August 14, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, June 28th, 2022, 9:32 pm

দাগনভূঞায় সংগঠনকে গতিশীল ও শক্তিশালী করতে সক্রীয় স্থানীয় আ’লীগ

ইয়াছিন রনি, ফেনী :
করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির কারণে প্রায় দুই বছর সাংগঠনিক কার্যক্রম চালাতে পারেনি ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে দরজায় কড়া নাড়ছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনকে টার্গেট করে দাগনভূঞাতে নিজেদের অবস্থান আরো শক্তিশালী ও সু-সংগঠিত করার লক্ষে ওয়ার্ড পর্যায়ে দলীয় কার্যক্রমে সক্রিয়তা বাড়াচ্ছে উপজেলা আ’লীগ। ইতোমধ্যে উপজেলা আ’লীগের উদ্যোগে ইউনিয়ন ও পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বর্ধিত সভা করা হচ্ছে। বর্ধিত সভার মাধ্যমে তৃণমূল নেতাকর্মীদের বক্তব্য শুনছেন এবং আগামী সংসদ নির্বাচনে আ’লীগকে আবারো ক্ষমতায় আনার লক্ষ্যে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার জন্য তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান করেন উপজেলা আ’লীগ নেতৃবৃন্দ।

বর্ধিত সভায় তৃণমূল নেতাকর্মীরা দাবী তুলে বলেন, ফেনী ৩ আসনের মধ্যে দাগনভূঞা উপজেলা অবহেলীত । তার কারন হচ্ছে দাগনভূঞা উপজেলা থেকে এ আসনে কখনো কোন এমপি নির্বাচিত হয়নি। আমাদের অত্র আসনে জাতীয় পার্টির এমপি হওয়ায় আ’লীগ নেতাকর্মীরা এমপির পক্ষ থেকে কোনরকম সুযোগ সুবিধাও পায়না। তাই অত্র উপজেলাতে আ’লীগকে আরো সাংগঠনিকভাবে সক্রিয় ও শক্তিশালী করতে মহাজোটের কোন প্রার্থী না দিয়ে ফেনী-৩ আসনে প্রকৃতার্থে যিনি দলের জন্য নিবেদিত, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে, তৃণমূল নেতাদের মূল্যায়ন করে ও হাইব্রিডমুক্ত এমন নেতাকে আগামী সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক দেয়া হোক।

তৃণমূল আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, বর্তমানে চোখের সামনে বিরোধী দল নেই বলে আ’লীগের আজ জয়জকার। তবে প্রকৃতভাবে মন থেকে দল কে করে তা বুঝা যাবে আন্দোলন সংগ্রামে। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি জামায়াত দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য বিভিন্নভাবে ষডযন্ত্র চালাচ্ছে। তাদের এ ষডযন্ত্র রুখে দিতে হাইব্রিডমুক্ত তৃণমূল আ’লীগ গঠন আবশ্যক। তবেই তৃণমূল পর্যায়ে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী হবে আ’লীগ। আর এ জন্য দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে গণসম্পৃক্ততা ও গণসংযোগ বাড়াতে হবে। হতদরিদ্র মানুষের কাছে আমাদের (আওয়ামী লীগ) বাণী পৌঁছাতে হবে।

তারা বলেন, ‘আ’লীগ একটি অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে এ পর্যায়ে এসেছে। স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলন থেকে এ পর্যন্ত তৃণমূল নেতাকর্মীরা এই সংগঠনে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছে। আমরা চাই যে, একেবারেই তৃণমূলের কাছে আওয়ামী লীগটা ফিরে আসুক। আওয়ামী লীগের যারা গ্রামের সাধারণ কর্মী, যারা সমাজপ্রধান, অথবা তৃণমূলে ওয়ার্ড পর্যায়ে যারা নেতৃত্বে আছেন, তাদের সম্মান, মর্যাদাটুকু বাড়ুক।’ আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে দল গোছানো অতীব জরুরি। বিশেষ করে তৃণমূল সংগঠন শক্তিশালী করা দরকার। সেজন্য আ’লীগের পাশাপাশি সহযোগী সংগঠনগুলোরও সব ইউনিয়ন, ওয়ার্ডে গতিশীল নেতৃত্ব প্রয়োজন। আর সে লক্ষে দাগনভূঞা উপজেলা আ’লীগ কাজ শুরু করেছেন। তৃণমূল নেতাকর্মীদের কাছে গিয়ে তাদের অভিযোগ ও অভিমানের বিষয় জানার চেষ্ঠা করছেন।

দাগনভূঞা পৌর আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র ওমর ফারুক খাঁন বলেন, ‘আমাদের পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে সাংগঠনিক ইউনিটগুলো সবসময় সক্রিয় আছে। অতিতের যে কোন সময়ের চেয়ে দাগনভূঞা পৌরসভা আ’লীগ বর্তমানে অনেক সু-সংগঠিত। এবং আমরা প্রত্যেক ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে দলকে আরো সু-সংগঠিত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি।

দাগনভূঞা উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন মামুন বলেন, ফেনী জেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দীন হাজারী এমপির নেতৃত্বে দেশের অন্য যে কোন অঞ্চলের চেয়ে ফেনী জেলা আ’লীগ অনেক শক্তিশালী ও সু-সংগঠিত। ওনার নির্দেশনা মোতাবেক দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগ সদা প্রস্তুত একটি ইউনিট। সময়ের প্রয়োজনে যখন যে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগ তখনই তা করে আসছে। দাগনভূঞা উপজেলা আ’লীগ সব সময়ই তারুণ্যের মত সজীব ও প্রাণপ্রাচুর্যে ভরা। সব সময়ই চলমান প্রজন্মকে ধারণ করে দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগ অভীষ্ঠ লক্ষ্যে এগিয়ে চলছে।

এ বিষয়ে ফেনী জেলা আ’লীগের সদস্য ও দাগনভূঞা উপজেলা চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতন বলেন, ‘করোনার কারণে আমরা সাংগঠনিক কার্যক্রম যথারীতি চালাতে পারিনি। করোনা কমে আসার পর থেকে আমাদের কর্যক্রমও শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে দাগনভূঞায় আ’লীগের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌরসভা সন্মেলন শেষ হয়েছে। এবং দলকে আরো সু-সংগঠিত করতে আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আমরা দাগনভূঞা উপজেলার প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বর্ধিত সভার কাজ শুরু করেছে। অত্র সভার মাধ্যমে তৃণমূল নেতাকর্মীদের বক্তব্য মনযোগ সহকারে শুনছি। কারো কোন অভিযোগ অভিমান থাকলে তা সামাধানের মাধ্যমে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার জন্য আহ্বান করছি। দাগনভূঞা উপজেলা আ’লীগের প্রতিটি ইউনিট অনেক সু-সংগঠিত ও শক্তিশালী।