July 4, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, May 9th, 2022, 7:52 pm

দর্শক নেই আইপিএলে, ক্ষতিপূরণ চাইছে বিজ্ঞাপনদাতারা

অনলাইন ডেস্ক :

চলতি আইপিএলে পঞ্চদশ আসরে আগের তুলনায় বিজ্ঞাপনের খরচ হিসেবে বিজ্ঞাপনদাতারা ১৫ শতাংশ বেশি অর্থ দিচ্ছে বিসিসিআইকে। কিন্তু গতবারের থেকে প্রায় ৩৩ শতাংশ কমেছে এবারের দর্শক। আরো নির্দিষ্ট করে বলতে গেলে, আসরের প্রথম সপ্তাহ থেকেই টেলিভিশনের দর্শক সংখ্যা ক্রমশ কমছে। যে কারণে বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপনদাতা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে! এই আসর দিয়েই ‘স্টার’-এর সঙ্গে চুক্তি শেষ হচ্ছে বিসিসিআইয়ের। ২০২৩ সাল থেকে ২০২৭ সাল পর্যন্ত টুর্নামেন্টের নতুন টেলিভিশন স্বত্ব বিক্রয় করা হবে। তার আগে দর্শকসংখ্যা কমায় তার প্রভাব টেলিভিশন স্বত্বের অঙ্কের ওপর পড়তে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, দর্শক কমার প্রভাবে সম্প্রচার স্বত্বের অর্থমূল্য কমে যাবে না। তবে বিভিন্ন বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠান কড়া নজর রাখছে টুর্নামেন্টের ওপর। ‘দ্য প্রিন্ট’-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, গতবারের তুলনায় এবার বিজ্ঞাপনের খরচ বাবদ বিজ্ঞাপনদাতারা বিসিসিআইকে ১৫ শতাংশ বেশি টাকা দিচ্ছে। কিন্তু দর্শকসংখ্যা কমায় তারা মুষড়ে পড়েছে। বিসিসিআই অবশ্য দাবি করেছে, কভিড বিধি-নিষেধ উঠে যাওয়ার পরে পাব, রেস্তোরাঁ বা ক্লাবে অনেকে একসঙ্গে খেলা দেখছে। ফলে টেলিভিশনের দর্শকসংখ্যা কমছে। এ ছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা থাকায় একটা বড় অংশের দর্শক খেলা দেখতে পারছে না। এই পরিস্থিতিতে বিজ্ঞাপন দেওয়ার পদ্ধতিতেও বদল এসেছে। এখন টেলিভিশনের সঙ্গে ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও আইপিএল দেখা যায়। তরুণ প্রজন্ম সাধারণত টেলিভিশনের থেকে ওটিটির ওপরেই বেশি নির্ভরশীল। তাই যেসব বিজ্ঞাপনদাতার গ্রাহক তরুণরা, তারা টেলিভিশনের বদলে ওটিটিতে বিনিয়োগ করছে। আবার যেসব বিজ্ঞাপনদাতার গ্রাহক বয়স্করা, তারা টেলিভিশনেই বিজ্ঞাপন দিতে উৎসাহী। এবারের আইপিএলে ৮৪টি নতুন ব্র্যান্ড বিজ্ঞাপন দিচ্ছে। বেশির ভাগই ওটিটি প্ল্যাটফর্মে।