June 13, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, March 31st, 2024, 8:20 pm

তুরস্কের স্থানীয় নির্বাচনে পরীক্ষায় এরদোয়ানের জনপ্রিয়তা

অনলাইন ডেস্ক :

তুরস্কে স্থানীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। রোববার (৩১ মার্চ) স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় (বাংলাদেশ সময় ১১টা) ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। জেলা ও পৌরসভা নির্বাচন হলেও এ ভোটাভুটিকে দেখা হচ্ছে দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের জন্য অগ্নিপরীক্ষা হিসেবে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

তবে তুরস্কের পূর্বাঞ্চলে ভোট শুরু হবে স্থানীয় সময় সকাল ৭টায়। প্রাথমিক ফলাফল রাত ১০টা নাগাদ পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই ভোটের মাধ্যমে নির্ধারণ হবে রাজধানী আঙ্কারা ও অর্থনৈতিক শহর ইস্তানবুলের নিয়ন্ত্রণ কার হাতে থাকবে। পাঁচ বছর আগে ২০১৯ সালে তার দল একে পার্টির হাতছাড়া হয়ে যায় শহর দুইটি। তখন অবশ্য তিনিই প্রেসিডেন্ট ছিলেন।

তারপরও ওই নির্বাচনে এরদোয়ানের প্রার্থী ও তৎকালীন মেয়র বিনালি ইলদিরিমকে হারিয়ে মেয়র হন বিরোধীদল রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) প্রার্থী একরাম ইমামোগলু। এবার দ্বিতীয় মেয়াদের প্রত্যাশী ইমামোগলুর বিরুদ্ধে লড়াই করছেন এরদোয়ানের দল একে পার্টির প্রার্থী সাবেক পরিবেশমন্ত্রী মুরাত কুরুম। গত বছর পার্লামেন্ট নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা তৃতীয় মেয়াদে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট হন এরদোয়ান।এবার তাই শহর দুটিতে জিতে প্রশাসনিক ক্ষমতা ফিরে পাওয়াই চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে এরদোয়ানের জন্য।

মেট্রোপলিটন পৌরসভা, শহর ও জেলা মেয়রের পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসক নির্বাচনে ভোট দিচ্ছেন প্রায় ৬ কোটি ১০ লাখ মানুষ। এদের মধ্যে ১০ লাখই প্রথমবার ভোট দিচ্ছেন। ভোট সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সারাদেশে কমপক্ষে ৫ লাখ ৯৪ হাজার নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন রয়েছে।

এক কোটি ৬০ লাখ জনসংখ্যার শহর ইস্তাম্বুলেই জন্মগ্রহণ ও বেড়ে উঠেছেন ৭০ বছর বয়সী এই তুর্কি নেতা। ১৯৯৪ সালে অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ শহরটির মেয়র নির্বাচিত হয়ে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছিলেন তিনি। আর এবারের নির্বাচনে শহর দুইটিতে একে পার্টি জিতলে বর্তমান মেয়াদ ২০২৮ সালের পরও, এরদোয়ান প্রেসিডেন্ট হিসেবে থাকার সুযোগ তৈরি করতে পারবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।