July 16, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, April 19th, 2023, 8:34 pm

দামেস্ক গিয়ে আসাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক :

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান দামেস্ক গিয়ে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। প্রিন্স ফয়সালের গত মঙ্গলবারের এ সফর সিরিয়ার দশকব্যাপী আঞ্চলিক নিঃসঙ্গতা ঘোচানোর পথে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ বলে মন্তব্য বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। সম্প্রতি চীনের উদ্যোগে মধ্যপ্রাচ্যের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ সুন্নি প্রধান সৌদি আরব ও শিয়া প্রধান ইরানের মধ্যে সম্পর্ক ফের স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় ওই অঞ্চলে সম্প্রীতি পুনঃপ্রতিষ্ঠার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে, এর ধারাবাহিকতায় রিয়াদের সঙ্গে দামেস্কের সম্পর্ক সহজ হওয়ার পথ খুলেছে।

২০১১ সালে সিরিয়ার সরকারবিরোধী বিক্ষোভাকারীদের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট আসাদ প্রাণঘাতী দমনাভিযান চালানোর পর দামেস্কের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছিল রিয়াদ। আসাদের ওই দমনাভিযান পরে দশকব্যাপী গৃহযুদ্ধের রূপ নেয়। তারপর থেকে আরব শক্তিকেন্দ্র সৌদি থেকে একজন শীর্ষ কূটনীতিকের প্রথম দামেস্কে সফর এটি। সৌদি আরবের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আসাদের সঙ্গে প্রিন্স ফয়সালের বৈঠকে সিরিয়ার সংঘাতের রাজনৈতিক সমাধান এবং দেশটিকে ‘এর আরব প্রতিবেশীদের’ মধ্যে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য যে সব পদক্ষেপ দরকার তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সিরিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈঠকে আসাদ বলেছেন সৌদি আরবের ‘উন্মুক্ত ও বাস্তবভিত্তিক নীতিতে’ অঞ্চলটি উপকৃত হয়েছে। আগামী (মে) মাসে রিয়াদে আরব লীগের শীর্ষ সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে।

আগামী শুক্রবার সৌদি আরবে পারস্য উপসাগরীয় আরব দেশগুলোর এবং মিশর, ইরাক ও জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আরব লীগে সিরিয়ার সম্ভাব্য ফেরা নিয়ে আলোচনা করেন, কিন্তু তারা কোনো সমঝোতায় পৌঁছতে পারেননি। আসাদ ও প্রিন্স ফয়সালের বৈঠক নিয়ে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমে দেওয়া বিবৃতিতেও আরব লীগের সম্মেলন নিয়ে কিছু বলা হয়নি।

২০১১ সালে বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর দমনাভিযান শুরু হওয়ার পর আরব লীগে সিরিয়ার সদস্যপদ স্থগিত করা হয় এবং সৌদি আরবসহ বেশ কয়েকটি উপসাগরীয় দেশ আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতে লড়াইয়ে নামা বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোকে সমর্থন দিতে শুরু করে।

আসাদ তার প্রধান মিত্র ইরান ও রাশিয়ার সহায়তা নিয়ে সিরিয়ার অধিকাংশ এলাকায় নিজের নিয়ন্ত্রণ পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হন। সম্প্রতি সৌদ আরব বলেছে, আসাদকে নিঃসঙ্গ করে রাখা অর্থহীন হচ্ছে। এরপর পক্ষ দুটি কূটনৈতিক সম্পর্ক ফের জোড়া লাগাতে সম্মত হয়। এর আগে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিভিন্ন কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, আরব লীগের সম্মেলনে আসাদকে আমন্ত্রণ জানাতে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল দামেস্ক যেতে পারেন।