশপাশে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর’ নামে আন্তর্জাতিক মানের সর্বাধুনিক নতুন একটি বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।

রবিবার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চদশ অধিবেশনে এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য নুরুজ্জামান বিশ্বাসের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঈশ্বরদী বিমানবন্দর পুনরায় চালু করার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। উক্ত বিমানবন্দরের জন্য মোট ৪৩৬ দশমিক ৬৫ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে সেনাবাহিনীর কাছে ২৯০ দশমিক ৭৪ একর হস্তান্তর করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঈশ্বরদী বিমানবন্দরে মিলটারি ফার্মকে হস্তান্তর করা জমি, মিলটারি ফার্ম কর্তৃক দখল করা জমিসহ এ বিমানবন্দরের জন্য অধিকৃত জমি বেবিচকের অনুকূলে হস্তান্তরের পর বিমানবন্দরটি সংস্কার করে পুনরায় চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।

বরিশাল-৪ আসনের সংসদ পংকজ নাথের প্রশ্নের জবাবে বিমান প্রতিমন্ত্রী জানান, বরিশাল বিমানবন্দর ফ্লাইট পরিচালনার উপযোগী রয়েছে। এ বিমানবন্দরের রানওয়ে, ট্যাক্সিওয়ে, টার্মিনাল ভবন এবং ৫০ হাজার বর্গফুট অ্যাপ্রোনসহ অন্যান্য সুবিধা রয়েছে।

এ বিমানবন্দরের সেবার মান আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার জন্য বেবিচক বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। বিমানবন্দরটি আধুনিকায়নের জন্য বিস্তারিত সম্ভাব্যতা সমীক্ষা, ড্রইং-ডিজাইন, মাস্টার প্ল্যান ও ব্যয় প্রাক্কলন নির্ধারণের জন্য আন্তর্জাতিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ইয়োসিন হিরিম সম্ভাব্যতা সমীক্ষা সম্পাদন ও মাস্টারপ্ল্যান প্রস্তুতের কাজ শেষ হয়েছে।

যশোর-৩ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, যশোর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সাংসদ নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, নোয়াখালী বা লক্ষ্মীপুরের বিমানবন্দরর নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের আপতত নেই।

নওগাঁ-২ আসনের সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকারের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, এ বছরের নবেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ বিমানের বহরে যাত্রী পরিবহনের জন্য ২১টি উড়োজাহাজ রয়েছে।

এ সময় তিনি বিমানকে লাভজনক করার জন্য সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন।